বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

কম্বোডিয়ায় ব্লগস্পট ব্লগগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে

কম্বোডিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক আদেশবলে আজ (২০শে জানুয়ারি) কম্বোডিয়ার সকল ইন্টারনেট সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ব্লগস্পট সাইটগুলোকে বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে। সেলকার্ড, মেটফোন ও ইজিকম আইএসপিগুলো এই খবরটি নিশ্চিত করেছে।

ডিসেম্বর মাসে কেআই মিডিয়া সরকারের প্রধান কর্মকর্তাদের ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলে অভিহিত করার পর থেকে সরকারের প্রতিক্রিয়ার অংশ হিসাবে এ বিপর্যয় ঘটে। কেআই মিডিয়া হল সরকারের সমালোচনাকারী একটি জনপ্রিয় মিডিয়া ব্লগ।

এই ঘটনার জের হিসেবে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির কর্মচারী সেং কান্নাকা কেআই মিডিয়ায় প্রকাশিত বিতর্কিত ছবির কপি বিতরণকালে গ্রেফতার হন। এ অপরাধে তাঁকে ছয় মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। অনেকের মতে কেআই মিডিয়া মত প্রকাশের স্বাধীনতার সীমাকে লঙ্ঘন করেছে। বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির কর্মচারী গ্রেফতারের বিষয়টিকে অযৌক্তিক বলে মনে করা হচ্ছে এবং বিষয়টিকে মত প্রকাশের স্বাধীনতা এবং তথ্য প্রাপ্তির অধিকারকে বিপর্যস্ত করার ইঙ্গিত বলে অনেকে ভাবছেন।

ব্লগস্পট সাইটগুলো বন্ধ হবার পর পরই টুইটার ও ফেসবুকে অনলাইন প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গেছে:

ক্রিস ইন ক্যাম্বো (ক্রিস ব্রাউন) টুইট করেন:

কম্বোডিয়ার সকল আইপিএস ব্লগার ডট কম সাইটটি বন্ধ করে দিয়েছে। আগামীকালের পত্রিকাগুলোতে বিষয়টির কারন জানার অপেক্ষায় আছি।

জন_উইকস (জন উইকস) ফিরতি টুইটে বলেন:

@ক্রিস ইন ক্যাম্বো আইটি সমাজের সাম্প্রতিক প্রতিবেদন ব্লগারদের ইঙ্গিত করে বলে যে, নিষেধাজ্ঞা কেবলমাত্র ইজিকম/মেটফোন আইএসপির জন্য কার্যকর। নতুন আইএসপি ব্যবহারের সময় এসেছে কি?

ক্রিস ইন ক্যাম্বো জবাবে বলেন:

@জন_উইকস আইএসপি কে দোষারোপ করা দূতকে গুলি করে মারার মত বিষয়। আমি নিশ্চিত যে তাঁদেরকে নিশ্চয়ই এটা করতে আদেশ দেওয়া হয়নি।

নিনাইজম (নিনা ল্যাম্পারস্কি) টুইট করেন:

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আজ সকাল ১০ টায় আনুষ্ঠানিক ভাবে #ব্লগস্পট বন্ধ করে দিয়েছে। ই-নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে এক অভিসন্দর্ভের জন্য এটাই উপযুক্ত সময়#কম্বোডিয়া

ব্লগ নিয়ন্ত্রণ ২.০ এর বিষয়ে নিনা তাঁর নিবন্ধে লিখেন:

“এতদিন পর্যন্ত তুলনামূলক ভাবে কম্বোডিয়া অনলাইন নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে মুক্ত ছিল কিন্তু এই ই-স্বাধীনতার দিনগুলো অচিরেই শেষ হতে যাচ্ছে।”

ব্লগসাইটগুলোর বিপর্যয়ের পেছনে কারনগুলো নিয়ে টুইটারে আলোচনা হলেও আলোচনাকারীগণ সম্ভবত: বন্ধ হবার প্রকৃত কারন জানেন। জন উইকস কেআই মিডিয়া বন্ধ হবার প্রতিক্রিয়ায় বলেন:

@ক্রিস ইন ক্যাম্বো আমি কেআই-মিডিয়ার বড় ভক্ত নই। কিন্তু তাঁদেরকে বন্ধ করে দেওয়া মানে সাইটটির প্রতি আকর্ষণ বাড়ানো। যেমনটি ঘটেছিল রিহাউ.নেট –এর ক্ষেত্রে।

ফেসবুকের কিছু প্রতিক্রিয়া:

মানবাধিকার বিষয়ক কম্বোডিয় কেন্দ্র, কম্বোডিয় এক্সপ্রেস নিউজ সিই এন এর উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন:

সিইএন: কেআই মিডিয়া বন্ধের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সকল ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানকে ব্লগস্পট ডোমেইনযুক্ত সকল ওয়েবসাইটের প্রবেশ বন্ধ করে দিয়েছে। কেবলমাত্র একটি আইএসপি ব্যতীত আজ কিছু কিছু আইএসপি তে প্রবেশ করা সম্ভব হচ্ছেনা।

ফেসবুক ব্যবহারকারী চেং সামাং লিখেন:

সরকার যদি সব ব্লগস্পট ওয়েবসাইট বন্ধ করে দেয় তখন কি হবে? আমি আমার ব্লগস্পট ব্লগ নিয়ে কি করবো? ওহ, আমি তো ভুলেই গিয়েছিলাম যে আমি এখনও কম্বোডিয়ার বাইরে থেকে আমার ব্লগস্পটে প্রবেশ করতে পারি কিন্তু কম্বোডিয়ায় থাকা আমার বন্ধুরা আমার ব্লগে প্রবেশ করতে পারছে না। কি বিরক্তিকর!!

আরেকজন ফেসবুক ব্যবহারকারী বলেন:

“আরেকটি জুঁই বিপ্লবের পূর্বক্ষণ? ভাগ্যবান যে এখনও ফেসবুক আর টু্ইটার আছে”

ব্লগস্পট সাইটগুলো বন্ধ হবার পর কি ঘটবে তা বলার সময় এখনও আসেনি। সরকারি এ সিদ্ধান্তের পরিবর্তন ঘটতে পারে কেননা ইত:পূর্বে সরকার পর্নোগ্রাফি, চৌর্যবৃত্তি এবং সাইবার অপরাধের বিরুদ্ধে ইন্টারনেট নিরাপত্তা শক্তিশালী করার জন্য স্থানীয় ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকার পরিচালিত বিনিময় কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছিল। সরকারের অভ্যন্তরে গণমুখী প্রতিবাদের কারণে এ পরিকল্পনা ভেস্তে যায়।

আপডেট: কেআই মিডিয়া জানায় যে ইতোমধ্যেই তাঁদের সাইট টি খুলে দেওয়া হয়েছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .