বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

দক্ষিণ কোরিয়া: রাজনীতিবিদদের নামে মজা করার কারণে কৌতুক অভিনেতার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে

সাধারণত রাজনীতিবীদগণ, বেশির ভাগ কৌতুক অনুষ্ঠানে ব্যাঙ্গের শিকার হয়ে থাকে, কিন্তু এই কারণে দক্ষিণ কোরিয়ার এক রাজনীতিবীদ এক কৌতুক অভিনেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। এই মামলায় দাবী করা হয়েছে যে উক্ত কৌতুক অভিনেতা হাস্যরসের মধ্যে দিয়ে সকল রাজনীতিবিদের নিন্দা করেছে । এই মামলা দায়ের করার সাথে সাথে এই ঘটনা কোরীয় সমাজের বিভিন্ন অংশ থেকে সমালোচনার মুখে পড়ে। এই ঘটনায় সামাজিক প্রচার মাধ্যমে এই বিষয়ে রসিকতা আর মন্তব্যে ভরে যায়।

চৌই হিয়ো জং, ২৬ বছরের এক পুরুষ কৌতুক অভিনেতা, যিনি এখন তার হাস্যরসের কারণে প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছেন। তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার সেরা কৌতুক অনুষ্ঠান গাগ কনসার্টে অনুষ্ঠান করে থাকেন। এটি প্রতি রোববার নেট ওয়ার্ক টেলিভিশনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে প্রচারিত হয়ে থাকে। তাঁর সাম্প্রতিক এক কৌতুক নকশায় চৌ এমন ভান করে যেন, যেন সে শিশুদের নিশ্চিত ভাবে রাজনীতিবীদ হবার আহ্বান জানাচ্ছে [কোরীয় ভাষায়] [ উল্লেখ্য: এই অনুষ্ঠান শিশুদের জন্য নয়]

শিশুরা, যদি তোমরা রাজনীতিবীদ হতে চাও, তাহলে প্রথমে তোমাকে শাসক দলের প্রধানের সাথে বন্ধুত্ব করতে হবে, যাতে তারা তোমাকে কোন নির্বাচনে কাজে লাগাতে পারে, যা মূলত শাসক দলের অনুকূলে থাকবে। যখন তুমি কোন মেয়র / গভর্নরের পদের জন্য নির্বাচন করবে, তখন নির্বাচন কমিশন অফিসে গিয়ে ঘুরে আসতে ভুলবে না, আর সাথে ২০০ মিলিয়ন কোরিয়ান ওন (১৭৬,০০০ মার্কিন ডলার) নিয়ে যেত ভুলো না।

এই প্রচারণার সময়, স্থানীয় বাজার গুলোতে ঘুরতে যাবে, সে সব জায়গায় তুমি খুব কমই যাও এবং সেখানে গিয়ে সব প্রবীনদের সাথে হাত মেলাবে। এটা খুব একটা বড় কাজ নয়, ঠিক আছে? এবং সেখানে গিয়ে বাটি ভর্তি ভাতের সুপের সবটাই খাবে [ স্থানীয় ভাবে তৈরি কম দামী ভাতের সুপ, মা মূলত শ্রমিক শ্রেণীর লোকজন খেয়ে থাকে,] যা তুমি খুব কমই খেয়ে থাক।

তুমি তোমার নির্বাচনী প্রচারণায় প্রতিশ্রুতি প্রদানের সময় বলবে যে, তুমি তাদের একটা সেতু বানিয়ে দেবে, অথবা বলবে, তাদের এলাকায় একটি পাতাল রেলস্টেশন করে দেবে। ওহ, তুমি কি মনে কর এ সব খুব কঠিন কাজ? চিন্তা করো না, তুমি কেবল প্রতিশ্রুতি প্রদান করবে, কখনো তা পালন করবে না।

যদি তুমি একটি কুকুরের মত নিয়মিত তোমার অন্য সব প্রার্থীর দুর্বলতার দিকে ধেয়ে যাও, তাহলে তুমি একজন রাজনীতিবীদ হতে পারবে।

Choi Hyo-jong performing at the comedy show, Gag Concert

অনুষ্ঠানরত অবস্থায় চৌ-এর ছবি, ছবি ব্লগার নৌ-এর। আরোপণ (এট্রিবিউশন) প্রয়োজন। অনুমতি ক্রমে ব্যবহার করা হয়েছে।

কাং ইয়োং সুক এক সংসদ সদস্য, যাকে বেশ কয়েকজন সংবাদ উপস্থাপকের বিরুদ্ধে বাজে বাজে মন্তব্য করার কারণে শাসক দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। নিন্দা সূচক মন্তব্য করার দায়ে, ১৭ নভেম্বর ২০১১ তারিখে সংসদ কাং, চৌ-এর বিরুদ্ধে মামলা করে।

তার এই মামলা কোরিয়া প্রজাতন্ত্রকে বিস্মিত করে দেয়। চৌ-এর প্রতি সমর্থনের প্রতীক হিসেবে হাজার হাজার ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা তাকে রক্ষার জন্য দায়ুম আগোরাতে এক দরখাস্ত প্রদান করে [কোরীয় ভাষায়]। দায়ুম আগোরা হচ্ছে দেশটির সবচেয়ে বড় গণ অনলাইন ফোরাম। এই ঘটনার পর টুইটার ব্যবহারকারীরা একে অন্যকে চৌ (@এইচওয়াইজং) এর টুইটার একাউন্ট ব্যবহারে উৎসাহ প্রদান করছে [কোরীয় ভাষায়], যাতে অজস্র অনুসারীর কারণে তার একটা ক্ষমতা তৈরি হয়। এদের লক্ষ্য হচ্ছে টুইটারে চৌ-এর ১০০,০০০ অনুসরণকারী তৈরী করা।

কৌতুক অভিনেতা সম্প্রদায়ও চৌ-এর প্রতি তাদের সমর্থন প্রকাশ করেছে এবং তারা অন্য সব কৌতুক অভিনেতাকে উৎসাহ প্রদান করে, যেন তারা সেন্সরশিপের ভাবনায় আটকে না যায়। কিম মি-ওয়াহ (@কিমমিওয়াহ), যিনি কোরিয়ার কৌতুক অভিনেতা সম্প্রদায়ের মধ্যে এক প্রবাদ পুরুষ, তিনি টুইট করেছেন [কোরীয় ভাষায়] :

효종아..기가막히고 코가막힌다 그쟈!! 강용석의원이 우릴 코미디언이라고 우습게 보나본데[…]”국회의원 모욕죄”로 고소했다고? 우리도 맞고소하자. 국회의원들..뻑하면”코미디하고있네” 라고 코미디언 모욕했으니!!

প্রিয় হোয়ে জং…এটা আসলে কোন বিস্ময়কর কিছুর বাইরে, সাংসদ কাং ইয়োং সিউক মনে করছে যে, সে আমাদের উপর চড়াও হতে পারবে, কারণ আমরা কেবল কৌতুক অভিনেতা মাত্র,[…] সে কি রাজনীতিবিদদের বিরুদ্ধে নিন্দা করার কারণে, আপনার বিরুদ্ধে মামলা করেছে? তাহলে কৌতুক অভিনেতাদের বিরুদ্ধে নিন্দা করার কারণে আমরাও তার নামে মামলা করব,। রাজনীতিবিদেরা সব সময় বলে থাকে , যে এটা একটা কৌতুক [যখন রাজনীতিতে কোন বিচিত্র ঘটনা ঘটে], তার মানে তারা কৌতুক অনুষ্ঠানের নামে নিন্দা করে থাকে।

আরেক বিখ্যাত কৌতুক অভিনেতা, যার নাম হেই সিয়েক (@ব্লোভে১২), তিনি টুইট করেছেন [কোরীয় ভাষায়]

혹시 내 후배 가운데..개그 때문에.. 벌금 나오게 된다면..전액 내가 내주마..맘 놓고 하던거 해라.

যদি কোন তরুণ কৌতুক অভিনেতাকে তার কৌতুকের কারণে জরিমানা করা হয়, তাহলে তোমরা যা করছে সেই কাজটাকে চালিয়ে যাবে, তোমাদের জরিমানার সকল অর্থ আমি প্রদান করব:
Image of comedians at Gag Concert, Image by Blogger Noi, Attribution required, used with permission.

গাগ কনসার্টে অনুষ্ঠানরত এক কৌতুক অভিনেতা। ছবি ব্লগার নৌ-এর। আরোপণ (এট্রিবিউশন) প্রয়োজন। অনুমতিক্রমে প্রকাশিত.

বিখ্যাত সংস্কৃতি বিষয়ক সমালোচক চিন -কোন (@আনহেইম), টুইটারে মাধ্যমে ব্যাখ্যা করেছেন, [কোরীয় ভাষায়], কেন তিনি দুই ধাপে কৌতুক অভিনেতাদের সাথে রাজনীতিবিদের পার্থক্য তৈরি করেছেন।

개그맨들이 하는 개그는 미학적 개그입니다. 즉 개그맨들은 정말 바보가 아니라 멍청한 척 연기하는 거죠. 반면 강용석을 비롯한 국해의원들의 개그는 존재론적 개그입니다. 그건 연기가 아니에요. 삶이에요 삶… 리얼 라이프 잇셀프.

কৌতুক অভিনেতারা যে কৌতুকের চর্চা করে, তা হচ্ছে নান্দনিক কৌতুক, এর মানে হচ্ছে আদতে কৌতুক অভিনেতারা নির্বোধের অভিনয় করছে (একটা মজার পরিস্থিতি সৃষ্টি করার জন্য)। তবে রাজনীতিবিদেরা যে ধাঁচের কৌতুক প্রদর্শন করে, যার মধ্যে জনাব. কাং-ও অর্ন্তভুক্ত রয়েছেন, তা আসলে এক বাজে কৌতুক। যার মানে হচ্ছে কৌতুকই তাদের জীবন, নিজেদের বাস্তবের জীবনটাও তাদের একটা কৌতুক মাত্র। তারা আসলে কোন অভিনয় করে না।

চুন উ-ইয়ং (@হিস্টপিয়ান), তিনি একজন ইতিহাসবিদ, যিনি মাপো নামক এলাকায় বাস করেন, যেখান থেকে কাং সংসদ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে। তিনি টুইট করেছেন [কোরীয় ভাষায়] যে তিনি তার এই এলাকার কারণে লজ্জিত :

어디 가서 마포 산다는 소리도 창피해서 못하는데[…]이런 ‘모욕감'은 어떻게 씻어야 할지.

আমি এখন আর জোর গলায় বলতে পারি না যে, আমি মাপোতে বাস করি। কারণ আমি এর জন্য দারুণ বিব্রত।[…] এটা এতটাই নিন্দাজনক এবং কি ভাবে এই অনুভূতিকে ছুঁড়ে ফেলতে পারি। আমি এতটাই অপমানিত বোধ করেছি।

জনাব চুন খানিকটা রসিকতার সাথে তাকে অনুসরণ করা টুইটারকারীদের কাছ থেকে জানতে চেয়েছেন, তারা কি কোন ভাল আইনজীবীর ঠিকানা প্রদান করতে পারে, যাতে তিনি মাপোর সমগ্র সম্প্রদায়ের নিন্দা করার জন্য কাং-এর বিরুদ্ধে মামলা করতে পারেন।

টুইটার ব্যবহারকারী @কোরীয়া ৪৮৬ টুইট করেছেন। উক্ত টুইটে [ কোরীয় ভাষায়] একটি সংক্ষিপ্ত মন্তব্য সহ একটি প্রবন্ধের লিঙ্ক যুক্ত করেছে:

“강용석 의원 왜 이래요?”의원실에 물었더니.우리라고 욕 먹는 걸 모르겠냐? 알면서도 하는 것””무소속 된 뒤 찾은 새 할 일은 블랙 마케팅, 확실히 자리매김될 것” j.mp/uVHuCd 확실이 맛이갔군.

যখন আমি জিজ্ঞেস করলাম, সাংসদ কাং ইয়ং-সিউক-এর হয়েছেটা কি? কাং-এর অফিস থেকে নাম না প্রকাশ করা এক কর্মী আমাকে উত্তর করল, বেশ, আপনি কি মনে করেন না, আমরা কি জনতার বাজে প্রতিক্রিয়ার বিষয়ে সচেতন নই, কিন্তু আমরা আমাদের কাজ করে যাব। যখন থেকে কাং এক স্বতন্ত্র সাংসদে পরিণত হয়েছে [ কোন রাজনৈতিক দলের সাথে যুক্ত না থাকা] তখন থেকে তিনি এই ব্লাক মার্কেটিং-কে (নেতিবাচক মার্কেটিং বা নয়েজ মার্কেটিং ) তার নূতন কাজ হিসেবে গ্রহণ করছেন। তার এই সব কর্মকাণ্ড তাকে আবার সবার মাঝে তুলে আনবে। ”. j.mp/uVHuCd ওহ! কাং একেবারে বদ্ধ উন্মাদ।

ব্লগার কিম না-ইয়ং, এই ঘটনার ক্ষেত্রে আরেক রকমের ব্যাখ্যা প্রদান করেছেন [কোরীয় ভাষায়]। কিমের মতে, এ ধরনের মামলা বাক স্বাধীনতাকে খর্ব করবে না। কিন্তু কাং-এর নিষ্ঠুর কর্ম, গোষ্ঠী নিন্দা জানানোর জন্য কাউকে অভিযুক্ত করার জন্য এই মামলার একটা বিশেষ উদ্দেশ্য রয়েছে। কাং, যে নিজেই গোষ্ঠী নিন্দার অভিযোগে অভিযুক্ত। এতে সে আদালতের প্রদান করা রায়ের বিরুদ্ধে করা মামলার ক্ষেত্রে পরবর্তীতে আরো শক্তিশালী একটা অবস্থান গ্রহণ করতে পারবে।

গত বছর কাং বিভিন্ন সংবাদ পাঠকদের সম্বন্ধে বাজে বাজে মন্তব্য করে এবং মামলায় অভিযুক্ত হবার মত পরিস্থিতির সৃষ্টি করে। এতে বেশ কিছু মহিলা সংবাদ পাঠিকা তার বিরুদ্ধে মামলা করে। এমনকি কাং এই মামলায় হেরে যায়। এখন যদি সে আদালতের রায় মেনে নেয়, তার মানে হচ্ছে এই, সে আর তার পদে আসীন থাকার যোগ্য থাকবে না।

자기가 유죄 판결 받은 “집단 모욕죄”가 애당초 말도 안되는 법이라는걸 보여주기 위해서랍니다.…아무런 관계도 없는 무고한 최효종을 끌어들여 본보기로 보이겠다는 겁니다…나 말고, 얘도 유죄 때려봐, 하는 식으로. 만약 최효종이 무죄를 받으면 왜 재는 무죄고 나는 유죄야? 하겠지요.

কাং-এর এই মামলা করার উদ্দেশ্য হচ্ছে, দলগত নিন্দার ধারণার ক্ষেত্রে এক আপোষ রফা তৈরি করা। তিনি এখানে যুক্তি প্রদান করতে চান যে এটা শুরু থেকে “অকার্যকর”। কাং, সরল এবং এই সমস্ত কর্মকাণ্ডের বাইরে অবস্থান করা এক কৌতুক অভিনেতার উপর মামলা ঠুকে দিয়ে, তার নিজের বিরুদ্ধে আদালতের প্রদান করা রায়কে অকার্যকর করতে চায়। যেন কাং বলতে চায়, ‘আপনারা যেমন আমার বিরুদ্ধে রায় দিয়েছেন, ঠিক সেভাবে চৌ-কেও শাস্তি প্রদান করুন। যদি চৌ নিরপরাধ প্রমানিত হয়, তখন কাং যুক্তি প্রদান করবে, কি ভাবে চৌ ছাড়া পেয়ে যেতে পারে, যেখানে আমি [ যে কিনা একই রকম ভাবে গোষ্ঠী নিন্দার অভিযোগে অভিযুক্ত হয়ে] একই ঘটনায় অপরাধী হিসেবে বিবেচিত হচ্ছি? ”

কাং-এর মূল উদ্দেশ্য যাই হোক, তবে এটা সৃষ্টিশীল কৌতুক নকশার আরেকটা ধারণার সৃষ্টি করেছে। চৌ-এর এক সহকর্মী, কিম ওন হোয়ে (@ওনহয়েকিম) টুইট করেছে [ কোরীয় ভাষায়] যে তিনি নতুন এক মজার শিরোনাম সহ এক নতুন কৌতুক নকশা তৈরি করার কথা ভাবছেন, যার নাম হবে “স্যু-ব্যাক ৬০ মিনিট” ( এর অর্থ হচ্ছে- “এক ঘন্টার মধ্যে মামলা করা”, মূলত যুক্তরাষ্ট্রের একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠান “৬০ মিনিট”-কে ব্যাঙ্গ করে এই নামকরণ করা হয়েছে), অথবা এর নাম হতে পারে, “স্যু-এনিথিং” (এটি মূলত “আসক এনিথিং” নামের কোরীয় এক জনপ্রিয় টেলিভিশন অনুষ্ঠানের অনুকরণে এক নতুন কৌতুক নকশা তৈরির প্রস্তাবনা।) বা যে “কোন কিছুতে মামলা করা”।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .