বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

আমেরিকা: ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয়ে কলম্বাস দিবস উদযাপন আর নয়

স্থানীয় আমেরিকান আর ছাত্রদের প্রতিবাদের জবাবে, আমেরিকার সম্মানিত ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয় জাতীয় ছুটির নাম কলম্বাস দিবস থেকে পাল্টিয়ে ‘শরৎ সপ্তাহান্ত’ করেছে তাদের একাডেমিক ক্যালেন্ডারে।

ফলে সেই ছুটিটি বদলেছে যা ১৪৯২ সালে আমেরিকার আবিষ্কারক ইউরোপীয় পরিব্রাজক ক্রিস্টোফার কলম্বাসের সম্মানে পালন করা হত। ব্লগাররা এই নিয়ে তর্ক করছেন।


নতুন পৃথিবীতে কলম্বাসের প্রথম পদচারণা। চিত্র ডিস্কোরো টিওফিলো দে লা পুব্লার।

কেউ কেউ ব্রাউনের এই পরির্বতনকে দেখছে আমেরিকার আদিবাসীদের গণহত্যার স্বীকৃতি হিসাবে; অন্যরা এটাকে নাকচ করছে যা একজন রক্ষনশীল ব্লগার দেখেছেন এই ভাবে, “বোকা কলেজ উদারপন্থীরা আর একটা ছুটি ধ্বংস করএছে।”

কনভারসেশন নেশন নাম পাল্টানোর ব্যাপারটা বিস্তারিত লিখেছেন:

হে ক্রিস্টোফার কলম্বাস, আপনার জন্য ব্রাউন কি করতে পারে? তারা আপনার নাম একটা ছুটি থেকে কেড়ে নিতে পারে।

আদিবাসী আমেরিকান ছাত্রদের একটা দলের প্রতিবাদের পরে ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি ভোট করে ক্যাম্পাস থেকে কলম্বাস দিবসের নাম সরিয়ে ফেলতে।

শরতের স্কুলের ছুটি এখন অনেক বেশী সাধারণ নামে পরিচিত হবে ‘শরত উইকেন্ড’ হিসাবে। ফ্যাকাল্টির বেশী অধিকার আছে আকাডেমিক ক্যালেন্ডারের উপরে আর ব্রাউনের কমর্কতারা হস্তক্ষেপ করার পরিকল্পনা করেন না।

কিছু আদিবাসী আমেরিকান দল বিশ্বাস করেন যে কলম্বাস দিবস পালন করা উচিত না। তারা কারন হিসেবে আদিবাসী আমেরিকানদের প্রতি ‘কলম্বাসের হিংস্র ব্যবহার’ কে তুলে ধরে।

প্রভিডেন্সের ইটালীয় আমেরিকান দলের কমর্কতারা সিদ্ধান্তকে তিরষ্কার করে বলেছেন যে প্রভিডেন্স জার্নালে কলম্বাসকে নায়ক হিসাবে স্বীকৃতি দেয়া হবে যিনি আমেরিকা আবিষ্কার করেছিলেন। এটা জাতীয় ছুটি কিন্তু বেশ কয়েকটা রাজ্য আর অন্য কয়েকটা কলেজ নাম পাল্টিয়েছে। তাদের কি এটা করা উচিত?

‘ইগ্নাটিয়াস রেইলি’ যিনি রাইট পন্ডিতে লিখেন বলেছেন:

ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের জন্য আমার কাছে খবর আছে: বেশীরভাগ স্থপতি পিতারা দাসের মালিক ছিলেন, লিঙ্কন তার স্ত্রীর সাথে দুর্ব্যবহার করতেন, ম্যাল্কম এক্স একজন পূর্নাঙ্গ যৌনবৈষম্যবাদী ছিলেন, মার্টিন লুথার কিং আর জন এফ. কেনেডি নারীসংগপ্রিয় ছিলেন, আর তারা সকলেই আজকের মান অনুসারে পুরোপুরি অগ্রহনযোগ্য ছিলেন। আপনারা যদি এই পথ ধরে আজকের মান অনুসারে মানুষকে বিচার করতে চান, তাহলে আমেরিকার অতীতের কোন কিছুকেই আমরা সম্মান করতে পারবো না।

আর একটা কথা, আদিবাসী আমেরিকানরা একে অপরের সাথে যুদ্ধ করে জিতেছিল, আর নারীদের সাথে খুবই খারাপ ব্যবহার করতো, তাই তাদেরকেও আমরা আসলে উদযাপন করতে পারিনা। পরিশেষে বলতে হয় জীবন কষ্টদায়ক।

পরিবর্তনের আর একজন সমালোচোক লেফট অফ বস্টন মন্তব্য করেছে:

কলম্বাস… দাস করে আর ধর্ষণ করেন মধ্য আমেরিকার যে সব মানুষের সাথে তার দেখা হয়। তাদেরকে আর তাদের রোগ নিয়ে আসেন আমেরিকায়, যা অন্য পরিব্রাজকরাও এনেছিলেন। এগুলো বাস্তবতা, ভালোভাবে নথীভুত আছে।

কলম্বাস দিবস একটা উপলক্ষ্য যখন পুনরাবৃত্তির ইতিহাস আবার জয়লাভ করে। আমরা তাকে ভালো দৃষ্টিকোনে দেখার চেষ্টা করি তিনি আসলে যা করেছেন তা ঢেকে রেখে। তিনি আসলে আমেরিকা আবিষ্কার করেননি (অনেকে তার আগে করেছিলেন) তাই কেন আমাদের কলম্বাস দিবস আছে এটা বিবেচনা করা উচিৎ হবে।

এটাকে ‘রাজনৈতিকভাবে সঠিক’ হিসেবে বিবেচনা করা যায় কিন্তু যখন আমরা একজনকে উদযাপন করি যিনি মানুষকে দাস করেছিলেন – তখন রাজনৈতিকভাবে সঠিক হওয়ার কোন কারন নেই।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .