বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

রাশিয়া: ইন্টারনেট ২০১০ পর্যালোচনা

ছবি স্টরোঝেন্কোর – ফ্লিকার থেকে

২০১০ সালে রাশিয়ার ইন্টারনেটে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ন ধারার প্রচলন হয়েছে। অনলাইনের দর্শক খুব দ্রুত বেড়ে ওঠে এ বছর কারন মানুষ অনলাইনে বেশী পরিমাণে খবর আহরণ করে আর সামাজিক মিডিয়া ব্যবহার করে। অনেক ভাবেই ২০১০ সাল রাশিয়ার সমাজে ইন্টারনেটের ক্ষমতাকে স্বীকৃতি দিয়েছে।

রুমেট্রিকা অনুসারে নভেম্বর ২০১০ পর্যন্ত রুনেটের দৈনিক শ্রোতা ৩৮ মিলিয়ন। এক বছর আগের তুলনায় এটা শতকরা ৪০ ভাগ বৃদ্ধি। এই বছর ডিসেম্বরে ডুমাতে (রাশিয়ার সংসদ) ‘রুনেট ২০১০’ শীর্ষক এক রাউন্ড টেবিল বৈঠকে আরো জানিয়েছে যে ৪৬.৫ মিলিয়ন অনলাইন ব্যবহারকারী আছেন দেশে। ইউরোপে এটাই সব থেকে বেশী অনলাইন ব্যবহারকারী। তবে রাশিয়া ইন্টারনেট বিভেদের ক্ষেত্রে এখনো পিছিয়ে আছে।

রাশিয়াবাসী বেশী পরিমানে সরাসরি অনলাইন সংবাদ গ্রহণ করছেন আর ঐতিহ্যবাহী মিডিয়াকে পরিত্যাগ করছেন। রুনেট শ্রোতার শতকরা ১৯.৬ ভাগ অনলাইন সংবাদ দখল করেছে। ইন্টারনেটে অন্যান্য জনপ্রিয় অংশ হচ্ছে ব্যবসা, কম্পিউটার আর চলচ্চিত্র যা যথাক্রমে শতকরা ১৫.৯,১২ আর ৯.৮ ভাগ অনলাইন দর্শকের।

আরো মনে হচ্ছে যে রাশিয়ানরা জাতীয় জাদুঘর আর শিল্প গ্যালারির অনলাইন ভ্রমণে বেশী আগ্রহী হয়ে উঠেছেন তাদের অনলাইনে সঙ্গীত শোনার অভ্যাস কমিয়ে। রুমেট্রিকা ব্যাখ্যা করেছেন সামাজিক নেটওয়ার্কে বিশাল সঙ্গীতের ভান্ডার দেখে (সব থেকে জনপ্রিয় এদের মধ্যে সহজে ব্যবহারযোগ্য ভিকন্টাক্টে.রু, যা কপিরাইট করা অনেক কিছু হোস্ট করার জন্য কুখ্যাত)। একই সময়ে রুমেট্রিকা বলেছেন, জাতীয় জাদুঘরের ভার্চুয়াল ভ্রমণ সম্প্রতি শুরু হয়েছে আর অনেক দূর

রাশিয়ার ব্লগ জগত দ্রুত আকারে বড় হয়েছে (৩০ মিলিয়ন ব্লগ আছে এখন) আর এ বছর বেড়েছে এর জনপ্রিয়তা। মিডিয়া পর্যবেক্ষণ করার সেবা পাব্লিক.রু অনুসারে, ঐতিহ্যবাহী মিডিয়া ব্লগ জগত থেকে ৬০০০ বার সংবাদের উদ্ধৃতি দিয়েছে ২০১০ সালে। এটি ৫ বছর আগের তুলনায় ৫ ভাগ বেশী।

পাব্লিক.রু আরও লক্ষ্য করেছে যে স্বাধীন ব্লগাররা জনমত তৈরিতে ভূমিকা রেখেছেন। “রাজনীতিবিদ, সরকারী কর্মকর্তা, সামাজিক আর ঐতিহ্যবাহী মিডিয়া লাইভজার্নাল.কমে [দেশের সব্ থেকে জনপ্রিয় ব্লগিং প্লাটফর্ম] তথ্য দেখা শুরু করেছেন,” পাব্লিক.রু লিখেছেন। “এটা নতুন একটা তথ্যবিন্যাস তৈরি করেছে একই সমান্তরালে: সমাজ-ব্লগার-মিডিয়া-কর্তৃপক্ষ।“

২০১০ এ রাশিয়ার ব্লগ জগতে সব থেকে জনপ্রিয় ৫টা বিষয় যা প্রধানধারার মিডিয়া তুলে ধরেছে তা হল:

  • খিমকি বন সংরক্ষণের জন্য সংগ্রাম (এখানে গ্লোবাল ভয়েসেস প্রতিবেদন দেখুন)।
  • লুক অয়েলের ভাইস প্রেসিডেন্টের গাড়ির দুর্ঘটনা (এখানে গ্লোবাল ভয়েসেস প্রতিবেদন দেখুন।
  • “নীল বালতি” বিক্ষোভ (দেখুন গ্লোবাল ভয়েসেস এর রাউন্ডআপ এখানে আর এখানে)।
  • ‘পার্ল লেফটেন্যান্টের’ ঘটনা (রাশিয়ার এক লেফটেন্যান্ট কর্তৃক মস্কোতে বিক্ষোভকারীদের মারার ভিডিও)।
  • ‘রায়ান্ডা’আর রাশিয়ার দাবানল (এখানে আর এখানে গ্লোবাল ভয়েসেস প্রতিবেদন দেখুন)।

রাশিয়ার প্রথমসারির ব্লগারদের মধ্যে আছেন নাভালনি (এখানে গ্লোবাল ভয়েসেস এর একটি সাক্ষাৎকার দেখুন তার সাথে), তেমা (এক ডিজাইনার যিনি অনেক গালি দেন), ড্রুগোই (রাশিয়ান চিত্রগ্রাহক), টপ-ল্যাপ (তার ব্লগ নিষিদ্ধ হয়েছে, গ্লোবাল ভয়েসেস এই ব্যাপারে আগে রিপোর্ট করেছে) আর ডক্টর-লিজা (তার সম্বন্ধে তথ্য এখানে আছে)।

এটা ভাবা নিরাপদ যে ২০১০ সালে যে অনলাইন ধারা দেখা গেছে সামনের বছরে আরো অগ্রসর হবে। রাশিয়ার ব্লগ জগত বাড়তে থাকবে ব্যবহারকারীর সংখ্যা আর প্রভাবের দিক থেকে ঐতিহ্যবাহী মিডিয়াকে প্রতিস্থাপন করে। যখন আরো বেশী রাশিয়ানরা অনলাইন হবেন, বিভিন্ন সামাজিক প্লাটফর্ম মানুষকে লিঙ্ক প্রচার আর একত্র করবে। এর ফলে তথ্য আরো দ্রুত ছড়াবে। রুনেটের বিভিন্ন রাজনৈতিক দিক অবশ্যই ২০১২ এর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন উত্তপ্ত করবে। বেশীরভাগ রাশিয়ান যাদেরকে অবিশ্বাসী আর দুর্নীতিগ্রস্ত মনে করেন, ঐতিহ্যবাহী মিডিয়া প্রকট অমিল হিসাবে দেখা দেবে অনলাইন বিশ্বের সাথে যেখানে রাজনৈতিক বির্তক বেড়ে উঠছে।

আমরা নাগরিক রিপোর্টিং এর বেশ কিছু সাফল্যের কাহিনী আর অনলাইন কার্যক্রম দেখব ২০১১ সালে। বেশ কিছু গল্প (আর ব্লগার) ক্ষমতায় থাকা বিভিন্ন দলের চালাক রাজনৈতিক যুদ্ধের মধ্যে ঘুঁটির থেকে বেশী কিছু হবেন না। হ্যাঁ, রাশিয়ার কর্তৃপক্ষ বেশ কিছু চেষ্টা করবেন অনলাইন তথ্যকে নিয়ন্ত্রণের। বেশীরভাগ ক্ষেত্রে এইসব চেষ্টা দুর্বল থাকবে আর খুব বেশী কার্যকর হবে না।

মোদ্দা কথা ২০১১ সাল বেশ ঘটনাপূর্ণ বছর হবে রুনেটের জন্য। আমাদের জন্যও এটা দারুন বছর হবে, যারা রুনেট ইকোতে কাজ করছেন। যেসব মানুষ রাশিয়ার অনলাইন জগতে যা ঘটছে তা নিয়ে মুগ্ধ। আমরা গর্বের সাথে আর্ন্তজাতিক সমাজের সাথে গল্প ভাগ করার জন্য অপেক্ষা করছি আর রুনেটকে বিশ্বের কাছাকাছি আনতে চাচ্ছি।

শুভ নববর্ষ!!!

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .