বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মরোক্কো: ফেসবুকে রাজার ব্যাঙ্গচিত্র পোস্টিং জন্য দুর্গতি

৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১২ তারিখে ওয়ালিদ বাহমেন মরোক্কোর রাজধানী রাবাতের একটি আদালতে হাজির হন। এই ১৮ বছর বয়েসী এই নাগরিককে ফেসবুকে মরোক্কোর রাজা ষষ্ঠ মোহাম্মদকে বিদ্রুপ করে ছবি ও ভিডিও পোস্টের মাধ্যমে “মরোক্কোর পবিত্র মূল্যবোধের অবমাননার” অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়।

মরোক্কোর কোন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর এধরনের অভিযোগের সম্মুখীন হওয়া এই প্রথম নয়। ২০০৮ সালে ফেসবুকে রাজার ভাই হিসেবে নিজেকে পরিচয় দেয়ার জন্যে তরুণ প্রকৌশলী ফুয়াদ মুরতাদাকে তিন বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছিল। মুরতাদার সমর্থনে আন্তর্জাতিক প্রতিবাদ ও প্রচারণার ফলে গ্রেফতারের এক মাসের মধ্যেই কর্তৃপক্ষ তাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়।

গত গ্রীষ্মে (তাত্ত্বিকভাবে) সাংবিধানিক সংস্কারের মাধ্যমে রাজার “পবিত্র” চরিত্র পরিবর্তনের পর ওয়ালিদ বাহমেনের গ্রেফতারই এ জাতীয় প্রথম ঘটনা। তবে দেশে রাজা এখনো অনেক ভক্তির কেন্দ্রবিন্দু।

ইন্টারনেটে জনাব বাহমেনের বিরুদ্ধে দায়ের করা পুলিশি প্রতিবেদনের একটি অনুলিপি প্রকাশিত হয়, যাতে: নথি অনুসারে পুলিশের জব্দকৃত আইটেম হল “পবিত্র মূল্যবোধের অবমাননাকারী বাক্যাংশ ও আলোকচিত্রসহ ফেসবুকের দুটি পাতা (এসআইসি) এবং একটি আইবিএম কম্পিউটার।”

ফেসবুকে পোস্ট করা জনাব ওয়ালিদ বাহমেনের বিরুদ্ধে দায়ের করা পুলিশী প্রতিবেদনের অনুলিপি।

মুক্তির আহ্বান সত্ত্বেও বিচারক ওয়ালিদের বিচার মুলতবী করে তাকে রাজধানীর কাছাকাছি একটি কিশোর সংশোধনী কারাগারে পাঠিয়ে দেন। জনাব বাহমেনের গ্রেফতারের প্রতিক্রিয়া জানাতে একদল নেটিনাগরিক ফেসবুকে “ষষ্ঠ মোহাম্মদ, আমার স্বাধীনতা আপনার চেয়ে বেশি পবিত্র!” নামে একটি সমর্থক দল তৈরি করে, যেখানে সদস্যদের রাজার কার্টুন প্রকাশ এবং প্রদর্শন করার আমন্ত্রণ জানানো হয়।

Cartoon representing King Mohammed VI posted on Facebook

ফেসবুকে পোস্ট করা রাজা ষষ্ঠ মোহাম্মদের কার্টুন

দলটির প্রস্তাবনা [আরবী ভাষায়] বলছে:

هذه مجموعة تضامنية مع الشاب وليد بحمان، 18 سنة، معتقل بسجن الأحداث بسلا بتهمة إهانة قداسة محمد السادس على الفيسبوك. فلنثبت لمحمد السادس أن حريتنا أقدس منه
এটি ফেসবুকে মহামান্য ষষ্ঠ মোহাম্মদকে অপমান করার জন্যে সালেতে অবস্থিত একটি কিশোর সংশোধনী কারাগারে আটক ১৮ বছর বয়েসী তরুণ ওয়ালিদ বাহমেনের সঙ্গে সংহতি জানানো একটি দল। আসুন আমরা ষষ্ঠ মোহাম্মদের কাছে প্রমাণ করি আমাদের স্বাধীনতা তার চেয়ে বেশি পবিত্র।

জয়নেব এল ঘাজুই, একটি দলের অন্যতম-প্রতিষ্ঠাতা,তিনি তার ব্লগে লিখেছেন [ফরাসি ভাষায়]:

[cette arrestation bat] en brèche la propagande de l'Etat marocain autour du changement et des prétendues avancées démocratiques.

এই গ্রেফতারের ফলে তা, মরোক্কোর রাষ্ট্র পরিবর্তনের ধারণা এবং কথিত গণতান্ত্রিক অগ্রগতির প্রচারণা বন্ধ করে দেয়।

টুইটারে অনেকে সতর্কভাবে মামলাটির উপর নজর রাখছে। মিউজিক এ্যারাবে টুইট [ফরাসি ভাষায়] করছে:

@MusiqueArabe Opération soutien à Walid Bahomane – publions tous sur nos profils la caricature de notre choix.

@মিউজিকএ্যারাবে ওয়ালিদ বাহমেনের কাজের সমর্থনে – আপনার প্রোফাইলে আপনার পছন্দসই (রাজার) একটি কার্টুন প্রকাশ করুন।

সাম্প্রতিক সাংবিধানিক সংস্কার সত্ত্বেও মরোক্কোর শাসক তার লাল সীমারেখার কোন প্রকার লঙ্ঘন সহ্য করতে প্রস্তুত নয় বলে মনে হচ্ছে। জুলাই ২০১১-তে একটি নতুন সংবিধান গ্রহণের কয়েকদিন পর রাজার একটি উগ্র ব্যঙ্গচিত্র থাকার কারণে মরোক্কো এক ফরাসি সংবাদপত্র লে কুরিয়ার ইন্টারন্যাশনালকে সেন্সর [ফরাসি ভাষায়] করা হয়।

রাজতন্ত্রের প্রতি সংবেদনশীল নানা বিষয় সামলাতে গিয়ে স্বাধীন সংবাদমাধ্যম প্রায়শই শাসকের রোষানল সহ্য করেছে। এতসবের পরও আজ মনে হচ্ছে ইন্টারনেটই শেষ যুদ্ধক্ষেত্র, যেখানে মরোক্কার অধিকাংশ নাগরিক এখনও তাদের স্বাধীন মত প্রকাশের অধিকার চর্চা করতে পারে।

আরব বসন্তে অনুপ্রাণিত মরোক্কোর নেট নাগরিকরা কিছু ব্যাপারে সম্পূর্ণ সচেতন বলে মনে হচ্ছে, তারা জনাব বাহমেনের আরো কাছে আসতে এবং তার সাথে সংহতি প্রদর্শনে সংকল্পবদ্ধ।

এর ফলে শাসকদের জন্যে সেন্সরশীপ নামক বিষয়টির চর্চা আরো অনেক কঠিন হয়ে যাবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .