বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইরান: ব্লগাররা বিন লাদেনের মৃত্যুতে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন

এই পোস্ট ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যু নিয়ে আমাদের বিশেষ কাভারেজ এর অংশ।

বেশ কিছু ইরানী ব্লগার ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যুতে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। অনেকে গভীর মন্তব্য করেছেন, কেউ কেউ প্রশ্ন করেছেন আর কেউ কেউ বিদ্রুপ করেছেন।

ইরানী ব্লগার মাচিন হেসাব জিজ্ঞাসা করেছেন তারা তার মাথায় কেন গুলি করেছে।

মোহাম্মাদ মৈনি লিখেছেন যে বিন লাদেন একটা চিন্তার প্রতিকৃতি আর ওসামার মৃত্যুর মানে এই না যে তার ধারনা মারা গেছে। একটা ধারনা যা মানুষকে পছন্দ করেনা, আর ধর্মকে হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করে। বিন লাদেনের জন্য কেবল তার নিজের ধর্মের পড়া (ব্যাখ্যা) যথাযথ ছিল, কিন্তু মারা যাওয়ার আগে সে হয়তো নিজের ধারনা সম্পর্কে সন্দেহ করেছে।

বেশ কিছু ব্লগার যার মধ্যে আজার খান আছেন তার  ১৯৭১ সালে সুইডেনে তার পরিবারের সাথে ওসামার ছবি প্রকাশ করেছেন।

বেশ কিছু ব্লগার যার মধ্যে আজার খান আছেন তার ১৯৭১ সালে সুইডেনে তার পরিবারের সাথে ওসামার ছবি প্রকাশ করেছেন (উপরে), যেখানে অন্য রকম, আলাদা ওসামাকে দেখা যাচ্ছে (লাল গোল করা)।

জনপ্রিয় ইরানী লিঙ্ক ভাগ করার সাইট বালাতারিনের একজন ব্যবহারকারী [নকল] একটা ছবি প্রকাশ করেছেন আর মজা করে বলেছেন, ”এখন তেহরানের মিউনিসিপালিটি লাদেন সড়কের নাম শহীদ বিন লাদেন নামকরণ করবে।“

লাদেন সড়ক, তেহরান, ইরান।

লাদেন সড়ক, তেহরান, ইরান।

ফ্লোরেট নামে আর একজন বালাতারিন ব্যবহারকারী লিখেছেন যে সময় হয়েছে ইরানের মানুষের পথে নেমে ওসামার মৃত্যুতে আনন্দ প্রকাশ করার।

ইউনিইরানি লিখেছেন যে এখন ওসামা মারা গিয়ে বিশ্বে একজন খারাপ মানুষ কম হয়েছে। তিনি তাকে ‘আসল সন্ত্রাসী‘ বলেছেন।

এই পোস্ট ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যু নিয়ে আমাদের বিশেষ কাভারেজ এর অংশ।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .