বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ওমান: ঘূর্ণিঝড় ফেটের প্রভাব

কয়েকদিন আগে ওমানে গ্রীষ্মমণ্ডলীয় এক ঘূর্ণিঝড় ফেট আঘাত হেনেছে, যার উৎপত্তি ভারত মহাসাগরে। তিন বছর আগে আঘাত হানা ঘূর্ণিঝড় গোনুর পর এটা দ্বিতীয় কোন বড় ধরনের ঘূর্ণিঝড় যা আবার ওমানে আঘাত হানল। ঘূর্ণিঝড় গোনুর মতই ওমান এবং ওমানের জনগন এবারের ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষেত্রে আরো বেশি প্রস্তুতি নিয়েছিল, কিন্তু সার নামক শহরের কিছু এলাকা ভয়াবহ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যার উপর ফেট সরাসরি আঘাত হানে। এই ঘূর্ণিঝড় রাজধানী শহর মাসকটে এসে পৌঁছায়, কিন্তু অন্য এলাকার তুলনায় এখানকার ক্ষতির পরিমাণ সামান্য।

ব্লগার আন্ডারকাভার ড্রাগন তার প্রদান করা সংবাদে দেশটির উপর ফেট এর প্রভাব, মৃত্যু, কাঠামো, যোগাযোগ ব্যবস্থা এমনকি তেল ও গ্যাস উৎপাদনের উপর যে প্রভাব ফেলেছে তার বিস্তারিত বর্ণনা প্রদান করেছে:

সব শেষে বলা যায়, মাসকট এই বিষয়ে বেশ সচেতন ছিল, ঘূর্ণিঝড় ফেট গোনুর মত এত ভয়ঙ্কর ছিল না। এর আঘাত হানার সময়টাও তেমন লম্বা ছিল না, তার বাতাসের বেগও তীব্র ছিল না, এর বৃষ্টিপাত বা প্রভাব তেমন জোরালো ছিল না। তবে সার নামক শহরটির ক্ষেত্রে এটি সম্ভবত সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতির সৃষ্টি করে। কারণ সার সরাসরি ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের মধ্যে পড়ে যায়, যা ওমানের সবচেয়ে পূর্বপ্রান্তে দিয়ে অতিক্রম করে । সার নামক শহরটিতে এই সময় রেকর্ড ৪০ সেন্টিমিটার পরিমাণ বৃষ্টিপাত ঘটে। শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত শহরটি পানির নিচে তলিয়ে ছিল।

স্বয়ং এই ঘূর্ণিঝড়ের কারণে অনেকগুলো দুর্ঘটনা ঘটে। আরো অনেক দুর্ঘটনার কারণ হচ্ছে মানুষের অসচেতনতা এবং যথাযথ নয় এমন কৌতুহল, যা তারা নতুন ভাবে গঠিত বিপজ্জনক ওয়াদি (খাঁড়ি বা ওয়াদি হচ্ছে এমন এলাকা যা সাধারণত শুকনো থাকে, তবে বৃষ্টির পর সেখানে এসে পানি জমে) বা উপত্যকাসমূহ আবিষ্কারের চেষ্টা করতে ঘটায়। যারা এই ঘূর্ণিঝড়ের পর অযৌক্তিকভাবে এই নিজেদের জীবন নিয়ে ঝুঁকি নিয়েছিল ওমানের রাজকীয় পুলিশের তাদের বিরুদ্ধে অভিযান সম্বন্ধে ধোফারি গুচ্চির ব্লগে এক কৌতুহলজনক মন্তব্য করা হয়েছে:

ঘটনার প্রমাণ নিয়ে রাজকীয় ওমানি পুলিশ বা রোপ (যদি আপনি আরবি পড়তে পারেন তা হলে ওপরের ছবিটি দেখুন- এটি আজকের সংবাদপত্রে ছাপা হয়েছে) তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করবে যারা ওয়াদি বা উপত্যকায় অথবা একেবারে খাদের কিনারে দাঁড়িয়ে (যা ওমানীদের এক অন্যতম শখ) নিজের এবং অন্যদের জীবন বিপন্ন করার উপক্রম করেছিল। আমার সহ ব্লগার রিয়ালিটির সূত্রানুসারে একজন রোপ বা ওমানি পুলিশ কর্মকর্তা পানিতে ডুবে মারা যায়, যে ওয়াদিতে সাতার কাটতে গিয়ে ডুবে যাওয়া এক শিশুকে উদ্ধার করতে গিয়েছিল। এই ঘটনার জন্য আমি রাজকীয় ওমানী পুলিশ বাহিনীর এই কর্মকর্তাকে অভিবাদন জানাই।

বিশ্বের উষ্ণতা বৃদ্ধির কারণে ওমানে যদি ঘূর্ণিঝড়ের আঘাত হানা নিয়মিত বিষয় হয়ে দাঁড়ায় তা হলে তা শঙ্কার বিষয়। আমরা আশা করি তেমনটা ঘটবে না।
ফেট এর সৃষ্টি অনেক ধ্বংসযজ্ঞের ছবি ওমাননাইজার, ধোফার গুচ্চি এবং কিশোর কারিয়াপ্পার ব্লগে দেখতে পাবেন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .