বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ব্রুনাইঃ ভূয়া বাস ডাকাতির ঘটনা নাগরিকদের সর্তক করছে

গত সপ্তাহে, ব্রুনাই-এর গাদং-এর ব্যাস্ত ব্যাবসায়িক এলাকায় এক ডাকাতির ঘটনা দ্রত টুইটার এবং ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

@রানোয়াডিডাসঃtwitpic.com/4t68c2 আজ বিকেলে এক ডাকাতির ঘটনার দর্শক হলাম, যা আয়ামাকু গাদাং এলাকার কাছে অনুষ্ঠিত হয়, টাকা ছিনতাইয়ের এই ঘটনায় এক মহিলা আহত হয়েছে। প্রায় দুপুর বেলা ৩ টার সময় এই ঘটনা ঘটে।#ব্রুনাই

@গিভমিকেক, ব্রুনাইয়ে এই প্রথম আমি প্রকাশ্যে ডাকাতি হবার কথা শুনতে পেলাম। ও ও।

স্থানীয় সেলিব্রেটি ব্লগার রানোএ্যডিডাস এই বাস ডাকাতির ঘটনায় উদ্বেগ্ন প্রকাশ করে তার ব্লগে একটা লেখা পোষ্ট করেছে, যা ব্রুনাই-এর জন্য এক অভূতপূর্ব ঘটনা।

ঘটনার শিকার ব্যক্তির নিহত বা খুন হবার যে গুজব, তা সত্য নয়। নিশ্চিতভাবে বলা যায় তাকে আক্রমণ করা হয়েছিল এবং অপরাধী টাকার থলে নিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। স্থানীয় পর্যায় থেকে পাওয়া সূত্রমতে মহিলা এই কর্মচারী এক ব্যাংক থেকে বেশ কিছু টাকা তোলে এবং গাদাং-এর রাস্তা দিয়ে হেঁটে যেতে থাকে। এরপর তখন সে আয়ামাকু গাদং-এর বাইরে আক্রমণের শিকার হয় এবং এভাবে এই ঘটনা ঘটে।

….মহিলাটির অবস্থা এখন আশঙ্কামুক্ত আর এদিকে এখন পর্যন্ত ডাকাতের কোন অনুসন্ধান পাওয়া যায়নি। এই ঘটনার পর ব্রুনাইয়ের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। ঘটনার মাত্রা পরিমাপ করলে বলা যায়, সত্যি এটা একটা বেদনাদায়ক ঘটনা। একদল জনতার মাঝে প্রকাশ্য দিবালোকে এই ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। এর ফলে এখন মানুষ হাতে টাকা নিয়ে রাস্তাঘাটে হাঁটার ক্ষেত্রে শঙ্কা অনুভব করবে।

আমি আশা করি পুলিশ এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ অপরাধীকে খুঁজে বের করতে পারবে। কাজেই সকলে… আপনারা জনতার উপস্থিতির মাঝে টাকা তোলার ক্ষেত্রে সর্তক থাকুন…আজকের ঘটনা উন্মুক্ত স্থানের নিরাপত্তার ব্যাপারে ক্ষণস্থায়ী এক সন্দেহের কারণ সৃষ্টি করেছে।

যে স্থানে অপরাধ সংঘটিত হয়েছে সেই এলাকার দৃশ্য? @পারপ্লে২৮-এর টুটপিকের পাতা থেকে নেওয়া হয়েছে।

শুরুতে, এক সংবাদে জানা গিয়েছিল যে বাসের কয়েকজন যাত্রী হয়ত এই “ছিনতাইয়ের” ঘটনা অবলোকন করেছে। এই সংবাদ নেওয়া হয়েছে ব্রুনাই টাইমস থেকে।

যেহেতু বাসটা তখনো চলছিল, প্রত্যক্ষদর্শী জানায় যে সে গাড়ির ভেতরে থাকা লোকগুলোকে দেখতে পায়নি, কিন্তু খেয়াল করেছে গাড়ির সামনের দুটি দরজাই খোলা ছিল। সে যেখান থেকে ঘটনাটি দেখতে পাচ্ছিল, সেখানে সে আরেকজন ব্যক্তিকে দেখতে পায়, যে কিনা গাড়ি থেকে সামান্য দূরে দাড়িয়ে ছিল, উক্ত ব্যক্তিও এই ঘটনার সাক্ষী।

সে বলেছে, সেখানে দাঁড়িয়ে থাকা উক্ত ব্যক্তি সারাসরি গাড়ির দিকে তাকিয়েছিল। আমি ঠিক জানিনা, সেও তাদের একজন হতে পারে (তাদের সঙ্গী), অথবা কেবল ঘটনার এক সাক্ষী

এমনকি পরের দিন খবরের কাগজ বের হবার আগে গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় এক সংবাদপত্রের প্রথম পাতায় ভূয়া এক ডাকাতির ঘটনা ছাপা হয়, তাতে মনে হয়, যেন ভূয়া এক বাস ডাকাতির মাধ্যমে এক কর্মচারি তার মালিকের কাছ থেকে টাকা চুরি করার চেষ্টা করছে ।

@কিসিচ, ওহ…তাই, কোন ডাকাতির ঘটনা ঘটেনি।

@রোনাওডিদাস, twitpic.com/4thu4v, তার মানে সাজানো এক ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে??

@ডি৩এক্স, উদ্বেগজনক এক বিষয়, twitpic.com/4thvct

এমনকি শুরু থেকে ঘটনাটি প্রশ্নবোধক চিহ্ন তৈরি করে। কেন একজনের ২০,০০০ ব্রুনাই-ডলার তোলার প্রয়োজন হল এবং এর জন্য সে সাথে কাউকে নিল না? বেদনাদায়ক ঘটনা হচ্ছে “আক্রমণকারীরা” কিভাবে তাদের নিজের মালিকের সাথে প্রতারণা করার চেষ্টা করল, কিন্তু শেষে গিয়ে শেষে তার দোষ ঢাকতে পারলো না।

তবে, রূপকথার গল্পে এক সুন্দর পরিণতি ঘটে, এই ঘটনার ক্ষেত্রে চাকুরী প্রদানকারী ব্যক্তিরা সহানূভূতিশীল ছিল এবং তাকে সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। তবে এটা কোন রূপকথার গল্প নয়, বাস্তবে তাকে এখন আইনের মুখোমুখি হতে হবে।

যদি তা ছিল এক ভূয়া কাহিনী, কিন্তু এই ঘটনার আলোকে বলা যায়, এটি দেশের জনতাকে এক সর্তক বার্তা প্রদান করল, যে দ্রুত টাকা বানানোর লক্ষ্যে কিছু লোক অপরাধ করতে ভয় পায় না। এই ঘটনার মাধ্যমে বোঝা গেল টাকা, ভালোর চেয়ে কত বেশি খারাপ কাজ করতে পারে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .