বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

দক্ষিন পূর্ব এশিয়াঃ সংবাদে কুমীর

দক্ষিন ফিলিপিন্সের একটি অতিকায় কুমীর এবং থাইল্যান্ড ও কম্বোডিয়ার বন্যা প্লাবিত অঞ্চলের কুমীর গুলোর সংবাদ দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার শেষ কয়েক মাসের সংবাদের শীর্ষে ছিল।

ললং নামের অতিকায় কুমীরটিকে দক্ষিন ফিলিপিন্সের অগসান দেল সুর প্রদেশে ধরা হয় এবং প্রতিদিন ৫০০ এরও বেশি লোক কুমীরটিকে টেনে নিয়ে বুনাওয়ান ইকোপার্ক এন্ড রিসার্চ সেন্টারে স্থানান্তর করে। ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকের একটি দল ধৃত অবস্থায় লবনাক্ত পানির সর্ববৃহৎ কুমীর হিসেবে ললং-কে নিশ্চিত করে যদিও  গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের দাপ্তরিক স্বীকৃতির জন্য আরও অর্ধেক বছর পেরিয়ে যায়। এবছর ফেসবুকে সর্বাধিক শেয়ারকৃত গল্পের তালিকার মধ্যে ললংকে আটকানোর ঘটনা শীর্ষ ৯ -এ অবস্থান করছে।

অনলাইন আলাপ-আলোচনায় ফিলিপিনোরাও ললং এর গল্পকে চলতি বিষয় হিসেবে তাঁদের ইন্টারনেটে শেয়ার করেছে। ফিলিপিনো রাও ললং কে দুর্নীতিবাজ রাজনীতিবিদদের সাথে তুলনা করেছে। দুর্নীতিবাজ রাজনীতিকদের তাঁরা সরকারের বড় ‘কুমীর’ বলে মনে করে।

ললং এর ছবি, ধৃত কুমীরের মধ্যে পৃথিবীতে সর্ববৃহৎ কুমীর

গত অর্ধ শতাব্দির মধ্যে সংগঠিত থাইল্যান্ডের সবচাইতে বাজে বন্যায় ৬০০-এর ও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে এবং হাজারও অধিবাসী ও শ্রমিক  তাঁদের বাড়ি ও কারখানা থেকে বাস্তুচ্যুত হয়েছে। এ বন্যা বিপর্যয়ে দেশটির ৩০০০ কুমীর খামারও ভেসে গেছে। বানভাসী পার্ক ও খামারগুলো থেকে পালিয়ে জনগণকে সতর্ক করার জন্য বন্যা সতর্কীকরণের পাশাপাশি কর্তৃপক্ষ ও প্রচার মাধ্যমগুলো কুমীর বিষয়ক সতর্কতা জারী করে।

এখানে কিছু কুমীর সংক্রান্ত তথ্য ও সংবাদ প্রতিবেদন: চোনবুরির মিলিয়ন ইয়ারস স্টোন পার্ক ও পাত্যায়া কুমীর খামার থেকে কুমীর পালিয়েছে। পার্কের প্রধান এ ঘটনার চার দিন পর জানান যে ২৯ টিকে তাঁরা আটকাতে পেরেছেন, যদিও অনেকগুলো এখনও নিখোঁজ রয়েছে। পলাতক সরীসৃপের খোঁজ জানাতে পারলে পার্ক কর্তৃপক্ষ ৫০০০ বাথ পুরস্কার প্রদান করবে বলে ঘোষণা দিয়েছে।

প্রাচীন নগরী আয়ুথথায়া-তে বন্যার সময় খামার থেকে প্রায় ১০০ কুমীর পালিয়ে গেছে, প্রতিটি কুমীর জীবিত ধরতে পারলে খামার কর্তৃপক্ষ ১,০০০ বাথ পুরস্কার প্রদান করবে।

ব্যাংককের কাছের কুমীর খামারও বানের জলে ভেসে গেছে।  কুমীর নিখোঁজের খবরটি শোনার সাথে সাথে খামারের আশে-পাশের লোকজনের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। বন্যার জল কমে এলে কুমীর গুলোকে শুকনো মাটিতে খাবার সন্ধানে দেখতে পাওয়া যায়। ব্যাং বুয়া থং জেলায় ৫০ সেন্টিমিটার জলমগ্ন সয়েতে (রাস্তায়) একটি কুমীর দেখতে পাওয়া যায়।

সিয়েম রিপে পলাতক কুমীর, ছবি ট্রিপল জে মর্নিংস

কম্বোডিয়াও দশকের সবচাইতে বাজে বন্যায় আক্রান্ত হয়েছিল। বন্যা প্লাবিত রাস্তায় কুমীরের উপস্থিতির বিষয়ে ট্রিপল জে মর্নিংস ফেসবুকে লিখেন।

ওহ হাই পালস!  সুন্দর ভুমি, চমৎকার মানুষ, আর  অতুলনীয় সব খাবার  খেয়ে এক সপ্তাহ পর কম্বোডিয়া থেকে ফিরলাম। বন্যা ও স্মরণাতীত কালের ভেজা মৌসুমে সিয়েম রিপ আক্রান্ত, এর ফলে… কাছের  খামার থেকে পলাতক একটি কপুলা কুমীর শহরের রাস্তায় হাঁটছে। বিশ্বাস কর আগামীকাল আরও কম প্রাণবন্ত অ্যাডভেঞ্চার নিয়ে তোমার সাথে দেখা করব।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .