বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইরান: বিক্ষোভকারীদের কাছে নেদা একটি প্রতীকে পরিণত হয়েছে

ইরানের সাম্প্রতিক বিক্ষোভের এখন একটি প্রতীক আর অবয়ব আছে: নেদা:

নেদা একজন ইরানী নারী যাকে শনিবার বাসিজ জঙ্গীরা গুলি করে মেরে ফেলে। নেদা তখন হাজারো মানুষের সাথে বিক্ষোভ করছিল ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফলের বিরুদ্ধে যা মাহমুদ আহমাদিনেজাদকে পুনরায় প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা করে। আশেপাশের লোকেরা তার মৃত্যুকে ভিডিওতে ধারণ করে আর ইন্টারনেটে আপলোড করে। তিনি চোখ পুরো খোলা অবস্থায় মারা যান, আর তা শেষ মুহূর্ত নাগরিক মিডিয়া থেকে মূল ধারার মিডিয়াতেও ছড়িয়ে পড়ে, কোটি কোটি মানুষের কাছে পৌঁছে যায়।

নেদার উদ্দেশ্যে একটা ওয়েবসাইট উৎসর্গ করা হয়েছে, উই আর অল নেদা নামে। হোম পেজের একটা উক্তিতে বলা হয়েছে: “আমরা তাদের দিকে পাথর ছুঁড়ে মারিনি, আমরা চিৎকার করেছি ‘আমরা স্বাধীনতা চাই‘, তারা আমাদের গুলি করে।“ ইরানী আর অইরানী সবাই এই সাইটে নেদার স্মৃতির উদ্দেশ্যে মন্তব্য রাখছেন। এখন পর্যন্ত, প্রায় ৩৫০০টি মন্তব্য হয়েছে আর তা দ্রুত বাড়ছে।

neda

মায়হার বলেছেন: “আমি আশা করি আমার চোখ তোমার কাছ থেকে যদি শিখতে পারতো কিভাবে সাহসের সাথে খোলা রাখতে হয়!!!”

রেজা বলেছেন: “আপনার খোলা চোখ আমাকে একটা শিক্ষা দিয়েছে: ’অবিচার দেখে চোখ বন্ধ করবে না!”

মোজতাবা বলেছেন: ”নেদা কখনো মারা যাবে না, আমরা যে কেউ যে কোন দিন নেদা হতে পারি”

ভিদা বলেছেন: ”আপনার আলো স্বাধীনতার দিকে জ্বলছে। ধন্যবাদ।“

ইরানী ব্লগার আন্দিশেহ লিখেছেন যে ইরানী জাতীয় টেলিভিশন চেষ্টা করছে নেদার হত্যার জন্য ‘সংস্কার বিরোধী’দের দায়ী করতে। ব্লগার যোগ করেছেন যে কারো যদি সন্দেহ থাকে যে ইরানী টেলিভিশন মিথ্যা বলে, এইসব সংশয় এখন শেষ হতে পারে।

নীচে ইরানের সাম্প্রতিক প্রতিবাদ এবং নেদা সম্পর্কে একটি একটি ভিডিও দেখা যাবে:

খুব অল্প সময়ে, নেদার মৃত্যু আর্ন্তজাতিক সংবাদে পরিণত হয় আর মানুষ বিভিন্নভাবে সাড়া দিয়ে তাদের সমবেদনা জানিয়েছেন।

এখানে ইউটিউবে নেদার জন্য আমেরিকান একজন গায়ক জনি মাউদলিনের (জনি৯৯) গান, (ফার্সী সাবটাইটেল আর একজন পাঠক যোগ করেছেন):

… আর একটা আমেরিকান যাযাবর শিল্পী রুটহাব প্রকাশ করেছেন:

ব্লগার আসাদ আলি মোহাম্মাদি লিখেছেন যে ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে তার পড়শীরা তাকে নেদার ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করছেন, আর টেলিভিশন আর ইন্টারনেট খুললেই ইরান আর নেদা সম্পর্কে সংবাদ দেখা যাচ্ছে। “সবাই আমার ইরান, আমাদের ইরান নিয়ে কথা বলছে। সবাই আমার নেদা, আমাদের নেদা নিয়ে কথা বলছে,” তিনি বলেছেন।

সিসিলিয়া মোরালেস টুইট করেছেন, ”আমরা দাস হওয়ার জন্য জন্মাইনি। আমরা মানুষ। ইশ্বর আপনাকে আর্শীবাদ করুক নেদা, ইশ্বর ইরানী জনগনকে আর্শীবাদ করুক যারা স্বাধীনতার মধ্যে বাঁচতে চায়।“

আতেফেহ ওয়াল্টার টুইট করেছেন, ”আমি সব সময় আমার দেশের জন্য লড়ব!! আমি নেদাকে কখনো ভুলব না!!”

একজন ব্লগার আর সাংবাদিক জানেভেশেত তার ব্লগে নেদার মৃত্যুর ব্যাপারটি উল্লেখ করেছেন আর বলেছেন যে সাহসী ইরানী নারী আর মেয়েরা এই বিক্ষোভ আন্দোলনে অংশগ্রহন করছেন।

পৃথিবীর অনেক দেশে নেদার জন্য আলোকমিছিল বের করা হয়েছে।

নিউ ইয়র্ক থেকে:

দুবাই পর্যন্ত:

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .