বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

জীবনের জন্য মৃত্যু: ফিলিস্তিনের অধিকারের জন্য খাদের আদনান অনশন ধর্মঘট পালন করে যাচ্ছে,

“যখন আপনি এই লেখাটা পড়বেন, তখন হয়ত খাদের আদনান এই পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছে।”

ফিলিস্তিনি একটিভিস্ট আলী আবুনিমাহ, স্বদেশী ৩৩ বছর বয়স্ক এক বেকারীর মালিক এবং স্নাতক পর্বের ছাত্র, যে কিনা ১৮ ডিসেম্বর ২০১১ থেকে ইজরায়েলী কারাগারে অনশণ ধর্মঘট চালিয়ে যাচ্ছে, তার উপর লেখা প্রবন্ধ এভাবে শুরু করেন। ইজরায়েলের সেনাদের জোর করে তাদের বাড়ি দখল করে নেবার প্রতিবাদে আদনান এই অনশন শুরু করে এবং বিশ্বের কাছে এই বাস্তবতা তুলে ধরে যে প্রতিদিনই কোন ধরণের কোন অভিযোগ ছাড়াই ফিলিস্তিনি নাগরিকদের গ্রেফতার করে আটকে রাখা হচ্ছে।

একটি ছবিতে খাদের আদনান-এর মুক্তির দাবী করা হচ্ছে।

দুই মাস ধরে শরীরে কোন ধরণের খাদ্য প্রবেশ না করার ফলে, আদনান-এর শরীরের গুরুত্বপূর্ণ সব অঙ্গ হয়ত যে কোন মূহুর্তে কাজ করে বন্ধ করে দিতে পারে, কিন্তু তার মানসিক শক্তি এখনো অটুট রয়েছে। একটি বার্তা যা মানবাধিকার সংস্থা, যেমন এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচ, সব জায়গায় ছড়িয়ে দিয়েছে, তাতে সে ঘোষণা করে :

ওফার নামক কারাগারের সামনে ইজরায়েলী সেনা এবং ফিলিস্তিনি নাগরিকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে, যেখানে আদনানকে বন্দী করে রাখা হয়েছে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে সম্ভবত উত্তেজনা আরো বৃদ্ধি পেতে পারে, কারণ অনশনরত এই বন্দীর সাথে একাত্মতা প্রদর্শন করে সারা দেশে বিক্ষোভের আয়োজনের পরিকল্পনা করা হয়েছে।

ফিলিস্তিনি এ্যাকটিভিস্ট থামেনা হুসারি [ আরবী ভাষায়] টুইট করেছে:

دعوات للانضمام للفعاليات الاحتجاجة. غدا في الناصرة 19:00 مساء. في شفاعمرو يوم الجمعة 19:00. يوم السبت أم الفحم 16:00. ‎#Respect4Khader

আগামীকাল নাজারেথ-এ সন্ধ্য ৭ টায়, শুক্রবার-এ শাফা আমার-এ সন্ধ্যা ৭টায়, উমান আল ফাহাম-এ বিকেল ৪টার প্রতিবাদে আপনাদের আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। ##রেসপেক্ট৪(ফর)খাদের

ওফার কারাগারের সামনে সংঘর্ষ (ছবির কৃতিত্বঃ ফাদি আরোওরি-এর)

টুইটারে, বেশ কয়েকটি ভিন্ন ভিন্ন হ্যাশট্যাগ, যেমন # খাদেরআনান, রেসপেক্ট৪(ফর)খাদের, #হাঙ্গারস্ট্রাইক, #ফ্রিখাদেরআদনান এবং #ডায়িং ২(টু) লিভ- এর মাধ্যমে ইজরায়েলী বর্ণবাদী নীতির অধীনে ফিলিস্তিনি নাগরিকরা প্রতি যে অন্যায় সাধন করা হচ্ছে তার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করছে। ইন্টারনেটেও ভিডিওতে পরিপূর্ণ হয়ে রয়েছে, যেমন এই ভিডিও, যাকে বলা হচ্ছে “ জীবনের জন্য মৃত্যুর সাথে একাত্মতা”, যেখানে সারা বিশ্বের নাগরিকরা আদনানের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছে এবং তাকে দ্রুত মুক্ত করে দেবার দাবী জানিয়েছে।

 

বেশ কয়েকজন নেট নাগরিক এই তথ্যও উল্লেখ করেছে যে কারাগারে বন্দী আরেক ফিলিস্তিনি নাগরিক অনশন ধর্মঘট শুরু করেছে। সাংবাদিক আহমেদ শিহাব-এলদিন টুইট করেছে:

@এএসই: #খাদেরআদনান,এর সাথে তার স্বদেশী এক ফিলিস্তিনি যোগ দিয়েছে। যে তাকে অন্যায় ভাবে কারাগারে আটকে রাখার বিরুদ্ধে কোন ধরনের খাদ্য এবং পানীয় গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকছে। aljazeera.com/video/middleea…

আদনান তার সমর্থনে যে বার্তা লাভ করেছে, গাজা টিভি নিউজ সেই বিষয়ে সবার মনোযোগ আকর্ষণ করেছে:

খাদের আদনান, প্রাক্তন অনশন ধর্মঘটকারীদের কাছ থেকে বার্তা লাভ করেছে, টমি ম্যাককারনি! http://www.youtube.com/watch?v=G1iwWZJPl_k&feature=youtu.be #ডায়িংটুলিভ

নেট নাগরিকরা খাদের আদনান এর জটিল পরিস্থিতিকে ব্যবহার করে ইজরায়েলী সেনাদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের অন্য ঘটনার প্রতিও সবার মনোযোগ আকর্ষণ করার চেষ্টা করেছে। প্যালেস্টাইনী একটিভিস্ট মাত মুসলেহ উল্লেখ করেছে:

#আইওএফ (ইজরায়েলী অকুপেশন ফোর্স)-এর বন্দুকধারীরা একটি শিশুর চোখে আঘাত করে আরেকটি শিশুকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করল। উভয় শিশুকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ##ফ্রিখাদেরআদনান।

এদিকে যখন সারা বিশ্বে খাদের-এর প্রতি একাত্মতা প্রদর্শনকারী নাগরিকের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে, তখন রাজনৈতিক প্রতিনিধি, যেমন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইলিয়াম হগ, ফিলিস্তিনের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে অনশন করে যাওয়া বন্দীর বিষয়ে নিশ্চুপ, যার অনশন আজ ৬০ দিনে পা দিল। যেমনটা আলি আবুনিমাহ টুইট করেছে:

সারকোজি, বান কি-মুন এবং অন্যরা ইজরায়েল-এর প্রাক্তন যুদ্ধ বন্দীদের পরিবারের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন, কিন্তু তারা #খাদেরআদনান এবং অন্য ফিলিস্তিনি বন্দীদের উপেক্ষা করলেন।

 

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .