বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

চীন: চীনের মজাদার বিস্ফোরক পপকর্ন

সিসি-বাই-এসএ বুয়ানচোফগ্রেপস

চীনের পপকর্ন (ভুট্টার খই) নির্মাণ পদ্ধতি এখন ইন্টারনেটে পাওয়া যাচ্ছে। অনেকের কাছে, পপকর্নের ফুটতে থাকা শব্দের মধ্যে এক আলাদা ছন্দ রয়েছে, যখন সেটি একটি প্রকৃত ভুট্টার দানা থেকে শব্দ করে স্রোতের মত ফুটতে থাকে; চীনে পপকর্ন বিস্ফোরনের মত জোরে আওয়াজ করে ফুটতে শুরু করে।

Chinese man using popcorn hammer to pop corn
পপকর্ন তৈরির যন্ত্র। ছবি অউগাপফেল সিসি বাই।

এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে “পপকর্ন তৈরির যন্ত্রটি” তার কাজে লেগে পড়েছে। এবং যখনই সবাই পপকর্ন এর ফুটতে থাকার আওয়াজ শুনতে পায়, তখন তারা দল বেধে তাদের মগ এবং বাটি নিয়ে পপকর্ন কেনার জন্য হাজির হয়।

বোয়িংবোয়িং ব্লগে এই ভিডিওটি প্রদর্শন করা হয়েছে। সাংহাইবাসীর স্মৃতিচারণ মূলক মন্তব্যে এই ভিডিওটি ভরে গেছে:

আহ! সবকিছু আবার আমার কাছে ফিরে এসেছে, ৮০-র দশকে চীনে কাটানো আমার শৈশব। তিন চাকার এক গাড়ি নিয়ে সেই বয়স্ক মানুষটি হাজির হত। আর তাকে ঘিরে ধরতে এক দঙ্গল ছেলেমেয়ে। তারা কেবল পপকর্ন কিনতে আসত না, তার সাথে তার এর ফুটতে থাকার শব্দ শুনতে এবং সেখান থেকে বাষ্পের মেঘ যে ভাবে পালিয়ে যাচ্ছে, তা দেখতে আসত। প্লাস্টিকের ছোট্ট প্যাকেটের দাম ছিল ১০ সেন্ট। আর ৫০ সেন্টে সেই লোকটি, শিশুদের সাথে করে নিয়ে আসা ভুট্টা বা চাল ভাজা দিয়ে পাত্র ভরে দিত। সবসময় আমাকে যে বিষয়টি এক বিস্ময়কর আনন্দ প্রদান করত, তা হচ্ছে সামান্য কিছু ভুট্টা, যা কিনা একটা থলের তলায় পড়ে থাকে, সেগুলো যখন ফুটে পপকর্নে পরিণত হয়, তখন পুরো পাত্র ভরে ফেলে।

সেই একই ভিডিওতে একজন মন্তব্যকারী এই পদ্ধতির পেছনে যে বৈজ্ঞানিক বিষয় রয়েছে তা ব্যাখ্যা করছে:

পপকর্ন ফুটতে থাকে, কারণ যন্ত্রের চোঙ্গার ভেতরে যে চাপ থাকে তা বাইরের থেকে বেশি। যন্ত্রের ভেতরে পরিপূর্ণ ভাবে বন্ধ একটা এলাকা থাকে, যেখানে তাপ দেওয়া হয়, তার সাথে যতক্ষণ না এর ঢাকনা খোলা হয়, ততক্ষণ পর্যন্ত চাপ প্রয়োগ করে এর চাপ সমান করা হয় এবং তখন চোঙ্গার বাইরের চাপ নাটকীয় ভাবে কমে আসে, এই বিষয়টি সকল ভুট্টার দানাকে একই সময়ে পপকর্নে পরিণত করে। সহজ এক বিজ্ঞান/প্রযুক্তি।

সম্ভবত ভুট্টার এই ভাবে ফুটতে থাকার শব্দ, এর বিজ্ঞাপন হিসেবে কাজ করে: যেন তারা বলে, কান পেতে এই শব্দ শোনো এবং সদ্য তৈরি করা টাটকা পপকর্ন নিয়ে যাও। তবে যদি আপনি এর ফুটতে থাকার শব্দটি শুনতে না পান, তাহলে হয়ত, গাড়ির ঘণ্টাধ্বনি আপনাকে এ ক্ষেত্রে সাহায্য করতে পারে:

এই পদ্ধতি যথারীতি জাপানেও ব্যবহার হয়। তবে এ ক্ষেত্রে তারা তা দিয়ে পপকর্ন বানানোর বদলে চাল ভাজা তৈরি করে:

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .