বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মিশর: ওমর সুলেইমানের পতন, উত্থান এবং পতন

মিশরীয় রাজনীতিতে নাটকীয় কয়েক সপ্তাহ চলছে। ৬ই এপ্রিল মিশরের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং গোয়েন্দা প্রধান ওমর সুলেইমান রাষ্ট্রপতি পদের জন্যে তার প্রার্থিতা ঘোষণা করেন। মিশরীয়দের অনেকে ওমর সুলেইমানকে প্রতিবিপ্লবের একটি ‘অবশেষ’, অথবা প্রাক্তন শাসকগোষ্ঠীর পুনর্গঠিত নয় এমন অনুগত হিসেবে গণ্য করেন। ১৩ই এপ্রিল সুলেইমানের প্রেসিডেন্ট পদে প্রচারণার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার জন্যে দশ হাজার বিক্ষোভকারী তাহরির স্কোয়ারে জড়ো হয়েছিলো। তারপর ঘটনার একটি বিস্ময়কর মোড় পরিবর্তনের কারণে ১৪ই এপ্রিল আপাতভাবে প্রার্থীপদের জন্যে যথেষ্ট স্বাক্ষর পেতে ব্যর্থতার কারণে নির্বাচনে দাঁড়ানোর অযোগ্য ঘোষিত দশজন প্রার্থীর একজন বিবেচিত হন।

১৩ই এপ্রিল, ২০১২ সুলেইমানের প্রেসিডেন্ট পদে প্রচারণার বিরুদ্ধে বিক্ষোভরত দশ হাজার বিক্ষোভকারীকে দেখিয়ে কায়রো'র তাহরির স্কয়ারের একটি সামগ্রিক দৃশ্য। ফ্লিকার ব্যবহারকারী মোসা’ব এলাশামির পাঠানো ছবি (সিসি-বাই-এনসি-এসএ ২.০)।

১২ই এপ্রিল তারিখে ব্লগার রা’ফাত রোহাইয়েম সুলেইমানকে আক্রমণ করেন:

@রা’ফাতোলোজি: سليمان يداه ملوثة بدماء الثوار.. ويجب منع هذا “النجس” من الترشح للانتخابات
সুলেইমানের হাত বিপ্লবীদের রক্তে রঞ্জিত… এবং এই “নোংরা লোক”টির নির্বাচনে দাঁড়ানো অবশ্যই প্রতিরোধ করতে হবে

১৪ই এপ্রিল বিশিষ্ট ব্লগার এবং এক্টিভিস্ট মাইকেল নাবিল সানাদ  “ওমর সুলেইমানের বিরুদ্ধে” শিরোনামের একটি ব্লগ পোস্টে লিখেছেন:

أعتقد أن موقفى من إسرائيل معروف ، بس فى نفس الوقت ضد عمر سليمان لأقصى مدى ، و فى نفس الوقت بستمتع بالتعليقات اللى بتتريق على عمر سليمان و بتربط بينه و بين إسرائيل … ماهو فيه فرق بين ناشط سلام و بين مسئول بيتاجر ببلده علشان مصالح شخصية ، ولا أية ؟
আমি মনে করি ইজরায়েলের প্রতি আমার মনোভাব সবার জানা, তবে একইসাথে আমি সম্পূর্ণভাবে ওমর সুলেইমান বিরুদ্ধে। এবং একইসাথে আমি ওমর সুলেইমানকে এবং তাকে ইজরায়েলের সঙ্গে যুক্ত করে কৌতুক করা মন্তব্যগুলো উপভোগ করি… একজন শান্তি্র এক্টিভিস্ট এবং ব্যক্তিগত লাভের জন্যে তার দেশকে বিক্রি করা একজন সরকারি চাকুরের মধ্যে পার্থক্য আছে, তাই নয় কি?

"ওমর সুলেইমানের বিশ্বস্ততা নিয়ে তাহরির স্কয়ারে সূক্ষ্ণ প্রশ্ন।" টুইটার ব্যবহারকারী @হান্নাহআল্লামের পাঠানো ছবি।

সুলেইমান মুসলিম ব্রাদারহুড দেশে একটি রক্ষণশীল ইসলামী উদ্দেশ্যকে এগিয়ে নিতে সচেষ্ট বলে যারা উদ্বিগ্ন তাদের (মিশরের খ্রিস্টানরাসহ) কাছে আবেদন করেছেন এবং যুক্তি করেন যে তিনি মিশরকে একটি “ধর্মীয় রাষ্ট্র” হয়ে ওঠা বন্ধ করবেন। আসলেই অনেকে মনে করেন যে তিনি একটি ভাল কাজ করবেন। তিম্মি টুইট করেছেন:

@তামেরহেগাব:  সত্যিকারভাবেই আমি ওমর সুলেইমান প্রেসিডেন্ট হলে আমি কিছু মনে করবো না। দেশের উন্নতি হবে এবং বছরের পর বছর ধরে চলবে; ইখওয়ানরা [মুসলিম ভ্রাতৃত্ব] বিদায় হবে। খুব ভাল।

তবে মেনা মাকরাম টুইট করেছেন:

@মেনামাকরাম৯০: انا مسيحي وعلى فكرة مش هرشح عمر سليمان وناس كتيرة جدا كدة متفتكروش انا احنا هنرشح اللي قتل الشهداء
আমি একজন খ্রিস্টান এবং আমি ওমর সুলেইমানকে ভোট দিবো না এবং আমার মতো আরও অনেক আছে; মনে করবেন না যে আমরা [খ্রিস্টানরা] শহীদদের হত্যা করেছে এমন কাউকে ভোট দিবো

৭ই এপ্রিল সুলেইমান নিজের প্রার্থীতা ঘোষণা করার ঠিক পর পর রাজনৈতিক কার্টুনিস্ট কার্লোস লাতুফ “ইতিহাসের আস্তাকুঁড়” থেকে তার উঠে আসার এই ছবিটি প্রকাশ করেন:

সাবেক মুবারকের ধ্বজাধারী ওমর সুলেইমান মিশরের প্রেসিডেন্ট পদে লড়বেন।” কার্লোস লাতুফের পাঠানো ছবি

সুলেইমানের অযোগ্যতার সংবাদ প্রকাশের পরে চিত্রশিল্পী হাজেম আরাফা কিছু পরিবর্তন করেন:

হাজেম আরাফা’র পরিবর্তন করা কার্লোস লাতুফের আঁকা ওমর সুলেইমানের কার্টুন।

হাজেম আরাফা’র পরিবর্তন করা কার্লোস লাতুফের আঁকা ওমর সুলেইমানের কার্টুন।

মাহা আব্দু্যেলেনিন বিশ্বাস করেন যে এখনও সুলেইমানের আশা আছে:

@মাহাগাবের: ওমর সুলেইমানই একমাত্র প্রার্থী যিনি যোগ্যতা অর্জনের জন্যে তার কাগজ-পত্র পরিবর্তন করতে পারেন – তার অবশিষ্ট তা’ওকীল [সমর্থনকারী] পাওয়ার জন্যে ৪৮ ঘণ্টা সময় আছে

সুলেইমানের প্রচারাভিযানটি ঘোষণা করেছে যে নির্বাচন কমিটি সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করার জন্যে সব ধরনের আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .