বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ভিডিওঃ আপনার চ্যালেঞ্জকে প্রদর্শন করুন এবং প্রতিযোগিতায় একটি আই প্যাড২ জিতুন

সারা বিশ্বের নাগরিকরা যে সব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয় ব্রেটেলসমান ফাউন্ডেশন-এর ফিউচার চ্যালেঞ্জ নামক উদ্যোগ সে সবের সমন্ধে শুনতে চায়। এই বিষয়ে একটি ভিডিও তৈরি করে এবং সেটাকে তাদের ফেসবুকের পাতায় আপলোড করে, আপনি একটি আইপ্যাড২ জিততে পারেন।

ফিউচার চ্যালেঞ্জ , বৈশ্বিক যে সমস্ত ভিন্ন ধারার আলোচিত বিষয় আঞ্চলিক প্রেক্ষাপটে একে অন্যের সাথে সম্পৃক্ত সে গুলো খুঁজে বের করার উপর মনোযোগ প্রদান করে। বিশ্বের রাষ্ট্রমসুহের মধ্যে থেকে প্রবন্ধ এবং স্থানীয় দৃষ্টিভঙ্গির মাধ্যমে, লেখকরা মনোযোগ প্রদান করে যে কি ভাবে পরিবেশ পরিবর্তন, জনসংখ্যা গত পরিবর্তন, প্রাকৃতিক সম্পদের উৎসসমূহ এবং জীববৈচিত্র্য, স্বাস্থ্য, নিরাপত্তা ও সন্ত্রাসবাদ/ প্রতিরোধ নীতি, শিক্ষা, বিশ্বায়ন, অভিবাসন, নতুন শাসন এবং প্রযুক্তি একে অন্যকে প্রভাবিত করে এবং সম্প্রদায়ের উপর প্রভাব সৃষ্টি করে।

প্রতিযোগিতার নিয়মাবলি এবং শর্ত :

ফেসবুকে ফিউচার চ্যালেঞ্জ –এর প্রচারণা থেকে জানা যাচ্ছে, ভবিষ্যত পৃথিবী কি চ্যালেঞ্জ বয়ে আনবে, ‘ফিউচার চ্যালেঞ্জ’ আগ্রহী নাগরিকদের সে বিষয়ে তাদের নিজস্ব দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরার সুযোগ প্রদান করে।

এই উদ্দেশ্যে আন্তর্জাতিক এই প্রতিযোগিতা যাত্রা শুরু করে যাতে ভিন্ন ভিন্ন সংস্কৃতির এবং পেশার মানুষদের একটি শক্তিশালী ভিডিও উপস্থাপন করার সুযোগ প্রদান করা যায়, যে সমস্ত ভিডিও, তারা যে বিষয়টিকে শক্তিশালী ভাবে অনুভব করে সেই বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টিতে সাহায্য করবে।

এই প্রতিযোগিতায় ভিডিও জমা দেবার শেষ তারিখ ২২ মার্চ, বাছাই করা কিছু ভিডিওর মধ্যে থেকে ভোটের মাধ্যমে বিজয়ীকে নির্বাচিত করা হবে।

জহ কোরেয়া, ব্রাজিলের একটি ব্যান্ড দল কোয়েরার গায়িক যে কিনা ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা এই সাবটাইটেল ভিডিওটি প্রদান করেছে:

মরোক্কোর আদনানে আদিউয়ু বিশ্বাস করে যে নাগরিকদের এই সব বিষয়ের প্রতি যত্ন নেওয়া এবং দায়িত্বশীল বানানোই হচ্ছে একটা চ্যালেঞ্জ:

নেদারল্যান্ডের র‍্যাপার পার টাই ফুন বিশ্বাস করে যে গোপনীয়তা এবং অনলাইনের আমাদের প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে একটা চ্যালেঞ্জ:

আপনি কোনটিকে ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ বলে কি মনে? তাহলে একটা ভিডিও তৈরি করুন এবং সেটিকে ফিউচার চ্যালেঞ্জের ফেসবুকের পাতায় জমা দিন, আর একটি আইপ্যাড২! জিতে নিন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .