বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

জাপান: মন্ত্রীপরিষদ সচিব এদানোর কাছ থেকে সঙ্কট ব্যবস্থাপনা বিষয়ক গণসংযোগ শিক্ষা

এই পোস্টটি জাপানের ভূমিকম্প ২০১১ উপর করা আমাদের বিশেষ কাভারেজের অংশ

মন্ত্রীপরিষদ সচিব ইয়ুকি এদানো-এর সরাসরি প্রচারিত সংবাদ সম্মেলন দেখার জন্য জাতি দিনে বেশ কয়েকবার অপেক্ষায় থাকত।

গণসংযোগ বিষয়ক বিশেষজ্ঞ তাশাকি কুরোসাওয়া তার কাজের ধারার প্রশংসা করেছেন, এদানো যা করছেন ঠিক করেছেন বলে, তিনি তার ব্লগ পোস্টে “সঙ্কট ব্যবস্থাপনা গণসংযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রীপরিষদ সচিব এদানোর কাছ থেকে আমরা যে ১০ টা বিষয় শিখতে পারি”- (枝野官房長官から学べる10のこと:危機管理広報の視点から)নামক লেখায় এই বিষয়ে বিস্তারিত উল্লেখ করেছেন”। কুরোসাওয়া তাঁর ব্লগ “ দি পাবলিক রিটার্ন”–এ গণ-যোগাযোগ,বিজ্ঞাপন এবং ব্র্যান্ডিংয়ের বিষয়ে লিখে থাকেন।

এ পোস্টটি ব্লগারের পূর্ণ সম্মতিতে অনুবাদ করা হয়েছে:

মার্চ ১১,২০১১-এ ১৪:৪৬ মিনিটে আঘাত করা তোহোকু ভূমিকম্পে কেবলমাত্র এই এলাকার জনগণ সরাসরি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া ছাড়াও ফুকুশিমা ১ পারমাণবিক চুল্লির দুর্ঘটনায়ও লোকজন মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

টুইটপিক ব্যবহারকারী শিবা৩৬এমএস এদানোর কাজের স্বীকৃতি প্রদান করেন


এ ধরনের একটি পরিস্থিতির মধ্যে কোন ব্যক্তিই এত বেশি মনযোগ আকর্ষণ করতে পারেনি: যতটা মন্ত্রীপরিষদ সচিব ইয়ুকি এদানো অর্জন করেছে।

এ ধরনের একটি পরিস্থিতির মধ্যে কোন ব্যক্তিই এত বেশি মনযোগ আকর্ষণ করতে পারেনি: যতটা মন্ত্রীপরিষদ সচিব ইয়ুকি এদানো অর্জন করেছে।
প্রচার মাধ্যমে তাঁর ঘনঘন উপস্থিতি আমাদের মধ্যে সন্দেহের উদ্রেক করে যে, ভূমিকম্পের পর থেকে এখন পর্যন্ত তিনি নির্ঘুম রয়েছেন । এ বিষয়ে বর্তমান বিশ্বে টুইটারে আলোচিত বিষয় হ্যাশট্যাগ “ #এদানো নিরও [ঘুমাও এদানো]” ছাড়াও দি ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল “ ক্লান্তিহীন এদানো টুইটার শ্রদ্ধা অর্জন করেছেন” শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

জরুরি পরিস্থিতিতে গণসংযোগের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হচ্ছে সঙ্কট ব্যবস্থাপনা বিষয়ক গণযোগাযোগ। এর কারণ হচ্ছে, পরিস্থিতিকে ভুলভাবে নিয়ন্ত্রণ করার ফলে তা কেবল সংবাদ গ্রহীতাদের নয়, পুরো সমাজকে বিক্ষুব্ধ করে তুলতে পারে। এই দৃষ্টিভঙ্গি থেকে এদানোর মনোভাব উদাহরণ সৃষ্টি করেছ, এবং কেন তা এক উদাহরণ, নীচে আমি সেই কারণগুলোর তালিকা তৈরি করেছি।

১. তিনি পরিষ্কারভাবে, আস্তে আস্তে এবং অনুচ্ছেদের মাঝে থেমে থেমে কথা বলেন।

২. তিনি স্ক্রিপ্ট নেন না, বা কোন লেখা দেখে পড়েন না এবং তার বদলে নিজস্ব শব্দে ভাষণ দেন।

৩. যখন কোন সাংবাদিককে প্রশ্ন করতে বলেন, তিনি সেই সাংবাদিকের সরাসরি চোখের দিকে তাকিয়ে উত্তর প্রদান করেন।

৪. তিনি সম্ভাবনাকে অস্বীকার করেন না (যেমন তেজস্ক্রিয়তার ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা) এবং এধরনের ঘটনা ঘটা যে সম্ভব তা তিনি “গ্রহণ করে” নেন।

৫. বিভিন্ন তথ্যের জন্য বিশেষজ্ঞের জ্ঞান দরকার, তিনি প্রথমত তা ব্যাখ্যা করেছেন কিন্তু তার সাথে তিনি নিজস্ব মতামত প্রদান করেছেন।

৬. সবসময় সেই বিষয়ের উপর আলোকপাত করেছেন যা হয়ত বিভ্রান্তির সৃষ্টি করতে পারে। ( উপরের ভিডিওটি ধারণ করা হয়েছে রাত ১২টার সময়, এবং চতুর্থ চুল্লি সম্বন্ধে তিনি যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন সেটি সকাল ১০.০০ টায়, তা নীচে রয়েছে- তা সেই সময়ের বাস্তবতায় বলা)।

৭. যার উপর শ্রোতাদের প্রচণ্ড আগ্রহ সেই বিষয়ে পরিষ্কারভাবে উপস্থাপন করা, মানব শরীরে তেজস্ক্রিয়তার সম্ভব্য প্রভাবের কথা উল্লেখ করা। (কেবল তা সংখ্যা দিয়ে নয়, তার সাথে তেজস্ক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ার সময় যা সকল কিছুর উপর প্রভাব তৈরি করবে)।

৮. তিনি কোন অর্থহীন উত্তর প্রদান করেন না, তার বদল প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে তিনি উত্তর দেন।

৯. মুখপাত্র হিসেবে তিনি সবসময় দৃশ্যমান।

১০. তিনি এই পরিস্থিতিতে প্রতিটি নাগরিক কি ভাবে অবদান রাখতে পারে তার বাস্তবসম্মত উদাহরণ প্রদান করেন (বিদ্যুৎ বাঁচানো, চেইন ইমেইল বা বিভিন্ন হাত ঘুরে অন্যের কাছ থেকে আসা ইমেইল না পাঠানো, প্রয়োজনীয় উপাদান মজুত না করা, ইত্যাদি) ।

অনেকে এদানোর সম্মেলনের সমালোচনা করেছে, বিশেষ করে ১২ মার্চে প্রদান করা সম্মেলনটিকে, যেখানে তিনি তেমন কোন প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করেননি, কিংবা তিনি তথ্য গোপন করার চেষ্টা করেন। তবে ভালো দিকটি ছিল যে তিনি প্রাপ্ত চূড়ান্ত প্রমাণের ভিত্তিতে কথা বলছিলেন। যখন বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ তাজা সংবাদ সরবরাহ করা হচ্ছিল না, তখন আমরা (যারা বিশেষজ্ঞ নই) অবশ্যই উপলব্ধি করব যে, শেষ সম্মেলনের আগে পর্যন্ত কোন কিছুই পরিস্কার করা সম্ভব ছিল না।
আমি তাদের প্রতি আমার গভীর সমবেদনা জানাই যারা এই ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এই প্রবন্ধের অনুবাদ কর্মে সহায়তা করার জন্য নোয়াকি মাতসুইয়ামাকে অনেক ধন্যবাদ

এই পোস্টটি জাপানের ভূমিকম্প ২০১১ উপর করা আমাদের বিশেষ কাভারেজের অংশ

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .