বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

কেনিয়া: কিবেরা সংবাদ নেটওয়ার্কের নাগরিক সাংবাদিকতা

কেনিয়ার কিবেরা অঞ্চলের তরুণরা, যেটা পরিচিত আফ্রিকার সব থেকে বড় বস্তি হিসাবে, দৃঢ়কল্প যে তারা যে স্থানে থাকে তার অন্য এক চেহারা দেখাতে। হাতে ভিডিও ক্যামেরা নিয়ে, তারা গল্পের সন্ধানে ঘোরে বিশ্বকে দেখানোর জন্য যে কিবেরা নিজেকে কিভাবে দেখে

এই প্রকল্প ২০১০ সালের এপ্রিলে শুরু হয়েছে মূলত: ম্যাপ কিবেরা আর কিবেরা কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট এজেন্ডা (KCODA) দ্বারা। এটি শুরু হয় মাত্র দুইজন তরুণ সাংবাদিক নিয়ে আর বর্তমানে ১৪ জন তরুণ কর্মরত আছে যারা ভিডিও রেকর্ড, সম্পাদনা আর ওয়েবে তুলে দেবার কাজ করে: কেবল তাদের নিজেদের ওয়েবসাইট কিবেরা নিউজ নেটওয়ার্কেই না বরং ভয়েস অফ কিবেরাতেও যেটি একটি সাইট যারা তাদের ভিডিও আর অন্যান্য খবর যা মানুষ এসএমএস আর অন্যান্য মাধ্যমে পাঠায় সেগুলোকে মানচিত্রে দেখায়।

কেনিয়ার কিবেরা সংবাদ নেটওয়ার্ক

কেনিয়ার কিবেরা সংবাদ নেটওয়ার্ক

ভিডিওগুলোর বিষয়বস্তুর অনেক ভিন্নতা রয়েছে: চাকরির নিশ্চয়তা বিষয় থেকে আগুণের দূর্ঘটনা, ট্রেন দূর্ঘটনা আর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বা রাজনৈতিক কর্মকান্ড। উদাহরণস্বরুপ, নিচের এই ভিডিওতে দেখা যায় দুইজন তরুণ কিবেরার জন্য অদ্ভুত একটি জীবিকা শুরু করেছে: তারা একটা বিউটি স্যালুন চালায়, যেখানে ম্যানিকিউর থেকে চুলের স্টাইলিং হয়:

পরের এই ভিডিওতে আমরা কেভিন উরুঙ্গুর কাছে যাই যিনি তার শিল্প কর্ম দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন:

উপরের দুটি উদাহরন দেখায় কিভাবে শৈল্পিক চিন্তা আর পরিশ্রমে ফল হয়। তবে কিবেরার অন্যদের জীবিকা নির্বাহের নিত্য সংগ্রামও দেখিয়েছে যেমন এই ধোপাদের যারা কঠিন পরিশ্রম করেও অনেক সময় সঠিক পারিশ্রমিক পায়না:

কিবেরাতে, স্বাস্থ্য গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়: খোলা নর্দমা আর বাড়তে থাকা জনসংখ্যার মানে হল যে ছোঁয়াছুঁয়ি লেগে অসুখ বাড়তে পারে দ্রুত। এর সাথে যোগ হয় যে অনেক মানুষের কাছে আর্থিক সামর্থ নেই ঔষধ কেনার যার ফলে যে কোন অসুখ সহজে মহামারির আকার নিতে পারে:

আপনি আরো ভিডিও দেখতে পারেন কিবেরা নিউজ নেটওয়ার্কের সাইট বা তাদের ইউটিউব চ্যানেলে

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .