বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

বিশ্বব্যাপী নাগরিক ভিডিওর মাধ্যমে মানবাধিকার রক্ষা

মানবাধিকার রক্ষার জন্যে একটি ভিডিও তৈরী করা উল্টো ফল দিতে পারে – অর্থাৎ যারা ভিডিওটি বানান বা তাতে অংশ নেন তাদের মানবাধিকার হুমকির মুখে পড়তে পারে। উইটনেস দ্যা হাব আমাদের জানাচ্ছে যে কিভাবে আমরা মানবাধিকার রক্ষায় সাহায্যকারী একটি ভিডিও তৈরী করতে পারি নিজেদের জীবনে ঝুঁকি না নিয়ে।

উইটনেসের সমীর পাদানিয়া এবং ইউটিউবের স্টিভ গ্রুভের ইউটিউবে তুলে দেয়া আপনার মানবাধিকার ভিডিওর জন্যে আপনার এবং অংশগ্রহণকারীদের মানবাধিকার রক্ষা করা নামের এই পোস্টে নীচে দেয়া অ্যানিমেশনটি রয়েছে যা ছবিটি বানানোর পূর্বে এর অংশগ্রহণকারীদের রক্ষা করার পদক্ষেপগুলো জানাচ্ছে।

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে যাদের নিয়ে ভিডিওটি বানানো হবে তাদেরকে রক্ষা করা তাদের সম্মতি নেয়া:

পূর্বে, ভিডিও নির্মাতারা তাদের দর্শকদের শ্রেণী এবং আকার নির্ধারণ করত। কিন্তু বর্তমান কালে এটি ধরে নেয়া হয় যে যখন একটি মানবাধিকার ভিডিও অনলাইনে ছাড়া হয়, এটি মাত্র সময়ের ব্যাপার যে মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীরা এটি দেখবে। তাই ভাল হয় যদি যাদের নিয়ে ভিডিওটি বানানো হয় তাদের সম্মতি নিয়ে রাখা হয়। তার মানে হচ্ছে যে তারা জানবে যে এই ভিডিওতে অংশ নেয়ার জন্যে তাদের হয়ত খারাপ পরিণতির মুখোমুখি হতে পারে। আপনি হয়ত কারও পরিচয় গোপন করতে মুখের অংশ ঘোলা করে দিতে পারেন, যাতে কর্তৃপক্ষ তাদের পরিচয় বের করতে না পারে। এটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ কারন: উদাহরণস্বরূপ বার্মার কর্তৃপক্ষ বিক্ষোভ প্রতিবাদের অনলাইনের ফুটেজের সাহায্যে বিপ্লবী কর্মীদের গ্রেফতার করে

এই পোস্টে, তারা বর্ণনা করেছে উদাহরণ সহ যে কিভাবে কারও পরিচয় গোপন করা যায় উন্নত বা স্বল্পোন্নত প্রযুক্তির সাহায্যে (যেমন পেছনে লাইট দিয়ে)।

উইটনেস এর এই সিরিজের অন্যান্য ভিডিও বিভিন্ন বিষয়ের উপর আলোকপাত করে যেমন চলচ্চিত্রায়ণ: শব্দ এবং মোবাইল ফোনের ব্যবহার, চলচ্চিত্রায়ণ: সাক্ষাৎকার গ্রহণকারীদের রক্ষা করা, এবং কিভাবে সঠিকভাবে এবং নৈতিকভাবে আপনার চলচ্চিত্র সম্পাদনা ও পরিবেশনা করতে পারেন

আরেকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে যে যে কিভাবে একটি স্থানীয় সংবাদকে বিশ্বব্যাপী তুলে ধরতে হবে। ইউটিউবের প্রকল্প: রিপোর্ট নামে নীচের এই ভিডিওতে কবি এবং লেখক কোয়ামে ডাওয়েস জানাচ্ছেন কিভাবে মানুষ আপনি কি বলতে চাচ্ছেন তার সাথে সম্পর্ক তৈরি করে:

উইটনেস পোস্টে অন্যান্য যে ব্যাপারগুলো এসেছে তা হল কিভাবে চলচ্চিত্র বা ভিডিও বিতরণ বা পরিবেশন করা যায় সবচেয়ে কার্যকরীভাবে: এটাকে কি বিশ্বব্যাপী প্রচার করা হবে না স্থানীয়ভাবে প্রচার করা হবে আর গুরুত্বপূর্ণ লোকদের দেখান হবে যারা এইসব মানবাধিকার লঙ্ঘন সম্পর্কে ব্যবস্থা নিতে পারে। এছাড়াও কিছু উপদেশ দেয়া আছে যার মাধ্যমে এই ভিডিওকে অনৈতিক বলে রিপোর্ট করা থেকে বাঁচাবে, কিভাবে এর বিবরণ লেখা হবে যাতে ভিডিও সম্পর্কে অনেক কিছু জানা যায়, আর ভিডিওতে প্রদর্শিত সকলের অনুমতি নেয়া, স্থানীয় আইন সম্পর্কে জানা বিশেষ করে ভিডিওটির কোন চরিত্র বা বিষয়বস্তু সম্পর্কে আইনের কার্যকারিতা, কপিরাইট সম্পর্কে জানা বিশেষ করে ভিডিওটি যাতে এই আইনের আওতায় নিষিদ্ধ করা হয়, এবং ইউটিউবের সাথে সরাসরি যোগাযোগ যাতে তাদের জানানো যে কি ধরনের চলচ্চিত্র এটি।

মানুষকে আপনার মানবাধিকার ভিডিও সম্পর্কে জানানোর কার্যকরী উপায় হচ্ছে অন্যদের এটি সম্পর্কে জানানো: গ্লোবাল ভয়েসেস লেখকদের ইমেইল করে জানান যারা আপনার ভিডিও সম্পর্কে লিখতে পারবেন, সিটিজেনটিউব বা উইটনেসকে জানান আপনার ভিডিও সম্পর্কে অথবা টু্‌ইটারে সবার জন্যে বার্তা পাঠান এ্‌ই ঠিকানায়: @citizentube, @witnessorg অথবা @globalvoices

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .