বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

উরুগুয়ে: ইন্টারনেট বিশ্বব্যাপী কার্নিভাল ছড়িয়ে দিল

গত ২৮শে জানুয়ারি উরুগুয়ের এ বছরের কার্নিভাল শুরু হয় ঐতিহ্যগত প্যারেড দিয়ে। একে প্রচার করা হয় বিশ্বের সব থেকে দীর্ঘ কার্নিভাল হিসাবে যা জানুয়ারির শেষে আরম্ভ হয়ে মার্চের প্রথমে শেষ হয় – অর্থাৎ প্রতি বছর ৪০ দিন ধরে এই উৎসব হয়। এই বছর, ইন্টারনেট আর সামাজিক মিডিয়ার সাহায্যে সারা বিশ্বের মানুষ পড়ার, শোনার আর দেখার সুযোগ পেয়েছেন যে উরুগুয়ের কার্নিভাল কেমন।

কা

ড্রাম বাদকরা ক্যান্ডম্বে বাজাচ্ছেন লাস লামাডাস (ডাকা) প্যারেডের সময়ে। ছবি তুলেছেন ফ্লিকার ব্যবহারকারী এরবার আর এটি ক্রিয়েটিভ কমন্স লাইসেন্সের অধীনে ব্যবহৃত হয়েছে।

উরুগুয়ের কার্নিভালের মধ্যে বিশ্বের অন্যান্য স্থানের প্যারেডের মতো দেখা যায় রানী, ড্রামবাদক আর রঙ্গিন পোশাক পরে পথে নামা, জাতীয় বাদ্যের সাথে নাচ করা। উরুগুয়ের কার্নিভালের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠান হল সেই প্রতিযোগিতা, যেখানে অংশগ্রহণকারীরা তাদের পছন্দের অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন যেখানে উরুগুয়ের স্বতন্ত্র সঙ্গীত আর শৈল্পিক ঐশ্বর্য দেখান হয়: মুর্গা, নেরগ্রস ওয়াই লুবোলোস (কান্দোম্বে বাজানো), প্যারোদিস্টাশ, হুমোরিস্টাস আর রেভিস্তা

যেসব উরুগয়েবাসী বিদেশে থাকেন তাদের জন্য কার্নিভাল বেদনার আর স্মৃতির বিষয় হতে পারে, কিন্তু টোডো এল কার্নিভালের ব্লগ আর টুইটার পাতার সৌজন্যে কার্নিভালের দিনের অনুষ্ঠানের অডিও ওবং ভিডিও বিশ্বের কোনা কোনা থেকে উরুগুয়েবাসীরা দেখতে ও শুনতে পারে। টোডো এল কার্নিভাল সারা বছর ধরেই এই সেবা দিয়ে থাকে এবং এর প্রস্তুতকারী ইউরি কার্নিভাল ভিডিও আর ক্যাসেট ব্যক্তিগত ভাবে সংরক্ষণ করছেন ১৯৭০ সাল থেকে:

Todo el carnaval, es algo asi como un lugar donde decidi compartir todo el material audio visual que dispongo sobre carnaval. La idea original fue la de hacer un respaldo sobre este material y se convirtió en este blog, para compartirlo con todo el mundo.

টোডো এল কার্নিভাল, এমন একটা অনুষ্ঠান যেখানে আমি ঠিক করেছিলাম আমার কাছে থাকা সব কার্নিভালের অডিওভিজুয়াল আমি রাখবো। প্রথমত ইচ্ছা ছিল এই সবের একটা সংরক্ষণাগার তৈরি করা, আর এটা এখন এই ব্লগে পরিণত হয়েছে, যা সারা বিশ্বের সাথে ভাগ করে নেয়া যায়।
মুর্গা অনসম্বল লোস কুরতিদোরেস দে হোঙ্গোস ২০০৯ এর কার্নিভালে সঙ্গীত পরিবেশন করছেন। ছবি তুলেছেন রাউল এন্থনি (ফ্লিকার ব্যবহারকারী রান্তোনে২০০৮) যা ক্রিয়েটিভ কমন্স লাইসেন্সের অধীনে ব্যবহৃত।

মুর্গা অনসম্বল লোস কুরতিদোরেস দে হোঙ্গোস ২০০৯ এর কার্নিভালে সঙ্গীত পরিবেশন করছেন। ছবি তুলেছেন রাউল এন্থনি (ফ্লিকার ব্যবহারকারী রান্তোনে২০০৮) যা ক্রিয়েটিভ কমন্স লাইসেন্সের অধীনে ব্যবহৃত।

কার্নিভাল সরাসরি শোনাও একটা উপায়। কার্নিভালের তথ্যের জন্য জনপ্রিয় সাইট কার্নিভাল দেল ফুটুরো একটি রেডিও তৈরি করেছেন যাতে শ্রোতারা উৎসব সরাসরি শুনতে পারবেন, আর এখানে ২৪ ঘন্টার স্ট্রিমিং কাভারেজ হবে।

এদুয়ার্ডো গামেরো ইউটিউবে এই ভিডিও প্রকাশ করেছেন:

সাংবাদিক আর ব্লগার এনরিক ফিল্গুয়েরাস ব্যাখ্যা করেছেন যে এই রেডিও সারা বছর প্রচার করবে:

Los carnavaleros estarán de fiesta con esta novedad, impulsada por Carnaval del Futuro: Disponer de una emisora a través de la cual poder difundir el Carnaval, en forma continuada y sin interrupciones, durante los doce meses del año […] De abril a diciembre, en la grilla se encontrarán con espacios dedicados a difundir el Carnaval del Interior, con la totalidad del Regional de San José y ya se están gestionando otros certámenes representativos.
También se apostará a una producción de programas originales que combinarán lo periodístico y lo musical, transmisiones de eventos en directo, grabaciones de los espectáculos que se ofrecen en las salas montevideanas y se contará con enviados especiales en las giras que se realicen.

কার্নিভাল যারা ভালোবাসেন তারা এই সংবাদে খুশি হবেন, কার্নিভাল দেল ফুটুরার সৌজন্যে এখন একটি রেডিও আছে যেখান থেকে কার্নিভাল প্রচার করা যাবে, লাগাতার কোন বাধা ছাড়া বছরের বার মাস। এপ্রিল থেকে ডিসেম্বর এই রেডিওতে স্থান থাকবে দেশের ভিতরের কার্নিভাল প্রচার করার, সান জোসে এলাকার কার্নিভালসহ, আর এরই মধ্যে অন্যান্য উপস্থাপনকারী প্রতিযোগীতার সাথে কথা বার্তা চালাচ্ছে। রেডিও মূল কিছু অনুষ্ঠানও উপস্থাপন করবে যেখানে সাংবাদিকতার সাথে সঙ্গীত মিশ্রিত থাকবে, এ ছাড়াও থাকবে সরাসরি সম্প্রচার, মন্টিভিডিওতে যেসব অনুষ্ঠান হয় তার রেকর্ডিং আর বিশের প্রতিনিধিদের ট্যুরের রিপোর্ট।

উৎসবের সময়ে সরাসরি সম্প্রচার করে এমন আর একটি অনলাইন রেডিও ব্রডকাস্টিং হল রেডিও ইউরোগুয়া, যা প্রচার করে প্রবাসী উরুগুয়েবাসীদের লোস ইউরোগুয়াস ব্লগ। লোস ইউরোগুয়াসে একটা মাল্টিমিডিয়া অংশ আছে যেখানে এই বছরের কার্নিভালের উৎসবের তথ্য, ভিডিও আর ছবি পাওয়া যাবে।

কার্নিভাল দেল ফুটুরোর অংশ এল পেদ্রেগুলো নিজেকে ‘উরুগুয়ের কার্নিভালের অনলাইন কমিউনিটি‘ বলে। এই ছোট্ট অনলাইন কমিউনিটি সামাজিক নেটওয়ার্ক হিসাবে কাজ করে যেখানে ব্যবহারকারী অনুষ্ঠান আলোচনা করতে পারেন, ছবি আর ভিডিও পোস্ট করতে পারেন আর দল তৈরি করতে পারেন:

El sitio está pensado para compartir todo lo referente a nuestro Carnaval. El Pedregullo, el lugar donde se cocina el Concurso. Ingresa y comparte tus fotos, videos, ideas.

আমাদের কার্নিভালের সব কিছু ভাগ করার জন্য এই সাইট তৈরি করা হয়েছে। পেড্রিগুলো হচ্ছে সেই স্থান যেখানে প্রতিযোগিতা হয়। সাইন ইন করে আপনার ছবি, ভিডিও আর ধারণা সবার সাথে ভাগাভাগি করে নিন।

উরুগুয়েবাসী দৃঢ়তার সাথে বলতে পারেন বিশ্বের সব থেকে দীর্ঘ কার্নিভাল তাদের; কেবলমাত্র ৪০ দিনের আনুষ্ঠানিকতার জন্যই না, বরং ইন্টারনেট আর সামাজিক মিডিয়ার সাহায্যে বছরের বাকী ৩২৫ দিনেও এটি প্রভাব বিস্তার করেছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .