বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইরান: লেবাননের হেজবুল্লাহ নেতার বিরুদ্ধে অনলাইনে ক্ষোভ

বেশ কিছু ইরানী ব্লগার এক অনলাইন ভিডিওর উপর প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে, যেখানে হিজবুল্লাহ নেতা সাইয়্যেদ হাসান নসরুল্লাহ বিতর্কিতভাবে দাবি করেছে যে, ইরানে এখন আর পারসিক সভ্যতার কোন কিছু অবশিষ্ট নেই, তার বদলে সেখানে ইসলামিক সভ্যতা বিরাজ করছে এবং এখানে ইসলামিক প্রজাতন্ত্রের স্থপতিরা মূলত আরবের উত্তরসুরি।

ইরান ভিত্তিক এক ওয়েবসাইট আফতাব নিউজ বলছে [ফরাসী ভাষায়] যে, এই চলচ্চিত্রটি দুই ভাবে নির্মাণ করা হয়েছিল এবং মনে হচ্ছে যে নসরুল্লাহর ভাষণ গত বছর প্রদান করা হয়েছিল। ভিডিওর আরেকটি অংশে নসরুল্লাহ একই সাথে গত বছর জুন মাসে অনুষ্ঠিত রাষ্ট্রপতি নির্বাচনকে ঘিরে যে প্রতিবাদ বিক্ষোভ তা দমন করার করার জন্য ইরানী শাসকদের প্রশংসা করেন। নসরুল্লাহর এ সব বক্তব্যের বিরোধিতার জন্য ইরানীদের পক্ষ থেকে এক ফেসবুক পাতা খোলা হয়েছে, যার ৯০০০ জন সমর্থক রয়েছে (উপরের ছবিটি ফেসবুকের পাতা থেকে নেওয়া হয়েছে)।

রায়ে সাবজ ইরান (সবুজ ইরানের জন্য ভোট) পরিহাসের সাথে লিখেছে [ফরাসী ভাষায়]:

জনাব. নসরুল্লাহর তেলের পয়সা কি কোন আরবের গুপ্তধনের বাক্স থেকে এসেছে? আপনি ইরানের পয়সা ভোগ করেন, কিন্তু ইরানের প্রাচীন সভ্যতাকে অস্বীকার করেন… জেগে উঠুন।

সাইটও নসরুল্লাহর প্রতি ক্ষুব্ধ এবং সে বলছে:

“কেবল এক ধর্মীয় শাসন এমন বিভ্রান্তির সৃষ্টি করতে পারে, যার ফলে সে এ রকম অর্থহীন কথা বলছে। আমরা, যারা ধর্ম নিরপেক্ষ তারা একসাথে রয়েছি এবং ঘোষণা করছি যে অতিপ্রাকৃত কোন শক্তির সাথে সম্পর্কযুক্ত নয়, আমরা এমন এক রাজনৈতিক ব্যবস্থা তৈরি করতে চাই।

আজারমেহের লিখেছে:

“কাজেই আমরা সেভাবেই যাচ্ছি! এখন আমরা জানলাম ইরানে ঠিক কি হচ্ছে এবং আসলে কে ইরানকে শাসন করছে। অবশ্যম্ভাবী কথাটি উচ্চারণের জন্য শেখ নসরুল্লাহ আপনাকে ধন্যবাদ। আমাদের দেশটি বিদেশী দখলদারদের দখলে রয়েছে, যারা আমাদের জাতীয় পরিচয়, ঐতিহ্য এবং সৃংস্কৃতিকে ধ্বংস করার হুমকি প্রদান করছে। কিন্তু এত খুশী হবার কিছু নেই শেখ নসরুল্লাহ, ইরান আপনার চেয়েও খারাপ দখলদারদেরও মোকাবেলা করেছে এবং তাদের ইরানী বানিয়ে ফেলেছে। আপনিও এ কাজে সফল হবেন না। ইরান কখনোই ধ্বংসপ্রাপ্ত হবে না।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .