বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

পাকিস্তান: বায়তুল্লাহ মাসুদ সম্ভবত: মারা গেছেন

তালেবান যুদ্ধ নেতা এবং পাকিস্তানের শীর্ষ সন্ত্রাসী বায়তুল্লাহ মাসুদের মৃত্যুর সংবাদ যখন ছড়িয়ে পড়ে মানুষ স্বস্তির সাথে তা গ্রহণ করে এবং কেউ কেউ তা বিশ্বাস করতে অস্বীকার করে। মৃত্যু সরকারীভাবে নিশ্চিত করাতে দেরী হওয়ায় তার মৃত্যু নিয়ে সংশয় সৃষ্টি হয়।

তবে বায়তুল্লাহ মাসুদের মৃত্যুর সম্ভাবনার খবরটিই ব্যাপক সারা ফেলেছে। প্রচার মাধ্যম গুলো মাসুদের জীবনী সম্পর্কে তথ্য চিত্র প্রকাশ করছে। এখানে বর্ণনা করছি পাকিস্তানের ব্লগগুলো এ বিষয়ে কি বলছে:

প্রো পাকিস্তানের জুনায়েদ খান মাসুদের মৃত্যু সম্পর্কে জানাচ্ছে তার “দুরনিয়ন্ত্রিত বিমান কর্তৃক বায়তুল্লাহ মাসুদ নিহত” পোস্টের মাধ্যমে এবং মাসুদের জীবনী সম্পর্কে লিখেছেন:

“খবর আসছে যে দুরনিয়ন্ত্রিত বিমানের বোমা আক্রমণে বায়তুল্লাহ মাসুদ নিহত হয়েছে যা একজন আমেরিকান কর্মকর্তা জানিয়েছেন। যদি এ খবর সত্য হয় তবে এটি ওয়াশিংটনের জন্যে বিজয় হবে, কারণ আমেরিকান সরকার তার মাথার দাম ধরেছিল ৫০ লাখ ডলার। পাকিস্তানের আদিবাসী এলাকার একজন শীর্ষ আল কায়েদা সন্ত্রাসী হিসেবে তাকে ধরা হয়।”

আইস্ট্রীম নিউজ কর্তৃক আপলোড করা একটি ইউটিউব ভিডিওতে মাসুদের চেহারা এবং তার সম্ভাব্য লুকানোর জায়গা দেখাচ্ছে।

ইন্জিন আওয়ার ব্লগে জহীর ইকবাল নারু সংশয় প্রকাশ করছেন:

আমার সন্দেহ আছে যে এটি আমার জন্মভূমি পাকিস্তানে সংঘটিত অগণিত আত্মঘাতী বোমা হামলাকে থামাবে কি না।

(সরকারীভাবে) তার মৃত্যু নিশ্চিত করতে এত দেরী লাগছে কেন?

(আমি টিভিতে শুনেছি) টিটিপি (তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান) এবং সরকারী কর্মকর্তারা (বেসরকারী ভাবে) ইতিমধ্যে তার মৃত্যু নিশ্চিত করেছে।

অল থিংস পাকিস্তানের আদিল নাজাম জিজ্ঞাসা করেছে “বায়তুল্লাহ মাসুদ: সে কি মরেছে? এখন কি হবে?“:

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নটি যেটা করা দরকার যে: সে যদি মারা যায়, তাহলে এখন কি?

বায়তুল্লাহ মাসুদ হচ্ছে একটি নাম যা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তালেবানের যুদ্ধের ক্ষেত্রে সর্ব বিদিত। যদি সাম্প্রতিক বছরগুলোতে তার এবং তার সংগঠনের দাবী করা সকল মৃত্যুগুলো গণা হয়, তাহলে দেখা যাবে যে সে পাকিস্তানের যে কোন শত্রুর চেয়ে সবচেয়ে বেশী পাকিস্তানীর (বেশীরভাগই মুসলমান) মৃত্যুর কারণ হয়েছে। কিন্তু এটি তা বোঝায় না যে তার মৃত্যুতে তালেবানদের যুদ্ধ শেষ হয়ে যাবে।

এর পরে কে উঠে আসবে? আমরা কি জানি যে তার চেইন অফ কমান্ডের পরের ব্যক্তিটি কে? আমরা জানি সে কোথায়? আবার বিরাট কোন নেতা হয়ে ওঠার আগে আমাদের কি কোন পরিকল্পনা কাছে তাকে মোকাবিলা করার?

মনে হচ্ছে যে বায়তুল্লাহ মাসুদের মৃত্যু তালেবান শক্তির জন্যে বড় একটি ক্ষতি করবে। তবে এই মৃত্যু যদি নিশ্চিত করা যায় আরও অনেক বিষয় আছে যা মোকাবিলা করতে হবে। আমার নিজের ব্লগে আমি আলোচনা করেছি বায়তুল্লাহ মাসুদের সম্ভাব্য মৃত্যু নিয়ে বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে:

বায়তুল্লাহর মৃত্যুর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে একটি দুরনিয়ন্ত্রিত বিমান দ্বারা আক্রমণে তার মৃত্যু হয়েছে এবং আশা করা যাচ্ছে যে এই মৃত্যু এই প্রক্রিয়ার আক্রমণের উপর জনগণের মতামতে প্রভাব ফেলবে। [..] যদিও সরকারী কর্তৃপক্ষ দুরনিয়ন্ত্রিত বিমান দ্বারা আক্রমণকে নিন্দা করেছে এতদিন, অনেক বিশেষজ্ঞ বলেছে এ নিয়ে (আমেরিকার সাথে) তাদের গোপন চুক্তির কথা। বায়তুল্লাহ মাসুদকে লক্ষ্যে পরিণত করার ব্যাপারটি প্রমাণ করে যে আমেরিকা এবং পাকিস্তানী গোয়েন্দা সংস্থার মধ্যে নিকট সম্পর্ক বিদ্যমান।

এই পোস্টে আরও বলা হয়েছে:

আমাদের স্মরণে রাখা উচিৎ যে ওয়াজিরিস্তান অপারেশনটি সেনাবাহিনীর একটি চূড়ান্ত শোডাউন হিসেবে চালানো হয়েছে এবং বায়তুল্লাহর মৃত্যু এর শুরু মাত্র। এখন পথ থেকে বায়তুল্লাহর সরে যাওয়া তাদের লক্ষ্যকে আরও সহজ করেছে এবং কাছে এনে দিয়েছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .