বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সিরিয়াঃ ইন্টারনেট সেবা বন্ধ হয়ে যাবার সংবাদ

এই প্রবন্ধটি সিরিয়ার প্রতিবাদ বিক্ষোভ ২০১১ সবন্ধে আমাদের বিষেশ কাভারেজের অংশ

যখন সিরিয়ায় আল আসাদ সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলছে এবং সিরিয়ার নাগরিকদের বিরুদ্ধে নির্মম আচরণ করা হচ্ছে, তখন তার প্রেক্ষাপটে আজ (শুক্রবার) সিরিয়ায় সম্ভাব্য ইন্টারনেট সেবা বন্ধের সংবাদ টুইটারে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। এই শুক্রবারের বিক্ষোভ ছিল সিরিয়ার শিশুদের উপর হামলার নিন্দা জানিয়ে আয়োজিত এক বিক্ষোভ। যখন কেউ কেউ পুরোপুরি ইন্টারনেট বন্ধের সংবাদ দিচ্ছিল, তখন অন্যরা জানায় যে সিরিয়ার কিছু কিছু জায়গায় ইন্টারনেট বন্ধ হয়ে যায়।

স্বৈরচার এবং দুর্নীতিপরায়ণ শাসনের বিরুদ্ধে শুরু হওয়া জনপ্রিয় গণ বিক্ষোভের সময়, যে সিরীয় সরকার, যারা গণতান্ত্রিক সংস্কার এবং স্বাধীনতা প্রদানের কথা বলার সাহস রাখে না, তারা তাদের জনতার বিরুদ্ধে যে নিষ্ঠুর আচরণ করেছে তা বাকী বিশ্বকে দেখানোর জন্য সিরিয়া সহ সারা আরব বিশ্বের নেট নাগরিকরা ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকে।

Protest in Damascus, Syria (31/05/11). Image by Flickr user syriana2011 (CC BY 2.0).

সিরিয়ার, দামেস্কে প্রতিবাদ বিক্ষোভ, (৩১/০৫/১১)। ছবি ফ্লিকার ব্যবহারকারী সিরিয়ান ২০১১-এর (সিসি বাই ২.০)।

যদি আজ সিরিয়ার প্রশাসন ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে না থাকে, তাহলে এটা এক মুবারককে টেনে তুলবে, যে এ বছরের ২৮ জানুয়ারী, ২০১১ তারিখে ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দেয়। মিশরের প্রতিবাদ বিক্ষোভকে সমানে রেখে সে এই কাজটি করেছিল, যার ফলে মিশরের রাস্তায় আরো বিক্ষোভকারীদের সমাবেত করে এই বিষয়টি দেখার জন্য যে, দেশটিতে আসলে কি হচ্ছে। মিশরের এই বিতাড়িত রাষ্ট্রপতি, যে কিনা এখন বিক্ষোভকারীদের হত্যার সময় তার ভূমিকার কারণে বিচারের মুখোমুখি হয়েছে, তাকে ইতোমধ্যে মিশরের এক আদালত বিপ্লবের সময় ইন্টারনেট সংযোগ এবং মোবাইল সেবা বিচ্ছিন্ন করে দেবার কারণে জরিমানা করেছে।

সিরিয়ায় ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন হবার প্রথম সংবাদ সাত ঘণ্টা আগে আলেকজান্ডার পেজ টুইটারে প্রদান করে। সে এক ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক, বর্তমানে যে দামেস্কে বাস করছে, যে লিখেছে:

রাত তিনটায় #দামেস্কে ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়, শুক্রবারে যে এটি বন্ধ করে দেওয়া হল, এতে বিস্ময়ের কিছু নেই। #সিরিয়া

এক ঘণ্টা আগে মাইশা আকবিক টুইট করেছে:

সারা #সিরিয়ার বেশিরভাগ জায়গায় ইন্টারনেট বন্ধ রয়েছে, এমন এক দিনে তা বন্ধ রাখা হয়েছে যে দিনটি এই শাসকদের গুণ্ডাদের হাতে নিহত শিশু শহীদদের স্মরণে ক্ষোভ প্রকাশের জন্য নিবেদিত ছিল।

মাহা এর সাথে যোগ করেছে:

আজ #সিরিয়ার বেশিরভাগ শহরে ইন্টারনেট সংযোগ বিছিন্ন ছিল।

মালথ অউমারান সিরিয়ার ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ নিয়ে টু্ইট করেছে

মালাথ অউমারান টুইট করেছে :

# সিরিয়া: মনে হচ্ছে সিরিয়ার পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে

এর পরবর্তী এক টুইটে, সে জানাচ্ছে:

# সিরিয়া: ইন্টারনেট কাজ করেছে, এখন এমন এক সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে। দামেস্কের আবু রামানি নামক ইন্টারনেট ক্যাফেতে ২০ মিনিট আগেও ইন্টারনেট কাজ করছিল।

রাজানিয়াত নিশ্চিত করেছে:

আজ, ৩ জুন, মুক্ত শিশুদের শুক্রবার নামক দিনটিতে সিরিয়ার শাসকরা #সিরিয়ায় ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে।

ভদ্রমহিলা এর সাথে যোগ করেছেন :

বন্ধুগণ, #সিরিয়ায় ইন্টারনেট পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়ছে। বিপ্লব শুরু হবার পর এই প্রথম এ রকম ঘটনা ঘটল।

এর পরবর্তী এক টুইটে, রাজানিয়াত আরো জানাচ্ছে:

সিরিয়ার সরকার সেই সব এলাকার নেট সংযোগ বন্ধ করত যে স্ব এলাকায় প্রতিবাদ অনুষ্ঠিত হত, বিশেষ করা তারা নেটের গতি ধীর করে দিত। কিন্তু এই প্রথমবারের মত #সিরিয়ার সম্পূর্ণভাবে ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এবং খালেদ কারেম টুইট করেছে:

কাজেই তারা এক #মুবারককে টেনে তুলল?

ইন্টারনেট থেকে সিরিয়ার নাগরিকদের অদৃশ্য হয়ে যাওয়ার বিষয়টি অনেক প্রশ্নের সূচনা করেছে।
ওমনিয়া সোরাইয়াপ্রশ্ন করেছে:

আজ ইন্টারনেটে এক ভয়ের পরিবেশ লক্ষ্য করা যাচ্ছে, কোথাও কাউকে দেখা যাচ্ছে না … সিরিয়ার নাগরিক তোমরা কোথায়? #সিরিয়া

এই প্রবন্ধটি সিরিয়ার প্রতিবাদ বিক্ষোভ ২০১১ সবন্ধে আমাদের বিশেষ কাভারেজের অংশ

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .