বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

হন্ডুরাস: শক্তিশালি ভূমিকম্প দেশকে নাড়িয়ে দিয়েছে

২৮ মে ভোরে হন্ডুরাস হঠাৎ জেগে উঠেছিল যখন রিক্টার স্কেলে ৭.১ মাপের ভূমিকম্প দেশটাকে নাড়িয়ে দেয়। ভূমিকম্পের কেন্দ্র ছিল আটলান্টিক মহাসাগরের তীরের লা চেইবা শহরের ১৩০ কিমি উত্তরপূর্বে। স্থানীয় সময় ভোর ২:২৪ এ এই ভূমিকম্পের ফলে বাসিন্দারা তাদের বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে আসেন নিরাপত্তার সন্ধানে। পাঁচজনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করা গেছে আর অনেকে আহত হয়েছেন। ধীরে ধীরে দেশের অবকাঠামোয় যেমন বাড়ি, সেতু আর হাইওয়েতে ক্ষতি ধরা পড়ছে।

মাইক্রো ব্লগিং প্লাটফর্ম যেমন ব্লিপিয়া আর টুইটার প্রথমে এই ভূমিকম্পের কথা জানায় সান পেদ্রো সুলা, তেগুচিগাল্পা আর লা চেইবার ব্যবহারকারীদের মাধ্যমে। অনেকে তাদের চারপাশের অবস্থা জানিয়েছেন হ্যাশট্যাগ #টেম্বলরএইচএন ব্যবহার করে (আর্থকোয়েকএইচএন)।

@ইয়ামিলজি এর ইয়ামিল গঞ্জালেজ লিখেছেন:

hable con mi tia que vive en la ceiba dice que estuvo fuertísimo se asustaron bastante, los adornos y todo eso se cayeron al piso #temblorHN

লা চেইবাতে বসাবাসরত আমার খালা জানিয়েছেন যে এটা জোরালো ছিল আর তারা খুবই ভীত ছিলেন, সব সাজানোর জিনিষসহ অন্য সব কিছু মাটিতে পড়ে যায় #টেম্বলরএইচএন

@রোবার্টো এর রোবার্টো লিখেছেন:

yo escuchaba que el armario se mecía casi salgo corriendo a la calle

আমি আলমারি নড়তে শুনেছি আর আমি প্রায় দৌড়িয়ে রাস্তায় বেরিয়ে গেছি।

@জাগবোলানোস এর জাগবোলানোস লিখেছেন:

Me desperto, estoy esperando por si hay replicas

আমি জেগে আছি, এই অপেক্ষায় যদি আবার কম্পন হয়।

কিছু হন্ডুরাসের ব্লগার সাথে সাথে তাদের ব্লগ আপডেট করতে পারেননি তাদের এলাকায় বিদ্যুত আর ইন্টারনেটের অসুবিধার কারনে। তবে, জানপেদ্রানো ব্লগ প্রথম একটা ব্লগ যেটা তথ্য দিয়েছে ভূমিকম্প সম্পর্কে বন্ধু আর পরিবারের কাছ থেকে। তিনি তার ভাই এর কাছ থেকে একটা ফোন পেয়েছিলেন:

Mientras estaba al teléfono con el, mi messenger parecía árbol de navidad con mensaje tras mensaje de familiares y amigos en San Pedro Sula dejándome saber que es lo que estaba pasando. Incluso una amiga que vive en Suiza me mando un mensaje para ver si yo ya sabia del mismo. La palabra que creo fue el común denominador en todos estos mensajes fue “horrible”, ya que pues fue una sacudida que pues la mayor parte de la gente jamás había experimentado. Mi mama vive en Roatán por lo que la llame para ver como estaba, y pues igual fuera del susto estaba bien.

আমি যখন তার সাথে ফোনে কথা বলছিলাম, আমার (এমএসএন) মেসেঞ্জারকে একটা ক্রিসমাসের গাছের মতো দেখাচ্ছিল একের পর এক বার্তায় সান পেদ্রো সুলাতে আমার বন্ধু আর আত্মীয়দের কাছ থেকে আমাকে জানিয়ে যে কি হচ্ছে। এমন কি সুইজারল্যান্ড থেকে একজন বন্ধু বার্তা পাঠিয়েছে যে আমি জানি কিনা যে কি হচ্ছে। সাধারন একটা শব্দ যা এই সব বার্তায় ছিল তা হলো ‘ভয়ঙ্কর’ কারন পুরো দেশ এটাতে কেঁপে গিয়েছিল আর দেশের মানুষ এমন কিছু এর আগে অনুভব করেনি। আমার মা রোয়াটানে থাকেন আর আমি ফোন করেছিলাম জানার জন্য যে সে কেমন আছে, আর ভীতি ছাড়া অন্য সব কিছু ঠিক ছিল।

তিনি আরো আপডেট দিয়েছেন সারা দিনব্যাপী ঘটনার যার মধ্যে ছিল গণতন্ত্র সেতুর ভেঙ্গে পড়া, যা দেশের একটা গুরুত্বপূর্ণ সেতু।

লা গ্রিঙ্গাস ব্লগিচিতো তার ধারনা জানাতে দেরি করেছিলেন বিদ্যুতের অভাবে, কিন্তু পরে জানিয়েছেন যে হন্ডুরাসে থাকার পর থেকে এটা তার প্রথম ভূমিকম্পের অভিজ্ঞতা

বর্ন ইন হন্ডুরাস আর এটার স্প্যানিশ সংস্করণ নাসের অঁ হন্ডুরাস স্থানীয় সংবাদপত্র থেকে লিঙ্ক দিয়েছেন। এর সাথে, ইন্টারারটিক্স ভুমিকম্পের কেন্দ্রের আর সুনামি সর্তকীকরনের একটা মানচিত্র দেখিয়েছেন যা ইস্যু করে পরে তুলে নেয়া হয়।

জাতীয় দৈনিকের বিভিন্ন অনলাইন সাইটকে অনলাইন থাকতে যুদ্ধ করতে হয়েছে কারন তারা অনেক অতিথি পেয়েছে, বিশেষ করে আমেরিকা আর স্পেন থেকে, যারা বন্ধু আর পরিবার সম্পর্কে তথ্য জানতে চাচ্ছিল।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .