বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মিশর: শান্তিতে ঘুমাও পোপ তৃতীয় শেনুডা

গতকাল (১৭ মার্চ ২০১২), মিশরের সূর্য বেদনার্ত এক বার্তা দিয়ে বিদায় নেয়- মিশরের কপ্টিক অর্থোডক্স চার্চের প্রধান পোপ তৃতীয় শেনুডা, দীর্ঘ সময় ধরে রোগের সাথে লড়াই করতে করতে অবশেষে ৮৯ বছর বয়সে পৃথিবী ত্যাগ করলেন।

এই সংবাদ ছড়িয়ে পড়ার পর পরই, এ্যাবেসিয়া ক্যাথিড্রাল নামক গির্জার সামনে হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়, পোপের প্রতি শোক এবং শ্রদ্ধা প্রদর্শন করার জন্য।

(তাজা সংবাদ: এই পোস্টে এর আগে একটি ছবি প্রদান করে হয়েছিল যেটিকে ভুল ভাবে পোপ তৃতীয় শেনুডার মৃতদেহের ছবি বলে উল্লেখ করা হয়েছে।)

মৃত্যুর ঘোষণা করার পর পরই, পোপের রাজনৈতিক অবস্থান, যা কিনা ছিল সরকার-পন্থী/ এসসিএেফ-এর প্রতি, সে বিষয়ে দ্রুত পোস্ট আসতে শুরু করে। অনেকে বিশেষ করে মাসপেরোর গণহত্যার সময় তার অবস্থান নিয়ে মন্তব্য করে। সেই সমস্ত নেটনাগরিকরা এই সমস্ত মন্তব্য এবং সমালোচনাকে নিন্দা জানাচ্ছে, যারা বলছে যে রাজনৈতিক অবস্থান সত্ত্বেও, তিনি ছিলেন এক আধ্যাত্মিক নেতা, যে নেতার মিশরে বাস করা লক্ষ লক্ষ কপ্ট খ্রিস্টানদের উপর এক শক্তিশালী প্রভাব ছিল।

ওয়াএল ইস্কান্দার তার এক ব্লগ পোস্টে এই বিষয়ে মন্তব্য করেছেন। মৃত পোপের প্রতি যে আক্রমণ, তার জবাবে সে এই পোস্ট লিখেছে:

পোপের রাজনৈতিক অবস্থানের কারণে বেশ কিছু একটিভিস্ট হয় টুইটার নয়ত ফেসবুকে তার প্রতি আক্রমণ শানিয়েছে। পোপকে নিন্দা জানিয়ে যে সমস্ত মন্তব্য সেগুলোর ক্ষেত্রে মূল সমস্যা হচ্ছে, এগুলো অন্যের চেয়ে অসংবেদনশীল, যে সবের মাঝে তারা এক বিশাল উপেক্ষার বিষয় প্রতিফলিত করছে। এটা খুব হতাশা জনক যে কিছু সংকীর্ণমনা মানুষ পোপ তৃতীয় শেনুডার বিষয়ে কেবল রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বিচার করছে। তারা যে মন্তব্য করেছে তাতে তাদের অগভীর দৃষ্টিভঙ্গি প্রতিফলিত হচ্ছে।

এরপর ওয়াএল ক্রামগত ব্যাখ্যা করেছে, কপ্টদের মাঝে পোপ শেনুডার গুরুত্ব এবং প্রভাবের বিষয়:

পোপ শেনুডের সমালোচনাকে ক্ষোভ বা অপছন্দ হিসেবে চিন্তা করা হবে ভুল। কপ্ট খ্রিস্টানদের মাঝে পোপ কোন বিতর্কিত চরিত্র নন, তিনি একজন সম্মানিত এবং শ্রদ্ধাশীল নেতা, যিনি অনেক ভালোবাসা অর্জন করেছে। চার্চের প্রধান হিসেবে তার ভূমিকায় সবাই দারুণ সন্তুষ্ট ছিল এবং তাকে বদলে যেতে হবে, এ রকম দাবী ছিল খুব সামান্য। তার কিছু কাজের সমালোচনার মানে হচ্ছে, ব্যক্তি হিসেবে এবং তার চিন্তাকে সম্পূর্ণ ভাবে প্রত্যাখ্যান করার বদলে, তার এই সমস্ত কাজের সংশোধনের প্রতি মনোযোগ আকর্ষণ করা হয়েছিল।

একই মনোভাব নিয়ে টুইটারে গামাল আসাদ (@ গামাল_আস৩দ) লিখেছে:

@Gamal_As3d: مهما إختلفنا مع البابا سياسيا سيظل هو أبونا الروحى ومعلمنا العظيم الذى تعلمنا منه المسيحية

গামাল_আস৩দ:পোপের রাজনৈতিক দর্শনের প্রতি আমরা যতই ভিন্ন মত প্রকাশ করি না কেন, তিনি আমাদের আধ্যাত্মিক নেতা হয়ে রইবেন এবং তিনি একজন মহান শিক্ষক। যিনি আমাদের খ্রিস্টান ধর্মের মৌলিক বিষয়ে শিক্ষা প্রদান করেছেন।

পোপের মরদেহ এখন গির্জার ভেতরে পাপাল চেয়ারে রাখা হয়েছে, যাতে নাগরিকদের তাকে দেখার সুযোগ পায় এবং তার প্রতি তাদের শ্রদ্ধা প্রদর্শন করে, আর কবরস্থ করার আগে তিনদিন তাকে শেষ বিদায় জানানো যাবে।

অয়াদি এল নাতরুন নামক গির্জায় তাকে সমাহিত করা হবে। এটি হচ্ছে অন্যতম এক গির্জা, আনোয়ার আল সাদাতের সময় যেখানে তিনি নির্বাসিত হয়েছিলেন। ক্যাম্প ডেভিড নামক চুক্তির নিন্দা এবং ইজরায়েলী দখলদারিত্বের থাকা জেরুজালেম ভ্রমণের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করার সেই বিখ্যাত ঘটনার জন্য সাদাত তাকে এখানে নির্বাসনে পাঠিয়েছিল। অ্যাডাম মাকরি (@অ্যাডামমাকরি) বিষয়টিকে এক পরিহাস হিসেবে দেখছেন:

@অ্যাডামমাকরি: কৌতূহল জনক বিষয় হচ্ছে যে পোপ শেনুডা, নিজের সমাহিত হবার স্থান এমন এক জায়গায় বেছে নিয়েছেন যেখানে তিনি আনোয়ার সাদাতের সরকারের সময় চার বছর গৃহবন্দি হিসেবে বাস করছেন, সেই পিসই নামক গির্জায়।

পোপ তৃতীয় শেনুডার অন্তেষ্টিক্রিয়া মঙ্গলবারে অনুষ্ঠিত হবে। নতুন পোপ নির্বাচনের আগে পর্যন্ত মেট্রোপলিটন বাকহোমোউয়াস অস্থায়ী ভাবে পোপের দায়িত্ব পালন করবে। বাসেম সাবরি (@বাসেম_সাবরি) বিষয়টি পরিষ্কার করছেন:

@বাসেম_সাবরি:: মৃত পোপ #শেনুডার স্থলে মেট্রোপলিটন বাকহোমোউয়াস দুই মাস কাজ করবেন, আর তার সময়কাল শেষে, এক নতুন #কপ্টিক পোপ নির্বাচন করা হবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .