বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মিশর: বিপ্লব আবার ফিরে এসেছে

এই প্রবন্ধটি মিশর বিপ্লব ২০১১-এর উপর করা আমাদের বিশেষ কাভারেজের অংশ

ধারণা করা হচ্ছে প্রায় ১০০,০০০-এর বেশী জনতা এখন তাহরির স্কোয়ারে অবস্থান করেছে। একই সাথে পুলিশ এবং সামরিক বাহিনী বিক্ষোভকারীদের সাথে সংঘর্ষ চালিয়ে যাচ্ছে, যে সমস্ত বিক্ষোভকারীরা মিশরের সামরিক শাসনের শাসনের আহ্বান জানাচ্ছে। গত শুক্রবার থেকে বিক্ষোভকারীরা দেশটির সরকারী সংস্থায় কর্মরত বন্দুকধারীদের সাথে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে এবং এখন তারা এখানে অবস্থান করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, যারা তাদের দাবী পুরণ না হওয়া পর্যন্ত সেই স্কোয়ার থেকে সরে যাবে না। বিভিন্ন সংবাদে পাওয়া খবর অনুসারে ৩৫ জনের মত নাগরিকের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া গেছে।

বিক্ষোভকারীদের প্রধান দাবী ছিল, দেশটির শাসন কার্য সর্বোচ্চ সামরিক পরিষদকে (সুপ্রিম কাউন্সিল অফ আর্মড ফোর্সেস বা এসসিএএফ) এক বেসামরিক সরকারে কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। গত ফেব্রুয়ারীতে রাষ্ট্রপতি পদ থেকে হোসনী মুবারকের পদচ্যুতির পর দেশটির সামরিক বাহিনী নিজেই দেশটির অস্থায়ী শাসক রুপে আবির্ভুত হয়।

এনবিসি-এর সাংবাদিক রিচার্ড এঞ্জেল টুইট করেছেন:

@রিচার্ডএঞ্জেলএনবিসি: #ইজিপ্ট। সম্ভবত ১০০,০০০-এর মত জনতা এখন তাহরিরে অবস্থান করছে। বড় বড় তাবু এখন তাদের আশ্রয় কেন্দ্র

সংযুক্ত আরব আমিরাতের টিভি চ্যানেল আল জাজিরা মুবাশ্বের-এর একটি ছবি আপলোড করেছে। এই ছবি তাহরিরে অবস্থান করা জনতা পরিমাণকে তুলে ধরছে:

@সুলতানআলকাশেমী: ঠিক এই মূহূর্তে তাহরির স্কোয়ার- কায়রোর স্থানীয় সময় সোমবার, রাত ১০.৪০ মিনিট।

তাহরিরের দৃশ্য। আল জাজিরা মুবাশ্বের-এর মাধ্যমে পাওয়া সুলতান আল কাশেমীর ছবি।

জ্যাক শেনকার এর সাথে যোগ করেছে:

@হ্যাকেনইয়াল্ড:

#তাহরিরের এক ল্যাম্পপোস্ট তানতাউইতে-এক কুশপুত্তলিকা ফাঁসিতে ঝোলানো হয়েছে। সেই একই ল্যাম্পপোস্টে জানুয়ারি মাসে যেটিতে মুবারকের কুশপুত্তলিকা ঝোলানো হয়েছিল: ছবি- twitter.com/h7zjZu9s

তাহরিরের এক ল্যাম্পপোস্ট তানতাউয়িতে -এক কুশপুত্তলিকা ফাঁসিতে ঝোলানো হয়েছে, ছবি জ্যাক শেনকার-এর

ফিল্ড মার্শাল মোহাম্মদ হুসাইন তানতাউয়ি হচ্ছেন সামরিক পরিষদ বা এসসিএএফ-এর প্রধান। এখন বিক্ষোভকারীরা মাসের পর মাস ধরে তাঁর পদত্যাগের আহ্বান জানিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে আসছে।

মারিয়ান আওয়াজ দিচ্ছে:

@মারো৮৪:গৃহ 🙂 মিশ্রিয় নাগরিকরা দারুণ! স্কোয়ারে অবস্থান করা সকলের মনোভাব চাঙ্গা! আমরা হাল ছাড়ব না! আমরা পিছু হটব না 🙂 #তাহরির, এসসিএএফ নিপাত যাক।

কিন্তু এক প্রান্ত থেকে বিপদ উঁকি দিচ্ছে, এই সংঘর্ষে ভয়ানক পরিমাণে কাঁদানে গ্যাস, ছররা গুলি এবং এমনকি তাজা বুলেট ব্যবহার করা হচ্ছে।

ইয়াসমিন জি দুটি বুলেটের একটি ছবি প্রদর্শন করছেন, এর একটি যুক্তরাষ্ট্র এবং অপরটি ইতালির তৈরি। এগুলো বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা হচ্ছে।

@_ইয়াসমিনজি_ : ইতালি এবং যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি বুলেট, এগুলো হচ্ছে এমন এক ধরনের বুলেট যা, আরো ছোট ছোট টুকরা হয়ে ছড়িয়ে পড়ে। #তাহরির#নভে১৯ yfrog.com/nu6gngnj

যুক্তরাষ্ট্র এবং ইতালির তৈরি বুলেট, যা কিনা মিশরীয় বিক্ষোভকারীদের খুন করার কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। ছবি ইয়াসমিন জি-এর

বেল ট্রিউ স্বীকার করে নিয়েছে:

@বেলট্রিউ: আমরা নাইট ভিশন ক্যামেরার মাধ্যমে, কোনখানে দুরপাল্লার বন্দুকধারীদের অবস্থান করছে কিনা তা দেখে নিচ্ছি।#তাহরির

জোনাথান রাশাদ আমাদের জানাচ্ছে:

@জোনাথানরাশাদ: এখন মোহামেদ মাহমুদ নামক সড়কে আমাদের বিরুদ্ধে তাজা বুলেট ব্যবহার করা হচ্ছে। এই সংঘর্ষ ৫৭ ঘণ্টা ধরে চলছে। নিহতের সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে।

আর জশ শাহরিয়ার এই ছবিটি আমাদের প্রদর্শন করেছে, যে ছবি কথা বলছে:

@জেশাহরিয়ার: তাহরিরের বন্দুক থেকে গুলি ছোঁড়ার ঘটনা আসলে কতটা ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করেছে? এই ছবিটা তা ভালভাবে ব্যাখ্যা করছে: https://fbcdn-sphotos-a.akamaihd.net/hphotos-ak-snc7/s720x720/374922_310620258948089_279164165427032_1277693_48204579_n.jpg #Egypt via @Elazul

টুইটারে, @এলাজুল এই ছবিটি প্রদর্শন করেছে, যা তাহরিরে, বন্দুক থেকে গুলি ছোঁড়ার পরিমাণ তুলে ধরছে।

এদিকে একটিভিস্ট মোনা সাইফ মর্গে ঘুরে এসেছেন। পুলিশের আক্রমণে নিহত শহীদ বিক্ষোভকারীদের অনেকে এখানে রাখা হয়েছেন। ভদ্রমহিলা সংবাদ প্রদান করেছেন :

@মোনাসোসহ :এখানে মর্গে রাখা সকল মৃতদেহের মধ্যে কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া সকল শহীদ বন্দুকের বুলেটে নিহত হয়েছে, এর মধ্যে যারা ব্যতিক্রম, তাদের মধ্যে দুজন কাঁদানে গ্যাসের প্রভাবে দমবন্ধ হয়ে এবং একজন মাথার খুলি ফেটে যাওয়ার কারণে নিহত হয়েছে#তাহরির#মাসরা৭য়আ

তিনি এর সাথে জানান, মর্গে তিনি ২৩ টি মৃতদেহ দেখেছেন [আরবী ভাষায়] :

23 جثة، 2 منهم جاري التعرف عليهم، و 3 مجهولين. قولوا للأهالي ييجوا يتعرفوا عليهم
@মোনাসোসহ: মর্গে মোট ২৩ টি লাশ দেখেছি। এর মধ্যে এখন দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে এবং তিনজনের পরিচয় এখনো শনাক্ত করা যায়নি। পরিবার সমূহকে অনুরোধ করছি, যেন তারা এখানে এসে মৃতদেহ শনাক্ত করে।

এই প্রবন্ধটি মিশর বিপ্লব ২০১১-এর উপর করা আমাদের বিশেষ কাভারেজের অংশ

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .