বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ভার্চুয়াল গায়ক বৃন্দ: প্রযুক্তি, সহযোগিতা আর সঙ্গীত

সঙ্গীতের বুনট। ছবি কারেন দ্যা ফটোগের সৌজন্যে । সিসি বাই লাইসেন্স।

সঙ্গীতের বুনট। ছবি কারেন দ্যা ফটোগের সৌজন্যে । সিসি বাই লাইসেন্স।

সঙ্গীত রচয়ীতা এরিক হু্ইটেকার একদিন একটি ইউটিউব ভিডিওতে একজন তরুণ অপেরাগায়ককে তার ‘স্লিপ’ গানটা করতে শুনেছিলেন আর ভেবেছিলেন: কেমন হত যদি তিনি বিশ্বের যে কোন স্থানের মানুষকে দিয়ে তার আ কাপাল্লে কয়ার সঙ্গীতের অন্যান্য অংশগুলো রেকর্ড করাতে পারতেন? তিনি তাই করেছেন, আর নীচে আপনারা দেখতে পাবেন অনলাইন সহযোগীতায় সম্ভব হওয়া এই ভার্চুয়াল কয়ার (সমবেত সঙ্গীত) নিয়ে মহান এই পরীক্ষার বিভিন্ন ফলাফল:

হাউ উই ডিড ইট (কিভাবে সম্ভব হল) শিরোনামে লেখায় এ তিনি তার প্রকল্পের কাজের কথা বলেছেন এবং একই সাথে পূর্বের পরীক্ষার কথাও যা এই ভার্চুয়াল কয়ারকে প্রতিষ্ঠা করেছে। প্রথমবারের মতো, তিনি শিল্পীদের সঙ্গীতের একটা নির্দিষ্ট ট্রাক (বাজনা) কিনতে বলেছেন আর আ কাপেল্লার সঙ্গীত এটি বাজিয়ে গেয়ে যেতে বলেছেন (কোন বাদ্যযন্ত্রের সহযোগিতা ছাড়া)। স্কট হাইন্স যার সাথে এর আগে মাত্র একবার তার দেখা হয়েছিল, এই সঙ্গীতটি সম্পাদনা করতে স্বেচ্ছায় রাজী হন। এখানে তার ফল:

ফলাফলে উল্লসিত হয়ে, তিনি সিদ্ধান্ত নেন এটাকে পুনরায় করতে, কিন্তু এবার এটটাকে অনেকটা আসল কয়ারের অভিজ্ঞতার মতো করার চেষ্টা করেছেন:

তাই এবারে, আমি আমার নিজের কন্ডাক্টর ট্রাক তৈরি করেছি, সম্পূর্ণ নীরবতায় এটাকে চিত্রায়ন করেছি, আমার মাথায় কেবল সঙ্গীত শুনে। তারপরে আমি ভিডিওটা দেখেছি আর পিয়ানোটা বাজিয়েছি আমার কন্ডাক্টর ট্রাকের সাথে… তার পরে সঙ্গীতের পাতা আমি বিনামূল্য ডাউনলোড হিসাবে দিয়েছি। শিল্পীরা যখন তাদের নিজের নিজের ট্রাক পোস্ট করা শুরু করেছেন, আমি সোপারনো সলোর (মূল অপেরা গায়ক) জন্য অডিশন ডাকি।

পরের ভিডিওতে সকল অংশগ্রহণকারীদের জন্য দেয়া এরিক হুইটেকারের নির্দেশনা দেখান হয়েছে। এর মধ্যে ছিল কিভাবে সঙ্গীত পরিবেশন করতে হবে তার পরামর্শ, রেকর্ডিং গতি এর কন্ডাক্টিং ট্রাকের যেখানে তিনি কয়ারকে পরিচালনা করে তার ব্যাখ্যা দেয়া আছে:

ভারচুয়াল কয়ারের জন্য ১২টি বিভিন্ন দেশের ১২৮ জন প্রতিনিধি কাজ করেছে যার মধ্যে আর্জেন্টিনা, নিউজিল্যান্ড, ফিলিপাইন্স, সিঙ্গাপুর আর স্পেন আছে। এ্‌ই শিল্পীরা ২৪৩টি ট্রাক পাঠিয়েছে যা মিলে লাক্স অরুমকু সঙ্গীত তৈরি করেছে এবং স্কট হাইন্স আর একবার তা প্রযোজনা করতে সাহায্য করেছে।

শেষের ফলাফল সম্পর্কে এটাই জনাব হুইটেকার লিখেছিলেন:

প্রথমবার পুরো সঙ্গীততের ভিডিও দেখে আমি অভিভূত হয়েছিলাম। সব চেহারার আবেগ, গানের আওয়াজ, আমাদের সকলের মানবিকতা আর যোগাযোগের প্রয়োজনীয়তার কাব্যিক চিহ্ন, সব কিছু আমাকে অভিভূত করেছে। আর এটা বলতেই হয় যে এই সৌন্দর্যের অনেক ধন্যবাদ স্কটি হাইন্সের পাওয়া উচিত, যিনি অগণিত ঘন্টা এই ভিডিওর সম্পাদনা আর একে উজ্জ্বল করাতে ব্যায় করেছেন। (বলাবাহুল্য, স্কটি আর আমি কখনো দেখা করিনি আর বাস্তব বিশ্বে মাত্র একবার দেখা হয়েছে, ভার্চুয়াল কয়ারের ৯৯% এর মতো না, যাদের সাথে আমার কোনদিনই দেখা হয়নি)।

আশা করা যায় যে ভার্চুয়াল কয়ার শক্তিশালী হবে!

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .