বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইরানঃ কর্তৃপক্ষ পরিবেশবাদী ব্লগারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে

হৌমান খাকপুর একজন পরিবেশবাদী ব্লগার। চাহারমহাল বাখতিয়ারি প্রদেশের রাষ্ট্রীয় পরিবেশ রক্ষা বিভাগ তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে। এই প্রদেশে একটি গ্যাস লাইন বসানোর ফলে তা পরিবেশের উপর কি ধরনের বিপদ নিয়ে আনবে, এই বিষয়ে কথা বলার জন্য তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

খাকপুর তার ব্লগ ডিডেহ বান তাবিতে বাখতিয়ার-তে (বাখতিয়ারির পরিবেশ পর্যবেক্ষক) বিষয়টি ব্যখ্যা করেছে। তার বিরুদ্ধে “জনমতকে বিরক্ত করা” এবং “মিথ্যা সংবাদ ছড়ানোর” অভিযোগ আনা হয়েছে। শনিবার ২৮ মে, ২০১১ তারিখে সে লিখছে [ফার্সী ভাষায়]:

টাঙ্গ-এ সাইয়েদ নামের একটি সংরক্ষিত এলাকার মাঝ দিয়ে গ্যাসের পাইপলাইন বসানোর জন্য রাস্তা নির্মাণের বিষয়ে আমি একটি পোস্ট লিখেছিলাম। এরপর চাহারমহল বাখতিয়ারি এলাকার পরিবেশ সংরক্ষণ অধিদপ্তর আমার বিরুদ্ধে মামলা করে এবং এখন এর জন্য শাহের কার্দ শহরের এক বিচারকের কাঠগড়ায় আমাকে দাঁড়াতে হবে। এই বিষয়ে আমার লেখা পোস্টটি বেশ কিছু ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে।

Iranian environmental blogger Houman Khakpou.

পরিবেশবাদী ব্লগার হৌমান খাকপুর।

এক মাস আগের এই বির্তকিত পোস্টে, হৌমান খাকপুর যুক্তি প্রদান করেন [ফার্সী ভাষায়] যে পরিবেশ সংরক্ষণ বিভাগ ঠিক সংরক্ষতি এলাকার পাশ দিয়ে তৈরি হতে যাওয়া ১০ কিলোমিটারের গ্যাস পাইপ লাইন এবং রাস্তার ব্যাপারে কোন প্রতিবাদ করেনি।

মোজগান জামশিদি, ইরানের এক অন্যতম পরিবেশবাদী সাংবাদিক এবং ব্লগার। ভদ্রমহিলা এই সংবাদে বিস্মিত এবং তিনি বলেছেন যে বিগত ৪০ বছরে মধ্যে তিনি এ রকম সংবাদ শোনেননি। তিনি লিখেছেন [ফার্সী ভাষায়]:

এটা অবিশ্বাস্য যে পরিবেশ সংরক্ষণ বিভাগের প্রধান যে কিনা দাবি করে, সে ১১ বছর ধরে প্রচার মাধ্যমে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে, সে একজন ব্লগার সম্বন্ধে অভিযোগ করেছ এবং ‘জনমতকে বিরক্ত করা’ এবং ‘ভূয়া সংবাদ প্রকাশ করার দোষে’ তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে। এটা বিস্ময়কর বিষয় যে সরকার তাদের প্রতি প্রচণ্ড সহনশীল যারা প্রকৃতি ধ্বংস করছে, এদিকে যারা প্রকৃতি প্রেমিক এবং পরিবেশ নিয়ে কাজ করছে, আর তাদের রক্ষা করার কাজ করছে, সরকার তাদের বিরুদ্ধে মামলা করছে।

এনিমেল পারশিয়ান বলছে যে [ফার্সী ভায়ায়], হৌমান তার ব্লগে এক গভীর দৃষ্টিভঙ্গী দিয়ে পরিবেশ বিষয়ক বিষয়গুলো বিশ্লেষন করেছে। পরিবেশ বিষয়ে সে ১৯ বছর ধরে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে। ব্লগার বলছে যে মনে হয় সরকার এখন কেবল পরিবেশবাদী ব্লগই নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে না, একই সাথে সরকার ব্লগারদেরও তাদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .