বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

আজারবাইযান: ওয়াশিংটন ডিসিতে আটক ব্লগারদের মুক্তি চেয়ে বিক্ষোভ

আজারবাইযান দুতাবাসের সামনে

আজারবাইযান দুতাবাসের সামনে

আটক ভিডিও ব্লগার আদনান হাজিজাদে আর এমিন মিল্লি তাদের স্বদেশ আজারবাইযানে আরো অভিযোগের মুখোমুখি হওয়ায়, দ্যা কলেজিয়ান জানিয়েছে যে দুই আটক কর্মীর জন্য সমর্থন গতকাল ডিজিটাল বিশ্ব থেকে নেমে আসে হাজার হাজার মাইল দুরে ওয়াশিংটন ডিসির পথে পথে।

‘আদনান হাজিজাদে আর এমিন মিল্লির সমর্থনে র‌্যালির আয়োজক’ আর গণতন্ত্রের জন্য আজারবাইযানি- আমেরিকান (আজাদ) এর সদস্য এলমার চাকতাখতিন্সকি প্রায় ৩০ জন বিক্ষোভকারীর একটা দল নিয়ে যান। এদের মধ্যে বেশীরভাগই ছিল স্থানীয় আজারবাইযানি। বিকাল ৪টা থেকে ৬টা পর্যন্ত যখন তারা এই তরুণদের মুক্তির জন্য আবেদন করেন, বন্দীদের ন্যায় বিচারের অধিকারের কথা বলে। তারা মূলত: আজারবাইযানে যে কোন ধরনের বাক স্বাধীনতার উপরে নিষেধাজ্ঞার শেষ করার আবেদন জানিয়েছে।

‘আদনান আর মিল্লিকে মুক্ত কর’ ‘হে, এদেরকে যেতে দাও’, ‘অবিচার বন্ধ কর’ আর গণতন্ত্র দীর্ঘজীবী হোক’ এই স্লোগানে রাস্তা ভরে গিয়েছিল আর চালকেরা হর্ন বাজিয়েছেন একটা সাইনে সাড়া দিয়ে যেখানে লেখা ছিল ‘স্বাধীনতার জন্য হর্ন বাজাও’। বিক্ষোভকারীরা আজেরি আর আমেরিকান পতাকা উড়িয়েছেন, টি-শার্ট পরেছেন যেখানে লেখা ‘এসেম্বলি স্বাধীনতা’ আর বাক স্বাধীনতা’ আর তারা ধরে ছিলেন আদনান আর মিল্লির ছবি।

আজেরি রিপোর্ট আমেরিকার রাজধানীতে আজারবাইযানের দূতাবাসের বাইরের ঘটনা নিয়ে অনেক ছবি পোস্ট করেছেন। আর একটা প্রতিবাদ সম্প্রতি আজারবাইযানের বাকুতে হয়েছিল। এই দেশে বিক্ষোভকারী, তাদের সংখ্যা যাই হোক না কেন, খুব কম সহ্য করা হয়।

এর মধ্যে ওল! আজারবাইযানি তরুণ প্রচারনার ব্লগ, যেটা হাজিজাদে শুরু করেছেন, সেখানে বলা হয়েছে যে একজন আমেরিকান কংগ্রেস সদস্য সন্দেহ প্রকাশ করেছেন যে কোন বন্দী সঠিক বিচার পাবেন না যদি তাদের বিচার কথিত ৪ঠা সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়।

ভার্জিনিয়ার আমেরিকান কংগ্রেস সদস্য ও হাউজের শক্তিশালী কমিটির সদস্য জেমস মোরান আমেরিকার পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিলারি ক্লিন্টনকে চিঠি দিয়েছেন গ্রেপ্তারকৃত আজারবাইযানি ব্লগার হাজিজাদে আর মিল্লির কেসের ব্যাপারে। চিঠিতে কংগ্রেসম্যান মোরান তার সন্দেহ প্রকাশ করেছেন যে এই ব্লগারদের গ্রেপ্তার হওয়া তাদের রাজনৈতিক দৃষ্টিকোণের জন্য, আর শংকা প্রকাশ করেছেন যে আজারবাইজানে তারা সঠিক বিচার পাবেন না।

আদনান হাজিজাদে আর এমিন মিল্লির এই কেস নিয়ে গ্লোবাল ভয়েসেস অনলাইনের সংবাদ আজারবাইযান অংশে পাওয়া যাবে এই সাইটে আর টুইটারের আপডেট পাওয়া যাবে #এমিনাদনান এ।

protest

আমেরিকায় আজারবাইযানী দুতাবাসের সামনে বিক্ষোভ

আমেরিকার ওয়াশিংটন ডিসিতে আজারবাইযানী দুতাবাসের সামনে বিক্ষোভ

ছবি: আজেরী রিপোর্টের সৌজন্যে

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .