বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

প্যালেস্টাইন: গাজার দৃশ্য

উচ্ছেদকৃত ফিলিস্তিনিদের জন্য ঘর যাত্রা এক কঠিন এবং বেদনাদায়ক অভিজ্ঞতা। ফিলিস্তিনি ব্লগার ইব্রাহিম (আরবী ভাষায়) গাজা ভ্রমণ করেছেন এবং নিজেকে নির্বাক অবস্থায় আবিষ্কার করেছেন। তার ভ্রমণের সংক্ষিপ্ত বিবরণী দিয়ে আমাদের জন্যে ছবির এক অ্যালবাম প্রকাশ করেছেন।

এই ব্লগার ইউরোপে বাস করেন এবং প্যালেস্টাইন টেকনোলজি নামের এক ব্লগ চালান, তিনি পুরো এক মাস গাজা ঘুরে ফিরে দেখেছেন। তিনি লিখেছেন:

وكنت قد نويت أن أكتب عن الرحلة ، ولكني لا أجد الكلام المناسب، بجد الرحلة كانت ممتعة بكل ما في الكلمة من معنى . ولكنها لم تكن كافية ، حاولت أن أطفآ ما بداخلي من شوق وحنين ، ولكني لم استطع لذا سأحاول بكل ما اوتيت من قوة أن أعود بشكل دائم إلى غزة قريبا بإذن الله . أما لهذه التدوينة فسأضع بعض الصور بشكل تسلسلي . أترككم مع الصور
এই ভ্রমণ নিয়ে লেখার, আমার এক পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু আমি সঠিক অর্থ খুঁজে পাচ্ছি না। সত্যিকার অর্থেই এই ভ্রমণ বেশ আনন্দদায়ক হয়েছিল, শব্দে যতটুকু তা বোঝানো যায়। কিন্তু ভ্রমণে সময় যথেষ্ট ছিল না। আমার যতটা সময় হাতে ছিল, ততটা সময়ের মধ্যে সব দেখে শেষ করতে চাইছিলাম, কিন্তু আমি তা পারি নি- তবে আমি সর্বান্তকরণে চেষ্টা করেছি। সৃষ্টিকর্তার অনুগ্রহে, শীঘ্রই আমার গাজায় স্থায়ীভাবে ফিরে আসার ইচ্ছে রয়েছে। এই পোস্টে আমি কিছু ছবি উঠিয়ে দিয়েছি যা তারা তুলে নিয়েছে। এই সব ছবি আপনাদের হাতে তুলে দিয়ে আমি বিদায় নিচ্ছি।
ব্লগার  সমুদ্রের তীরে তার পরিবারসহ একটি দিন উপভোগ করছে

ব্লগার সমুদ্রের তীরে তার পরিবারসহ একটি দিন উপভোগ করছে

গাজার এক নিজস্ব উৎসব

গাজার এক নিজস্ব উৎসব

গাজার আকাশচুম্বী ভবন

গাজার আকাশচুম্বী ভবন

স্থানীয় মিষ্টির স্বাদ নেওয়া

স্থানীয় মিষ্টির স্বাদ নেওয়া

ধ্বংসস্তুপে পরিণত হওয়া ভবন... যুদ্ধের এক স্মৃতি

ধ্বংসস্তুপে পরিণত হওয়া ভবন… যুদ্ধের এক স্মৃতি

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .