বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সৌদ আরব: পণ্ডিত ব্যক্তি, ড: মোহাম্মেদ আলআবদুলকারিমকে মুক্ত কর

ড: মোহাম্মেদ আলআবদুলকারিম, ছবি তার অনুরাগীদের তৈরি ফেসবুকের পাতা থেকে নেওয়া

“রাজকীয় পরিবারের সদস্যদের উপর রাজনৈতিক নিয়মের কার্যকারিতার প্রভাব” [আরবী ভাষায়], নামক এক প্রবন্ধ প্রকাশিত হবার পর সৌদি নাগরিক ড: মোহাম্মেদ আলআবদুলকারিমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই পণ্ডিত ব্যক্তি ইসলামিক আইনের উপর পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেছেন এবং তিনি আল-ইমাম মুহাম্মেদ ইবনে সাউদ ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক। এটি তার এ রকম প্রথম প্রবন্ধ নয়, তিনি এছাড়াও সৌদি সামাজের রাজনৈতিক বিষয়ের উপর বেশ কিছু প্রবন্ধ লিখেছেন।

গ্রেফতার হওয়া

সমর্থকদের ফেসবুকের পাতা অনুসারে তিনি তার বন্ধু আবদুল্লাহআলমালিকির ড: আলআবদুলকরিমের কাছে জানান যে তাকে গ্রেফতার করা হতে পারে। এই প্রবন্ধটি প্রকাশ হবার পর এবং গ্রেফতার হবার ঠিক পূর্ব মুহূর্তে এই ভাবনা প্রকাশ করেছিলেন।

সীমান্তবিহীন সাংবাদিকের দল (রিপোটার্স উইদাউটস বর্ডার) জানাচ্ছে যে ড: আলআবদুলকারিম ৫ ডিসেম্বর তারিখে তার নিজের বাসায় গ্রেফতার হন। চারজন লোক তাকে গ্রেফতার করতে আসে যাদের কাছে কোন গ্রেফতারী পরোয়ানা ছিল না। প্রবন্ধটি প্রকাশিত হবার ঠিক ১২ দিন পরে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ড: আলআবদুলকারিমকে মুক্ত কর

তাকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে সামাজিক প্রচার মাধ্যমে এই পণ্ডিত ব্যক্তির মুক্তির দাবীতে ভরে যায়। তার গ্রেফতারের প্রতিবাদে ফেসবুকে তার সমর্থনে দুটি পাতা সৃষ্টি করা হয়। এই দুটি পাতার নাম হচ্ছে “ড:আলআবদুলকারিমকে মুক্ত কর” এবং “আমরা সকলেই মোহাম্মেদ আবদুলকারিম”। এছাড়াও টুইটারে #ফ্রি ড:আবদুলকারিম নামক হাসটাগ ব্যবহার করা হয়েছে তাকে ছেড়ে দেবার দাবী জানানোর জন্য। অনেক ব্লগে তাকে ছেড়ে দেবার আহ্বান জানিয়ে লেখা প্রকাশ করা হয়। নীচে তার কিছু প্রতিক্রিয়া।

ব্লগার তালাফ তার দেশের অবস্থান সম্বন্ধে প্রশ্ন করেছেন:

فهل علمتم عن بلد ما قرر عقاب أحد من أبنائه لمجرد أنه ينادي بوجوب حمايته والحفاظ عليه !!
আপনারা কি কখনো শুনেছেন যে কোন দেশ তার নিজ সন্তানকে শাস্তি দেয় কেবল এ কারণে যে, সে তার দেশকে রক্ষা করতে এবং টিকিয়ে রাখতে চায়!!!!

টুইটার থেকে আবদুলরাহমান আলনাসরিও তার স্বদেশের পক্ষে দাঁড়ানোর জন্য গ্রেফতার হতে চান:

رسالة للذين اعتقلوا الدكتور العبدالكريم: أنا وكثيرين غيري نؤمن بكب كلمة قالها الدكتور في مقاله، فهل ستعتقلوننا أيضا؟ #FreeDrAbdulkarim
তাদের জন্য, যারা ড: আলআবদুলকারিমকে গ্রেফতার করেছে: তিনি তার প্রবন্ধে যা বলেছেন, আমি এবং আমার মত আরো অনেকেই তার প্রতিটি কথা বিশ্বাস করি।
আপনারা কি তার জন্য আমাদেরও গ্রেফতার করবেন?

এই পণ্ডিত ব্যক্তিটির অনুরাগীদের তৈরি করা ফেসবুকের পাতায় খালেদ আলহুজরি মন্তব্য করেছে:

لم لا يسجنون يده التي كتبت ؟ لم لا يسجنون القلم الذي خط؟
لم يعطونهم هامشا من الحرية ثم يعتقلون هذا الهامش؟
لقد أصبحت حياة الناس تبعا لأمزجة البعض ،، تضيع سنوات من عمرك لا بأس بذلك ،، فهي ليست ملكا لك ،، هي ملك لغيرك
كان الله في عونك أخونا محمد ,, فنحن لا نملك غير الكلام ، وأخشى أن يصادر
কেন তারা এই পণ্ডিত ব্যক্তিটির লেখনীর জন্য তার হাত বা কলমটিকে গ্রেফতার করে না?
এখন অনেকের জীবন অন্য কারো মেজাজের উপর নির্ভর করে? এটি উত্তম যে আপনার জীবনের বছরগুলোকে নষ্ট করা ভালো, কারণ আপনার জীবন আপনার নয়, এটা অন্য কারো হাতে।
ভ্রাতা মোহাম্মেদ, আল্লাহ আপনার সাথে থাকুক। আমাদের শব্দগুলো ছাড়া আপনাকে দেবার মত আমাদের আর কিছু নেই, আমরা শঙ্কিত যে এমনকি এটাও এক সময় আমাদের কাছ থেকে নিয়ে নেওয়া হবে।

সবশেষে, নোফা ড: আলআবদুলকারিমের ভাগ্য বিপর্যয়ে বিস্মিত এবং শঙ্কিত যে অন্য অনেক রাজনৈতিক বন্দীর মত তাকে বাকী জীবন জেলে কাটাতে হবে কি না:

أخشى ما أخشاه أن يصبح الدكتور كمن سبقه من أصحابه الأحرار وأن يمكث في السجن سنين عديدة دون تهمة أو جريرة، تهمته فقط قول الحق من غير مراء
আমরা সবচেয়ে বড় শঙ্কা হচ্ছে যে ড: আলআবদুলকারিমকে হয়ত তার পূর্বসূরিদের মত কোন ধরনের অভিযোগ বা অপরাধ ছাড়াই বছরের পর বছর জেলে কাটাতে হবে। কোন সন্দেহ নেই তাদের বিরুদ্ধে কেবল একটাই অভিযোগ ছিল; তা হচ্ছে তারা সত্যি কথা বলেছিল।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .