বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

চীন: ফুজিয়ান নেটিজেন বিচারের রায় স্থগিত

ফ্যান ইয়াংকিয়ং (范燕琼), ইউ জিঙ্গিউ (游精佑) আর উ হুয়েইং (吴华英) এর বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা অভিযোগ’ এর বিচারের লক্ষ্যে দীর্ঘদিন ধরে চলতে রাখা মামলার রায় আজ ১৯শে মার্চ, ২০১০ তারিখে হওয়ার কথা ছিল। এই তিনজন কর্মী ফুঝাওতে পুলিশের কাছে আটক আছেন গত গ্রীষ্মে তাদের গ্রেপ্তারের পর থেকে

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে লিন জিউং এর সাথে একটি চলচ্চিত্রায়িত সাক্ষাৎকার থেকে যেখানে তিনি তার মেয়ে ইয়ান জিয়াওলিংকে পুলিশ দ্বারা গণ ধর্ষণের পরে হত্যা করার সন্দেহের কথা বলেছেন। এই ফুটেজ অনলাইনে বিতরণ করা হয়, যার ফলে ২০০৯ সালের জুন মাস থেকে বেশ কিছু নেট নাগরিক গ্রেপ্তার হন। এদের মধ্য থেকে বেশ কয়েকজনকে দ্রুত মুক্তি দেয়া হয় আর যে দুই নারী আর একজন পুরুষ পুলিশ হেফাজতে এখনো আছে, তাদের সম্পর্কে লিন জিউং অনেক বার বলেছেন যে তাকে সাহায্য করার জন্য এদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বেশ কয়েকজন নেট নাগরিক ফুঝোও এর মাওয়েই জেলার আদালতে হাজির হন বিচারের আগে আজ সকালে রায় মাইক্রোব্লগের মাধ্যমে জানানোর জন্য। এদের মধ্যে পরিচিত নাগরিক সাংবাদিক আর দারিদ্রের বিরুদ্ধে কর্মী টাইগার টেম্পল (লাওহু মিয়াও) ছিলেন যিনি সকাল ৯ তার কিছু পরেই টুইটারের মাধ্যমে জানিয়েছেন যে আদালতের কার্যক্রম মাত্র এক মিনিট স্থায়ী হয়েছিল, যেখানে বিচারক আরো তদন্তের জন্য রায় ঘোষণা মুলতবি করেছেন।

তিন নেটিজেনের আইনজীবি লিউ জিয়াওউয়ান, যিনি প্রায় ২০০টি ব্লগ পোস্ট লিখেছেন কেসের অগ্রগতির বিষয়ে, চীনা মানবাধিকার সংরক্ষকদের ওয়েবসাইটের সাথে একটি সাক্ষাৎকারে বলেছেন বিচারের একটু পরেই যে, তাকে বাধা দেয়া হয়েছে স্থানীয় পিটিশন অফিসে প্রবেশ করা থেকে, তার পরবর্তী পদক্ষেপ হবে প্রমানের অভাব জানিয়ে প্রোকিউরাটোরেটের কাছে একটা অভিযোগ দায়ের করা। লিউ সাক্ষাৎকারে আরো জানিয়েছেন যে আরো তদন্তের ব্যাপারে বিচারকের পূর্বের আহ্বানের ব্যপারে তাকে জানান হয়নি।

বিচারের পরে আদালত ভবনের বাইরে, প্রায় এক হাজার জন উপস্থিত ছিলেন; পুলিশ আর নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে হাতাহাতির কথা শোনা যায় যেখানে ক্যামেরা জব্দ করা হয়েছে আর ছবি মুছে ফেলা হয়েছে। চীনা মাইক্রোব্লগিং প্লাটফর্ম জুসাতে আগে যা দেখা যেত তা এখন আর যায়না, কেবল মাত্র টাইগার টেম্পেলের কিছু আছে:

现场来了一个母亲控诉福州司法黑暗。

একজন মা এগিয়ে আসেন ফুঝোউ এর আইন ব্যবস্থার ঘোলাটে ব্যবহারকে তিরস্কার করার জন্য।

WHY女儿杜梅控诉流氓打人和抢走相机和手机,现在还没归还。

ইউ হুয়াইং এর মেয়ে দু মি যেসব ভাড়াটে গুন্ডা তাকে মেরেছিল আর ক্যামেরা আর সেল ফোন ছিনিয়ে নিয়েছিল তাদের তিরস্কার করেন। তারা তা এখনো ফেরত দেয়নি।

[সর্বশেষ খবর: আদালত ভবনের আরো চিত্র এখানে দেখা যাবে]

এখন টাইগার টেম্পলের ব্লগে একটা ভিডিও চিত্র পাওয়া যাবে যেখানে লিন জুইং তার মেয়ের মৃতদেহের ছবিসহ মামলার যেসব অগ্রগতি হয়েছে দা দেখাচ্ছেন:

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .