বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ক্যাম্বোডিয়া: চালের রাজনীতি

ভাত ক্যাম্বোডিয়ার প্রধান খাদ্যের থেকেও বেশী কিছু। এর সাথে ভূমি অধিকার, বানিজ্য আর আর্ন্তজাতিক সম্পর্ক জড়িত।

দ্যা মিরর পত্রিকার একটি লেখা পাশ্ববর্তী দেশ ভিয়েতনামে ভুমি লিজ দেয়া নিয়ে ক্যাম্বোডিয়ানদের হতাশা তুলে ধরেছে যার মধ্যে আছে ক্যাম্বোডিয়ার পিপলস পার্টির কর্মকর্তা চিয়াম ইয়েপ। দ্যা মিরর চিট খেমারের উদ্ধৃতি দেয় (ভলিউম ১#৪০, ১৮.৩.২০০৯):

সভে রিয়াং আর প্রে ভেং এর সীমান্তে ইয়োন [ভিয়েতনাম] সীমান্তের কাছে আন গিয়াং প্রভিন্সে পড়ে আছে নাগরিকদের হাজার হাজার হেক্টরের ভুমি যা খেমার কতৃপক্ষ ইয়োন কোম্পানির কাছে লিজ দিয়েছে। এই জমিতে বানিজ্যিকভাবে ফসল উৎপাদন করা হবে। সভে রিয়াং এর গভর্নর জনাব চেয়াং আম এর উদ্ধৃতি দিয়ে নম পেন পোস্ট একটি লেখা প্রকাশ করেছে ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ তারিখে। সেখানে বলা হয়েছে যে সভে রিয়াং এ ১০,০০০ হেক্টর জমি প্রস্তুত করা হচ্ছে ইয়োং কোম্পানিকে লিজ দেয়ার জন্য সীমান্ত বরাবর, আর প্রে ভেং এর গভর্নর জনাব উং সামিও নম পেন পোস্টকে জানিয়েছেন যে তিনি ইয়োন এ [ ভিয়েতনাম] ইয়োন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করবেন ইয়োন কোম্পানীকে সীমান্ত বরাবর ধানের ক্ষেত লিজ দেয়ার ব্যাপারে যাতে তারা খেমার অঞ্চলে এসে চালের চাষ করতে পারে।

ইয়েপ চিন্তিত যে লিজ ব্যবস্থা মালিকানায় পরিনত হবে, যার ফলে ক্যাম্বোডিয়ার এলাকা কমে যাবে। অন্যরা যেমন প্রুম সোয়ানারার মতো প্রকৌশলী মনে করেন যে ভূমির সব থেকে ভালো ব্যবহার হয় যদি তা দেশের নাগরিককে দেয়া হয় ধান চাষের জন্য।

কেআই মিডিয়া বেয়াইনি ভাবে আমদানী করা চালের সমস্যা তুলে ধরেছেন দ্যা নেশনে একটা প্রতিবেদনের মাধ্যমে:

থাই চাল রপ্তানীকারকদের সংস্থা আর থাইল্যান্ডের বানিজ্য বোর্ড (বিওটি) শীঘ্রই প্রস্তাব করবে যাতে বানিজ্য মন্ত্রণালয় একটা পাবলিক ওয়েরহাউস সংস্থা তৈরি করে ‘আমদানি এজেন্সি’ হিসাবে যারা আসিয়ান মুক্ত বানিজ্য এলাকা থেকে (আফটা) চাল আমদানি তদারক করবে যখন সব ধরনের আমদানি শুল্ক বাতিল করা হবে।

এজেন্সি থাই কৃষকদের নিরাপত্তা দানে ব্যবস্থা গ্রহন করবে, যেমন আমদানিকৃত চাল শুধুমাত্র উৎপাদনে কাঁচামাল হিসাবে ব্যবহৃত হবে। তবে আমদানিকারকরা ভয় পান যে এই ধরনের নিরাপত্তা প্রদান যারা ব্যবস্থাকে চালাকি করে ব্যবহার করতে চায় তাদেরকে উৎসাহিত করে। ফলে বেয়াইনিভাবে আমদানি করা চালের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়, ক্যাম্বোডিয়ায় উৎপাদিত চালকে হুমকির মূখে ফেলে।

চালের বাস্তবসম্মত ভুমিকার সাথে এটি ক্যাম্বোডিয়ার সংস্কৃতির বাহকও যা এই ভিডিওতে দেখা যায়। খেমার সভ্যতার এই অংশে ক্ষেত থেকে বাজারে যাওয়া চালের চিত্রে সমৃদ্ধ:

থাম্বনেইল ছবিটি ব্যবহৃত হয়েছে ফ্লিকার ব্যবহারকারী এনওএইচসিএইচ এর সৌজন্যে

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .