বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইরান: সবুজ এক সঙ্গীতকে প্রতিবাদের সমর্থক হিসেবে ব্যবহার করা

ইরানের গ্রীন মুভমেন্ট (সবুজ আন্দোলন, ইরানের বর্তমান শাসন বিরোধী এক আন্দোলন) ইরানী শাসকদের বিরোধীতা করার জন্য বিভিন্ন পন্থা ব্যবহার করে থাকে। কিছু ইরানী ব্লগার প্রস্তাব করেছে যে লোকজন যেন “ইয়ে ইরান” গানটি মোবাইলের রিঙটোন বা মোবাইলে ফোন ধরার সঙ্গীত হিসেবে ব্যবহার করে। বিখ্যাত ও জনপ্রিয় এই গানটি মোবাইলে ব্যবহার করার উদ্দেশ্য এই প্রতিবাদ আন্দোলনের সাথে তাদের একাত্মতা প্রদর্শন করা। এখানে গানটির কিছু অংশ তুলে দেওয়া হল:

ওহ আমার ইরান, ওহ আমার রত্নময় ভূমি
ওহ ইরান, মাটিতে বসন্তের শিল্প রচনা কর তুমি
তোমাকে ছেড়ে থাকার কথা চিন্তা করা পাপ
তুমি ভেতরে থাক চিরদিন, ছড়াও উত্তাপ
যদি তোমার শত্রু পাথর হয়, আমি হাতুড়ি হব
পাথর চূর্ণ করবো অথবা তোমার তরে জীবন দেব
তোমার ভালবাসা ডাকে আমায়
আমার চিন্তা, ছেড়ে যাবে না কখনো তোমায়
তোমার জন্য, কখন আমার জীবন হবে মূল্যবান।

রেজ্জা ভিউ লিখেছেন [ফার্সী ভাষায়]:

এখন পর্যন্ত একতা এবং প্রতিরোধই আমাদের বিজয়ের গোপন মন্ত্র। ‘ইয়ে ইরান, ওহ আমার ইরান, ওহ আমার রত্নময় ভূমি’ একটি অসাধারণ এবং একই সঙ্গে স্মরণীয় সঙ্গীত। আসুন আমরা মোবাইলের রিঙটোন হিসেবে এই গানটিকে বেছে নেই। স্কুলে, অফিসে, রাস্তায় এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরা যেন বার বার এই গানটিকে শুনতে পাই এবং এর মধ্যে দিয়ে আমরা ক্রমাগত আমাদের লক্ষ্যর দিকে এগিয়ে যাব: ইরানকে মুক্ত করার দিকে।

ফারমেসেকও লিখেছেন [ফার্সী ভাষায়] যে গ্রীন মুভমেন্টের পরবর্তী পদক্ষেপ হবে লোকদের মোবাইলের ফোনের রিঙটোন পাল্টে ফেলতে উৎসাহিত করা, যেন তারা তাদের মোবাইলে রিঙটোন হিসেবে “ইয়ে ইরান” গানটিকে বেছে নেয়।

হারফেহেসাবি জানাচ্ছেন [ফার্সী ভাষায়] ইরাক-ইরান যুদ্ধের শেষের দিকে ইরানী রেডিও এই গানটি প্রচার করতে শুরু করে। এই গান প্রচারের লক্ষ্য ছিল লোকেরা যেন যুদ্ধে যেতে উদ্বুদ্ধ হয় এবং যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। ব্লগার বলছেন, তিনি আশা করেন ২২ বাহামন (১১ ফেব্রুয়ারিতে)-এ ইরান দখলদার মুক্ত হবে। প্রতি বছর এই দিনটি ইরানে ইসলামী বিপ্লব সফল হবার বার্ষিকী হিসেবে পালন করা হয়ে থাকে।

বেশ কয়েকজন ব্লগার তাদের ব্লগে গানটি উঠিয়ে দিয়েছেন:

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .