বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সৌদি আরব: ধুলিঝড়ের উপর তোলা গোছানো তথ্যচিত্র

সৌদি আরবের ব্লগাররা এক বিশাল মরুঝড় এর চিত্র ধারণ করার সুযোগ পেয়েছিল তাদের সাথে থাকা ক্যামেরা ও ভিডিও ক্যামেরার মাধ্যমে। এই ধুলিঝড় সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদকে ঢেকে ফেলেছিল এবং এর ব্যাপকতা এতই বেশী ছিল যে কয়েক মিটার দুরের জিনিষ মাত্র দেখা যাচ্ছিল, আর জীবন যেন স্থির হয়ে দাড়িয়ে ছিল।

রিয়াদ ট্রাভেল ইউটিউবে এই ভিডিওটি পোস্ট করেছেন যাতে দেখা যাচ্ছে যে ঝড় গুড়ি মেরে যেন পুর্ণ গতিতে ধেয়ে আসছে আর মুহূর্তের মধ্যে পুরো রিয়াদ শহরকে ঢেকে ফেলছে।

রিয়াদ ট্রাভেল মন্তব্য করেছে:

আক্ষরিক অর্থে কয়েক মিনিটের মধ্যে ধুলিঝড়ে সব ঢেকে যাওয়ার বাস্তব অভিজ্ঞতার সাক্ষী হওয়া -এ এক অবিশ্বাস্য অভিজ্ঞতা। সেদিনের শুরুটা ছিল পরিস্কার, আকাশ ছিল নীল….. এবং কয়েক মিনিটের মধ্যে পুরো শহর যেন ধুলির চাদরে ঢেকে গেল। সে সময় কেবল কয়েক মিটার সামনের দৃশ্য দেখা যাচ্ছিল।

মাদ্রিদি০৮ ও ধুলিঝড়ের উপর ইউটিউবে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন:

সৌদি উওমেন ওয়েবব্লগ ধুলিঝড়ের ছবি পোস্ট করেছে এবং ভদ্রমহিলা ধুলিঝড়ে তার অভিজ্ঞতার কথা বর্ণনা করেছেন:

আজ সত্যিই একটা বাজে ধুলিঝড় এখান দিয়ে বয়ে গেছে। সকালে কারো পক্ষেই ধারণা করা সম্ভব হয়নি যে এ রকম কিছু ঘটতে পারে। আমি সকাল ৭.৩০ মিনিটে বাসা থেকে বের হই। সে সময় আকাশ ছিল নীল ও একেবারেই পরিস্কার। সেদিনই কিছুক্ষণ পরে, একটা ক্লাশ নেবার পর আমি আমার ছেলেকে আনতে গেলাম, আমাকে এই ঝড়ের মধ্যে দিয়ে গাড়ী চালাতে হয়েছে। আমি এই ঝড়ের কয়েকটি ছবি তুলেছি যাতে আপনারা দেখতে পাবেন দিকচক্রাবল থেকে কি ভাবে এটি ধেয়ে আসছে। যেখানে গাড়ি করে আমার যেতে ৪৫ মিনিট সময় লাগে সেদিন সেখানে পৌছাতে আমরা এর দ্বিগুণ সময় লেগেছে। গাড়ী চালাতে খুব কষ্ট হচ্ছিল, এবং খুব ধীর গতিতে গাড়ীগুলো চলছিল। তখন সাইরেন বেজে চলছিল। ফায়ারট্রাক বা অগ্নিনির্বাপক গাড়ী, এ্যম্বুলেন্স, ও পুলিশের গাড়ীগুলো ঝড়কে অনুসরণ করছিল। যে সমস্ত লোকের হাপানী রয়েছে তাদের জন্য সত্যিই একটা খারাপ দিন ছিল সেদিন।

লাইফ থ্রু ডাস্টি লেনও বেশ কিছ ঝড়ের ছবি পোস্ট করে মন্তব্য করেছেন:

এই ধুলিঝড় খুব দ্রুত উড়ে এলো। মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যে আকাশ অন্ধকার ও হলুদে বর্ণে রূপান্তরিত হল।


বয়েড জোনস
সে সময় রিয়াদে ছিল। সেও এই ঝড়ের উপর ধারাবাহিক কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছে।এখানে তার একটি:


দিগন্ত থেকে ধেয়ে আসছে ধুলিঝড়

মাজিদ৯৯ সৌদি আরব থেকে ধুলিঝড়ের উপর তোলা ছবি পোস্ট করেছেন (আরবী ভাষায় বর্ণনা সহ)। এই ছবিগুলো তিনি বিভিন্ন ব্যক্তির কাছ থেকে সংগ্রহ করেছেন। অন্যদিকে ক্রসরোড অ্যারাবিয়ার জন বার্জেস বিভিন্ন সংবাদ সংস্থার থেকে পাওয়া ঝড়ের সংবাদ ব্লগে জুড়ে দিয়েছেন।

একই সময় কুয়েতি ব্লগার ফ্রাঙ্কোম অভিযোগ করেছেন:

এ বছরে কোন বৃষ্টি হয়নি। আমাদের শীতকাল থাকে ধুলোয় ভরপুর, আমাদের গ্রীষ্মকাল ধুলোময়, আমাদের বসন্ত আমাদের ধুলো দিয়ে যায়, আমাদের শরৎ ধুলোর শরৎ— কিন্তু আমি সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ দেই, কারন আমাদের অবস্থা অন্যদের চেয়ে ভালো।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .