বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

কাজাখস্তান: রাজনীতি, নৃতাত্ত্বিক সমতা আর বিরোধিতা

কাজাখস্তানের ব্লগাররা শাসন আর রাজনৈতিক স্থিরতা সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন। ইঝানোভ মনে করেন যে কাজাখস্তানের নৃতাত্ত্বিক ভূমিরূপে সম্ভাব্য সমস্যা জেগে উঠছে:

শেষ আদমশুমারি দেখিয়েছিল গত শতকের দুইটা মূল ধারা: এখন আরো বেশী কাজাখ আছে (+২৬ শতাংশ) আর কম রাশিয়ান (-১৫ শতাংশ)। প্রথম ধারাটা ভালো, কিন্তু দ্বিতীয়টা খারাপ… কাজাখ জনসংখ্যার বৃদ্ধি দেশে রুশদের বিরোধী হতে পারে না। দূর্ভাগ্যজনক যে কেউ কেউ এমন প্রশ্ন করেছেন…

মেঘাখুইমিয়াক মন্তব্য করেছেন বিরোধী রাজনৈতিক দলের প্রধান সংবাদ মাধ্যমে প্রভাব (বা প্রভাবের অভাবের কথা) নিয়ে:

বিরোধিতাকে খুব কার্যকরভাবে বেশীরভাগ মিডিয়া থেকে আলাদা রাখা হয়, বিশেষ করে টেলিভিশন থেকে। তবে, [এটা অদ্ভুত যে তারা বিকল্প কিছু ব্যবহার করেন না] কোন বিরোধী দল ইন্টারনেট ব্যবহার করে না। কারো কারো ওয়েবসাইট নেই, অন্যরা সেটা প্রায় আপডেট করেন না। এরি মধ্যে কাজাখস্তানে ১.২ মিলিয়ন ব্রডব্যান্ড ব্যবহারকারী আছেন [ দেশের জনসংখ্যা প্রায় ১৫ মিলিয়ন]।

গত কয়েক সপ্তাহ এই অঞ্চলের বিশেষ উল্লেখযোগ্য ছিল দুইজন নারীর জন্মদিন- আলিয়া, কাজাখ প্রেসিডেন্ট নাজারবায়েভের মেয়ে আর গুলনারা, উজবেক নেতা কারিমোভের মেয়ে। প্রথমজন ব্রিটনি স্পিয়ার্স আর জেনিফার লোপেজের মত তারকাদের পার্টিতে আমন্ত্রন জানান, দ্বিতীয়জন গায়ক স্টিঙ্গকে বেছে নেনজাদুমকা মন্তব্য করেছেন [রুশ ভাষায়]:

উজবেকের মেয়ের অবশ্যই ভালো রুচি আছে…

বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দার বাড়তে থাকা পরিস্থিতিতে ধনী আর দরিদ্রের মধ্যকার লাগাতার বিভেদ স্থানীয় রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক এপোলেটকে চিন্তিত করেছে:

২০১০ সালে যেভাবে তারা তাদের রাজনৈতিক কার্যক্রম চালাচ্ছেন তা ভীতির সঞ্চার করেছে। আমার মনে হচ্ছে এটা মানুষের অনুভূতি। আমি আশা করি কোন রক্তাক্ত পরিসমাপ্তি এর হবে না।

সরকারের ভালো চিন্তার নতুন দফায় গাইসা চিন্তিত:

প্রধান মন্ত্রী বাণিজ্যের উপরে চাপ কমানোর আদেশ দিয়েছেন। আমাদের অভিজ্ঞতা অনুসারে, চাপ কমানোর চেষ্টায় চাপ দ্বিগুন বেড়ে যায়…

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .