বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ভিয়েতনাম: দুর্নীতির প্রতিবাদে গায়ে আগুন ধরিয়ে আত্ম-হনন

সূত্র: http://www.facebook.com/ngochoang.qb.vn

পাহাম তাহনহ সন ভিয়েতনামের এক প্রকৌশলী। দৃশ্যত স্থানীয় কৃর্তপক্ষ দ্বারা তার পারিবারিক সম্পত্তি জব্দ করে নেবার প্রতিবাদে, সে নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।

ব্লগ ডানলাম্বাও-এর (যার অর্থ নাগরিক সাংবাদিকেরা) সূত্রানুযায়ী, ১৭ ফ্রেব্রুয়ারি তারিখে বেলা ১২.৩০ মিনিটে ভিয়েতনামের পঞ্চম বৃহত্তম শহরের পৌরসভার সামনে সন নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। একই দিনে, সকাল বেল সন তার আবেদনপত্র নিয়ে দা নাং শহরের পিপলস কমিটি নামক প্রাদেশিক পরিষদের কর্তাদের সাথে দেখা করেন। সেখানকার কর্তাব্যক্তিরা তার আবেদনে কর্ণপাত করেনি এবং এর পর রাস্তার পাশে হাঁটা পথের উপর গিয়ে তরুণ এই প্রকৌশলী নিজের গায়ে এবং তার মোটর সাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।

দা নাং-এর পিপলস কমিটির বাইরের দৃশ্য।

টিয়ু ডিয়ু নামক এক ফেসবুকার (এই নামে ফেসবুক ব্যবহারকারী ব্যক্তি) অনলাইনে ছবিটি পোস্ট করেছে।

আরেকজন প্রত্যক্ষদর্শী এই দৃশ্যটি ভিডিওতে ধারণ করেছে।

এই ঘটনা সম্বন্ধে পুলিশ প্রথমে ধারণা দেয় যে, সনের মৃত্যু একটি স্বাভাবিক সড়ক দুর্ঘটনা। এছাড়াও সেখানকার পৌর কর্তৃপক্ষ সনকে “মানসিক সমস্যা যুক্ত” এক ব্যক্তি হিসেবে বর্ণনা করে।

ইতোমধ্যে কর্তৃপক্ষ, সনের পরিবারিক বাসভবনের চারপাশে সাদা পোশাকের পুলিশ পাঠিয়ে দেয় এবং এই পরিবার যাতে অতিথিদের ঘরে প্রবেশ করতে দিতে না পারে, তার জন্য পরিবারের কার্যক্রমকে সীমাবদ্ধ করে ফেলে।

ডানলাম্বাও সংবাদ প্রদর্শন করেছে:

এই বেদনাদায়ক ঘটনাটি ঘটেছে, কায়ু রোং (ড্রাগন সেতু ) নামক প্রকল্পের সাথে জড়িত দুর্নীতির কারণে। জানা গেছে যে পাহাম তাহনহ সনের পরিবার তাদের এই সম্পত্তির উপযুক্ত ক্ষতিপূরণের জন্য আবেদন করে। তাদের এই আবেদন কর্তৃপক্ষের টেবিলের তলায় চাপা পড়ে থাকে, আর কর্তৃপক্ষ এই প্রকল্পকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকে।

দা নাং নামক শহরটি ভিয়েতনামের সমুদ্র উপকুলের মাঝ বরাবর অবস্থিত। এটি ভিয়েতনামের অন্যতম এক শহর, যেখানে দ্রুত ভবন গড়ে উঠছে। ২০০৯ সালে সেখানকার হান নদীর উপর ৬৬৭ মিটার লম্বা কায়ু রোং নামের একটা সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়, যা বর্তমানে সম্পন্ন হয়েছে। পৌর কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে তারা এই নির্মাণ কাজের ফলে ক্ষতিগ্রস্তদের যথেষ্ট পরিমাণ ক্ষতিপূরণ প্রদান করেছে এবং সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দাদের পুনরায় নতুন স্থানে বসতি গড়ে দিয়েছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে, দা নাং এলাকার অনেক কৃষক এবং শহরের বাসিন্দা কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ভূমি অধিগ্রহণ করার বিষয়ে অভিযোগ করছে এবং এই কারণে তারা ছোট ছোট কিছু বিক্ষোভ আন্দোলনের আয়োজন করেছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .