বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

আলজেরিয়া: কপটতা কি এখন ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে?

আলজেরিয়ার ব্লগার সেলিম (আরবী ভাষায়) কপটতা নিয়ে ভাবছেন এবং জিজ্ঞেস করছেন: কপটতা কি এখন ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে?

গুজব, কপটতাকে ধন্যবাদ শিরোনামে তার পোস্টে সেলিম জিজ্ঞেস করছেন:

ذاك الذي يضحك في وجهي و يسعد بتشويه صورتي عند الناس في ظهري ، هل يستمتع ؟ . و ذاك الذي يلعن أم الحكومة في غيابها و يضحك للشرطي في الطريق و يهتف للرئيس في جولته ، هل هو مستمتع ؟ . ذاك الذي ينصحني و يفكر في أمري و يشغل باله بي ، هل يفعل ما يفعله في ظهري ؟ ..
যারা আমার সামনে হাসেন আর আমার পেছনে আমার বদনাম করেন তারা কি এতে মজা পান? আর যারা নিভৃতে সরকারের বদনাম করেন এবং রাস্তায় পুলিশের সাথে হাসি ঠাট্টায় রত থাকেন এবং প্রকাশ্যে রাষ্ট্রপতির গুণগান গান তারাও কি সেটির মজা নেন? যারা আমাকে উপদেশ দেন এবং আমার অবস্থা সম্পর্কে ভাবেন এবং কিছু করার চেষ্টা করেন, তারাও কি আমার পেছনে একইরকম মনোভাব পোষণ করেন?

এই প্রশ্নের জবাবগুলো তিনি দিয়েছেন:

لا، فور أن أعطيه ظهري، إن لم يلعن أمي كما لعن أم الحكومة، سيكرهني في نفسه رغم أنني و الله لا أفعل شيا يسبب كرهه لي . أصبح النفاق موضة، و أصبح الخبث موضة، و صار الخبيث من خيرة البشر، لأنه بدلا من المنافق صار يسمى الذكي، الذي يضحك في وجه كل الناس ليكسب حب الجميع، لكن الخبث خطأ، والخطأ يكشف في وقت من الأوقات، فلما الموضة من الأساس ..
না, আমি যখনই তার থেকে দুরে সরে যাই, সে হয়ত আমার মাকে গালি দেবে, যেমন সে সরকারের মাকে গালি দিয়েছিল। সে আমাকে ঘৃণা করে, যদিও আমি তার কোনই ক্ষতি করিনি। কপটতা এখন ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে অন্য যে কোন খারাপ জিনিষের মত। খারাপ লোকেরাই এখন ভাল সেজেছে। এবং তাদের কপট না বলে বুদ্ধিমান হিসেবে অভিহিত করা হয়। যারা সবার সাথে হাসে, মানুষের ভালবাসা পায়। কিন্তু খারাপ লোকেরা ক্ষতিকারক এবং একদিন তারা তাদের মুখোশ খুলবেই। তাহলে তারা কেন এই কপটতার ফ্যাশন করে?

এই ব্লগার বলে চলেন:

أعود للأسلة وهذه المرة سؤال بإجابته ..

بذمتك يا سليم، هل كنت سعيدا حقا أمس عندما تراقصت مع أصدقائك الستة الذين تحصلوا على البكالوريا ؟ كنت تقود بتهور و تشغل الموسيقى العالية و تصفق و تصرخ … وربي لم تسعد، كنت في هدوء صاخب، داخلك كان هادئا جدا باثر الحرقة .. على كل شيئ، و الصخب يملأ كل مكان حولك حتى جسمك ، من أيديك إلى أحبالك الصوتية المهتزة .. كم لوعة مرت عليها لتصرخ، إخراج كبت هو أم نفاق ؟؟

আমি আবার প্রশ্ন করায় ফিরে যাচ্ছি, কিন্তু এবার প্রশ্ন করার সাথে সাথে উত্তরও দেব।

সত্যিই সেলিম, তুমি কি কাল খুশি ছিলে যখন তুমি ছয়জন বন্ধুর সাথে নেচেছিলে যারা তাদের স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছিল? তুমি তো জোরে গাড়ি চালাচ্ছিলে এবং চিৎকার করে হাততালি দিচ্ছিলে। কিন্তু খোদা, তুমি তো খুশি ছিলে না! তুমি এক অস্থির নীরবতায় ভুগছিলে। ভেতরে ভেতরে তুমি খুবই চুপ ছিলে এবং বুকের ভেতর জ্বলছিল অনেক কিছু… তোমার সমস্ত শরীর গোল পাকিয়ে যাচ্ছিল, তোমার হাত থেকে তোমার কণ্ঠনালী পর্যন্ত। এত জোরে চিৎকার করে তোমার কত কষ্ট হয়েছিল? তুমি কি তোমার অসন্তোষের প্রকাশ ঘটাচ্ছিলে না এটি ছিল কপটতা?

সেলিম শেষ করে এই বলে:

أذا كان هذا نفاقا فمن الأكيد أن ذاك الذي يطعنك في ظهرك و ينافق الحكومة ليس مستمتعا ، لأنك أنت يا سليم حزين بنفاقك مع نفسك .. ومع الكل الذي لاحظ الحزن عليك ..
এটি যদি কপটতা হয় তাহলে কোনই সন্দেহ নেই যারা তোমার পেছনে কথা বলে আর যারা সরকারের সমালোচনা করে তারাও খুশী নয় কারণ তুমি, সেলিম, বিষণ্ন ছিলে কারণ তুমি নিজের প্রতি কপট ছিলে এবং তাদের সাথে যারা তোমার বিষণ্নতাকে দেখতে পেয়েছিল।

কপটতা কি আসলেই আপনাদের সমাজেও ছড়িয়েছে? আপনিও মন্তব্যের স্থানে আমাদের জানিয়ে বিতর্কে অংশ নিতে পারেন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .