বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মালয়েশিয়া: অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন

মালয়েশিয়াতে ১ লাখ লোকের অনুরোধ সংবলিত নাজিব তুন রাজাকের পদত্যাগ দাবির ফেসবুক পাতা তৈরি হওয়ার পর তা ইতোমধ্যেই ২ লাখ সমর্থক সৃষ্টিতে সমর্থ হয়েছে। গত ৯ই জুলাই বারসিহ র‍্যালি ২.০ শুরু হওয়ার আগেই প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে একই দিনে হাজার হাজার লোক রাস্তায় মিছিল করে

নির্বাচনী সংস্কার বিষয়ে চাপ প্রয়োগের উদ্দেশ্যে বারসিহ(স্থানীয় ভাষায় সাফাই) কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। এ কর্মসূচিকে সরকার অবৈধ ঘোষনা করে এবং পুলিশ শহরের এক হাজারেরও বেশি অংশগ্রহণকারীকে গ্রেফতার করে। বর্তমানে বারসিহ রাজনৈতিক আন্দোলনে পরিণত হয়েছে যা হয়তো প্রধানমন্ত্রী নাজিবের ক্ষমতাকে খর্ব করতে পারে।

নাজিবের বিরুদ্ধে ফেসবুক প্রচারণা

লিম কিত সিয়াং ফেসবুক পাতায় লিখেন:

বারসিহ ২.০ সমর্থকদের একটা বড় অংশ আছে যারা বারসিহ২.০-এর অফিসিয়াল ব্যাজ ব্যবহার করছেন।
বারসিহ ২.০ র‍্যালির দিন শনিবারে নেটিজেনরা যাতে সরকারের বিরুদ্ধে তাঁদের অসন্তোষ প্রকাশ করতে পারে সে জন্য একট প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা হয়। যদিও পাতাটি কে তৈরি করেছেন সে বিষয়ে কোন তথ্য প্রদান করা হয় নি।

সমর্থকরা যারা এ পাতাটি পছন্দ করেছেন তাঁরা এর দ্রুত জনপ্রিয়তা দেখে বিস্মিত। সমর্থক সংখ্যা দশ লাখে উন্নীত করতে তাঁরা তৎপর রয়েছেন।
একই ধরণের শিরোনামে ফেসবুকে অন্যান্য পাতা থাকায় বিষয়টি তাঁদের উৎসাহী করেছে।

বারসিহ নেতৃত্ব আনুষ্ঠানিকভাবে ফেসবুক প্রচারণার সম্পৃক্ততার বিষয়টি অস্বীকার করেন। তাঁরা বলেন তাঁদের গ্রুপটি শুধুমাত্র নির্বাচনী সংস্কারের পক্ষে।

গতকাল বাকিংহাম প্রাসাদে হলুদ পোষাক পরিহিত রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ নাজিবের সাথে সাক্ষাৎ করার যে ছবি প্রকাশিত হয় তা দেখে মালয়েশীয় নেটিজেনরা বিস্মিত হন। হলুদ রঙ বর্তমানে মালয়েশিয়াতে প্রতিবাদের রঙ। যারা হলুদ বারসিহ টি-শার্ট পরেন মালয়েশীয় পুলিশ তাঁদের গ্রেফতার করে।

রানী মালয়েশিয়ার প্রতিবাদের রঙ হলুদ পোষাক পরিধান করেছেন

কিছু টুইটার প্রতিক্রিয়া:

@আমানোনফায়ার:: আরটি @ এরিকসিএমসি৯০: নাজিব রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ আর তাঁর হলুদ পোষাক নিয়ে কি করতে যাচ্ছে? হা হা #বারসিহস্টোরিজ http://twitpic.com/5q27j3

@লেক্সিওনগমাউ: #বারসিহস্টোরিজ নাজিবের সাথে সাক্ষাতের সময় রানী এলিজাবেথ হলুদ রঙের ব্লাউজ আর স্কার্ট পরেছেন। আজকের স্টারে প্রকাশিত ছবি!!! যুক্তরাজ্যে আমরা একজন সমর্থক পেলাম।

@পিসফুলম্যান২০০৯: বারসিহর প্রতি রানী সমর্থন জানিয়েছেন। হলুদ এগিয়ে চল “@কেইপ: কাউ কাউ হলুদ! রানী দীর্ঘজীবী হউন #বারসিহস্টোরিজ http://t.co/YDlF2et”

@_হাফিজ: “@ওয়ানসাইফুল: রানী কি কোন কিছু ইঙ্গিত করার চেষ্টা করছেন পূণঃ#বারসিহ?  http://bit.ly/o4dBrn (expand)” )” আমার যাওয়াটা ঠিক হবেনা হাহ হা# বারসিহস্টোরিজ

@চিয়াকস: :@ এরিকসিএমসি৯০ @বারসিহ২ #বারসিহস্টোরিজ কাকতালীয়ভাবেই হোক বা যেভাবেই হোক হলুদ পোষাক পরে রানী বারসিহ২.০কে সমর্থন করেছেন।

@আজিব৩৩: জনতা বিশ্বাস করুন!! আমরা আর একা নই। রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ আমাদের সঙ্গে আছেন.., সত্যিই তাই:D #বারসিহ # বারসিহস্টোরিজ http://t.co/g0Oq3jt

@ইয়ংঘাতোয়ান: হলুদ পোষাকে রানী নাজিবকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন ফটোশপে রানীর পোষাক বদলে ফেলার আগেই দ্রুত ঢু মারো http://t.co/Nniqze # বারসিহস্টোরিজ

জেবাত মাস্ট ডাই ডাই বারসিহ আন্দোলন সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন। ড্যানিলোহ পুলিশকে মনে করিয়ে দেন যে গণতন্ত্রে বারসিহ শার্ট পরা কোন অপরাধ নয়:

বারসিহ শার্ট পরিধান করা অথবা বারসিহ লেখা শার্ট পরিধান করা অথবা বারসিহ লোগো পরিধান করা আমাদের গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে কোন অবৈধ বিষয় হওয়া উচিত নয়। বারসিহ শার্ট গায়ে চড়ানো মানেই এই নয় যে আমরা কোন ‘সমাজ বিরোধী সংগঠন’ বা আমরা ঐ সংগঠনকে বস্তুগত সহায়তা প্রদান করি।

আমরা বড়জোর সংগঠন গঠনের কারন টিকে সমর্থন করি, যা স্বাধীন এবং স্বচ্ছ নির্বাচনের আহ্বান জানায়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী এবং পুলিশ কি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনকে অবৈধ ঘোষনা করেছে?

বারসিহ র‍্যালি মালয়েশিয়াকে একটি খারাপ ইমেজ দান করেছে এ বিষয়ে রানটিংসবাইএমএম সাড়া দিয়েছেন:

অনেকে মনে করেন বিদেশী প্রচার মাধ্যম (স্থানীয় প্রচার মাধ্যমও দায়ী) কাঁদানে গ্যাস এবং জল কামান ব্যবহারের সংবাদ প্রচার করে বিশ্বে মালয়েশিয়ার ভাবমূর্তিকে ক্ষুন্ন করেছে। আমি মনে করি লোকজন সরকার ও জনতার বিষয়ে বিভ্রান্ত। হ্যা মালয়েশীয় সরকারের বিষয়ে বিশ্বে খারাপ ধারণা তৈরি হয়েছে কারন সরকার পুরো বিষয়টিকেই খুব খারাপভাবে নিয়ন্ত্রন করেছে। মালয়েশীয় সরকারের প্রতি বহির্বিশ্বের যে মনোভাব অধিকার আদায়ের বিষয়ে যারা সোচ্চার তাঁদের বিষয়ে তাঁরা এক মনোভাব পোষন করেনা।

সিংগাপুরের একজন ছাত্র ভায়ান জয়প্রগ্রাস বারসিহ মিছিলের সরকারি ত্রাসের একজন চাক্ষুষ স্বাক্ষী:

রবিবার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক দাবি করেন পুলিশ বিক্ষোভকারীদের প্রতি ‘ন্যূনতম শক্ত প্রয়োগ’ করেছে জারান পুদা লুমাতে আমি যা দেখছি তার সাথে এ বর্ণনার মিল খুব কমই আছে। সেখানে পুলিশ বারসিহ ২.০ আন্দোলনের হলুদ পোষাক পরিহিত এবং মালয়েশীয় পতাকায় সজ্জিত নিরস্ত্র প্রতিবাদকারীদের ধাওয়া করে। একটা ঘটনা হলো আমি দেখেছি যে একজন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ লাঠি ব্যবহার করছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .