বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

চীন শিনজিয়াং-এ পুনরায় ইন্টারনেট সংযোগ স্থাপন করলো

স্বায়ত্ত্বশাসিত উইঘুর অঞ্চলের শিনজিয়াং-এর অনলাইন জগত প্রায় ১০ মাস অন্ধকারে কাটানোর পর, শিনজিয়াং-এর সরকারি সংবাদ সংস্থা থেকে প্রকাশিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি অনুসারে জানা গেছে শুক্রবারে শিনজিয়াং-এ, ইন্টারনেট সেবা আবার চালু হয়েছে।

এই সংবাদ তিয়ানশান নেট-এ প্রথম প্রকাশিত হয়, তারপর তা দ্রুত দেশের অন্য সব অনলাইন সংবাদ মাধ্যমে সরবরাহ করা হয়। বেশ কয়েকজন ব্লগার এই বিজ্ঞপ্তিটি পোস্ট করেছে।

বিস্তারিত এই বিজ্ঞপ্তি দ্রুত আমাদের এক ব্যাখ্যা প্রদান করে, কেন দেশের সবচেয়ে পশ্চিমের এই অঞ্চলে আবার ইন্টারনেট সেবা প্রদান করা চালু হয়েছে:

根据自治区维稳形势、社会经济发展的需要以及各族群众的需求,经自治区党委、人民政府研究决定,自2010年5月14日起,全面恢复互联网业务。

এই স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের স্থিরতা, সামাজিক-অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং সকল নাগরিকের প্রয়োজনীয়তার কথা বিবেচনা করে, এ অঞ্চলের শাসক দল (পার্টি কমিটি) ও জনতার সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে ১৪ মে, ২০১০, থেকে এখানে পূর্ণ মাত্রায় ইন্টারনেট সেবা প্রদান করা হবে।

ফার ওয়েস্ট চায়না একটি ব্লগ, যা শিনজিয়াং-এ বাস করা এক আমেরিকান ভদ্রলোক পরিচালনা করেন। তিনি শিনজিয়াং-এ পুনরায় ইন্টারনেট চালু হবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আঞ্চলিক সরকার, গত বছরের ৬ জুলাই এই প্রদেশের রাজধানী উরুমাকিতে এক জাতিগত দাঙ্গা শুরু হবার পর, সেখানকার ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। এর একদিন আগে দাঙ্গায় চীনের হান জাতির ২০০ জন নাগরিকের মৃত্যু ঘটে।

এ বছরের জানুয়ারি মাসে বিচ্ছিন্নভাবে শিনজিয়াং-এ ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়া শুরু হয়। ইন্টারনেট সেবা বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার ফলে, তা এই স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের উপর প্রভাব ফেলে, যা বিশ্বের অন্যতম প্রত্যন্ত এক এলাকা।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .