বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সার্বিয়া: এক ফরাসী ফুটবল সমর্থকের মৃত্যু

১৭ই সেপ্টেম্বর বেলগ্রেদের শহরতলীতে ব্রিস টাটোন নামের ২৮ বছরের ফরাসী নাগরিক ও ফুটবল ক্লাব তুলুজের সমর্থককে পার্টিজান বেলগ্রেদ ফুটবল ক্লাবের সমর্থকরা নির্মমভাবে প্রহার করে। ঘটনাটি ঘটে পার্টিজান বনাম তুলজের খেলা শুরু হবার ঠিক আগে। ২৮শে সেপ্টেম্বর সে বেলগ্রেদ হাসপাতালে মৃত্যু বরণ করে। এই ভয়াবহ সংবাদ ব্লগে দ্রুত প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে।

সরদজান মিত্রোভিচ লিখেছেন:

এই শহরের কারণে আমি লজ্জিত, এই সব রাজনীতিবিদ ও এই দেশটিকে নিয়েও আমার লজ্জার সীমা নেই।

মার্কো জেভতোভিচ ফেসবুকে এক গ্রুপ সৃষ্টি করেছেন, যার নাম-সংর্ঘষ থামাও- এবং তার ব্লগে তিনি পাঠকদের এই গ্রুপে যোগ দিতে বলেছেন। তিনি এছাড়াও লিখেছেন:

আমি পার্টিজানের এক সমর্থক, আমরা জন্ম ও বেড়ে ওঠা এই বেলগ্রেদে… কিন্তু আমি লজ্জিত।

ব্রিস তুমি শান্তিতে ঘুমাও।

সেরেকো সেকেলজিক লিখেছেন:

কেন সংঘর্ষের ঘোষণা ও কাজ, কেন সমকামীদের কুচকাওয়াজ রাজধানীর কেন্দ্র স্থলে নিষিদ্ধ, কেন অনেক লোককে প্রহার করা হল, কেন ব্রিস টাটোন বেদনা দায়কভাবে মারা গেল, কেন শহরের বাসিন্দারা শহরের রাস্তায় নিরাপদে হাঁটতে পারে না-এ সকল কিছু আমাদের পরিষ্কারভাবে দেখাচ্ছে যে, এইসব সংঘর্ষের বিরুদ্ধে এক কঠিন অবস্থান নেওয়া উচিত। এই কাজে নাগরিকদের প্রথম পদক্ষেপ হওয়া উচিত, রাস্তায় যে সমস্ত দল বা ব্যক্তি ঘৃণা ও ভয় এবং মৃত্যু ছড়ায়, তাদের হাত থেকে রাস্তার অধিকার নিয়ে নেওয়া। পরবর্তী পদক্ষেপ হওয়া উচিত, আইনী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে যে সমস্ত ব্যক্তি, দল বা সংগঠন এই সব খুনোখুনির প্রচারণা চালায় ও সৃষ্টি করে তাদের বিরুদ্ধে প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে অভিযোগ আনা।

সার্বিয়ার কর্মকর্তারা ব্রিসের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে এবং বলছে, সার্বিয়া কখনো তাকে ভুলবে না। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইভিকা ডভিচের এই বিবৃতি প্রকাশ করেছে আরটিভি স্টুডিও বির ওয়েবসাইট:

“সার্বিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে, আপনাদের পুত্রের মৃত্যুতে আমি আমার অন্তরের অন্ত:স্থল থেকে সমবেদনা জ্ঞাপন করছি। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আমরা আশা করেছিলাম ব্রিস এবং তার তারুণ্যের জয় হবে। তার মৃত্যুর খবর সার্বিয়ার জনগণ গভীর বেদনার সাথে গ্রহণ করেছে, পুরো বিষয়টি বেদনাদায়ক”।

স্টুডিও বি এর সূত্রানুসারে মানবাধিকার মন্ত্রী মার্কো কারাদজিক নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন, নিহতের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে তারা যেন বুধবার বেলা ১১.৩০ মিনিটে বেলগ্রেদের কেন্দ্র স্থলে ফুল আর মোমবাতি নিয়ে হাজির হয়। তিনি বলেন:

একজন ফরাসী নাগরিকের বেলগ্রেদে এই ভাবে জীবন হারানো, এটি খুবই ভয়ংকর এক সংবাদ। আমি বেলগ্রেদের সকল নাগরিককে টিআরজি রিপাবলিকা স্কোয়ারে মানবিক অনুভূতি নিয়ে হাজির হবার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। প্রজ্বলিত মোমবাতি এবং ফুল সেখানে রেখে যাওয়া প্রমাণ করে যে সার্বিয়ার অনেক নাগরিক এই ধরনের হানাহানির বিপক্ষে এবং ফরাসী নাগরিক ব্রিস টাটোনকে সার্বিয়া ভুলবে না, এবং এই ধরনের ঘটনা আর ঘটতে সে দেবে না।

রাষ্ট্রপতি তাদিকও এই বিষয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন:

“সার্বিয়া অত্যন্ত গুরুত্ব প্রদান করে এই ব্যাপারে তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে এবং কঠিন এক নৈতিকতার সাথে” […]।

তিনি এর সাথে যোগ করেন, এটা একটা সতর্ক বার্তা “যারা শেষ দিন পর্যন্ত সংঘর্ষ তৈরি করবে তাদের প্রতি”।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .