বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

জর্ডান: তিউনিশিয়ার বিক্ষোভ, হয়ত অন্য সব আরব রাষ্ট্রের সরকারগুলোর যন্ত্রণা আরো বাড়িয়ে তুলতে পারে

তিউনিশিয়ার এই রাজনৈতিক অস্থিরতায় অন্তত ২৩ জন লোক নিহত হয়েছে। এখানে এখন প্রতিদিন রক্তক্ষয়ী প্রতিবাদ অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবং পুলিশ বিক্ষোভ দমন করার জন্য কাঁদানে গ্যাস এবং তাজা গোলাবারুদ ব্যবহার করছে। এই সব বিক্ষোভকারীরা দেশে উচ্চমাত্রায় বেকারত্ব, দুর্নীতি, তেল এবং খাবারের দামে বৃদ্ধি এবং রাজনৈতিক স্বাধীনতার অভাবের কারণে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে। যখন তিউনিশিয়ায় হানাহানি চলছে, তখন জর্ডান থেকে তিউনিশিয়ার বিক্ষোভকারীদের প্রতি সাড়া এবং সমর্থন প্রদান করা হচ্ছে।

জর্ডানের অনেক টুইটারকারী, তিউনিশিয়ার রাষ্ট্রপতি জিনে এল আবেদিন বেন আলির সমালোচনার উপর মনোযোগ প্রদান করেছেন।

হামজা লাতাউফ লিখেছে:

কেন তিউনিশিয়ার রাষ্ট্রপতি #সিদিবোউজিদ-এর প্রতিবাদ আরম্ভ শুরু হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করলেন, যেখানে তিনি ৩০০,০০০ চাকুরি সৃষ্টির প্রতিশ্রুতি প্রদান করেছিলেন?#ফেইল।

১০ জানুয়ারী তারিখে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রদত্ত এক ভাষণে বেন আলি তিউনিশিয়ার নাগরিকদের আগামী দুই বছরে দেশটিতে ৩০০,০০০ চাকুরি সৃষ্টির প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন। তিউনিশিয়া এমন একটি রাষ্ট্র যার শতকরা ৫৫ শতাংশ নাগরিকের বয়স ২৫ বছরের নিচে। দেশটিতে বর্তমান বেকারত্বের হার প্রায় ১৫ শতাংশ।

সামিহ টোয়কান আশা প্রকাশ করছেন যে, এই প্রতিবাদের মধ্যে দিয়ে নেতৃত্বে হয়ত পরিবর্তন আসতে পারে:

বেন আলি প্রাণান্ত চেষ্টা করে যাচ্ছে। কিন্তু তা যথেষ্ট নয়। তাকে অবশ্যই ক্ষমতা ছেড়ে দিতে হবে এবং বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হতে হবে#সিদিবোউজিদ।

সামার দাহমাশ জাররাহ রসিকতার মধ্যে দিয়ে জিজ্ঞেস করেছেন:

#sidibouzid #Tunisian عزيزي الريس بن علي، بما انك مفصوم تماما عن شعبك وبلدك، ما رايك باجازة لطيفة طويلة في فلوريدا علي حسابي؟

আমার প্রিয় রাষ্ট্রপতি বিন আলি, আপনি কি আপনার দেশ এবং নাগরিকদের কাছ থেকে একেবারে বিচ্ছিন্ন? এখন আমার পয়সায় ফ্লোরিডায় এক লম্বা ছুটি কাটানোর পরিকল্পনার ব্যাপারে আপনি কি ভাবছেন।

অন্যরা তিউনিশিয়ার জনগণের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছে, যেমন মোহাম্মাদ ইউসেফ টুইট করেছে:

তিউনিশিয়া দীর্ঘজীবী হোক। http://youtu.be/iG7039-WRR8 #Kreator #Nowplaying @সের @৩আরবওয়ে @ম্যাজিওসামাল@জিসএককোয়ারর৮৬@মিকলা৩

নর্মা সাকেল, ধর্মীয় একতার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন:

যারা যন্ত্রণা ভোগ করছে, যেমন#তিউনিশিয়া, # প্যালেস্টাইন, #ইরাক, #আরব, তাদের জন্য সশরীরে উপস্থিত থেকে কিছু করতে পারছেন না? আসলে তাদের জন্য আপনি কিছু করতে পারেন, তাদের জন্য প্রার্থনা করুন# স্রষ্টা আপনার কথা শুনবে 🙂 #জো

অন্যরা ১৩ জানুয়ারী, ২০১১ তারিখে জর্ডানে অবস্থিত তিউনিশিয়ার দূতাবাসের সামনে রাত জেগে যে প্রার্থনা আয়োজন করা হয়, সে ব্যাপারে টুইট করেছে। এর শিরোনাম “তিউনিশিয়ার নাগরিকদের জন্য জর্ডানে নীরবতার বিরতি!”

জর্ডানের অনেক নাগরিক তিউনিশিয়ার ঘটনাকে অন্য সব আরব রাষ্ট্রের উত্তেজনার সাথে যুক্ত করেছে। শীশনাই প্রশ্ন করেছে:

আমরা #জো(জর্ডানবাসীরা)#তিউনিশিয়া এবং #আলজেরিয়া থেকে কত দুরে?

নাসেম তারাওনাহ টুইট করেছে:

আমি বিস্মিত হব, যদি আরব রাষ্ট্রগুলো তিউনিশিয়ার সরকারকে পতনের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য সাহায্য করতে যায় এবং এর ফলে যদি সবকটির পতন ঘটে? #জো,#তিউনিশিয়া#সিদিবোউজিদ।

মোহাম্মাদ ইউসেফ লেবাননের ঘটনা নিয়ে টুইট করেছে। তিনি লিখেছেন যে লেবাননের সরকার থেকে হিজবুল্লাহ নিজেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে, যার ফলে লেবানন এখন তিউনিশিয়ার মত জনপ্রিয় বিক্ষোভের পথ অনুসরণ করতে যাচ্ছে:

#লেবানন, তিউনিশিয়ার মত একই পথের পথিক হতে যাচ্ছে: আজ সরকারের মন্ত্রীসভা থেকে বিরোধী দল বের হয়ে এলো। আজকে http://bit.ly/iakhXQ#আলজেরিয়া,#সিদিবোউজিদ#জর্ডান#তিউনিশিয়া

এই সমস্ত টুইটারকারী এবং অন্যরা, ধারণা করছে যে, তিউনিশিয়ায় এবং আলজেরিয়ার দাঙ্গার সাথে জর্ডানে সৃষ্ট উত্তেজনার যোগসূত্র রয়েছে এবং এই সমস্ত বিক্ষোভ আরব রাষ্ট্রসমূহের নাগরিকদের অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক সংস্কারের দাবির প্রতি উৎসাহ যোগাবে।

তিউনিশিয়ার সাম্প্রতিক ঘটনাবলির উপর টুইটারে যে সব আলোচনা হচ্ছে তা অনুসরণ করার জন্য#সিদিবোউজিদ হ্যাশট্যাগ অনুসরণ করুন এবং এখানে আমাদের বিশেষ পাতা দেখুন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .