বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মাদাগাস্কার: প্রহরীর পরিবর্তন?

মাদাগাস্কারের রাজনৈতিক সংকট এখন এক চরম অবস্থানে এসে পৌঁছেছে। রাষ্ট্রপতি মার্ক রাভালোমানানার শাষনকালের শেষ সময় শুরু হয়ে গেছে। তবে এখনও বিভ্রান্তি রয়ে গেছে আসলে বর্তমানে দেশটির ক্ষমতায় কে অবস্থান করছে। মনে হচ্ছে দেশটির সেনাবাহিনী রাজধানী আনতানানারিভোর প্রাক্তন মেয়র এন্ড্রি রাজোলিনার পক্ষ অবলম্বন করছে। প্রধানমন্ত্রীর অফিস এবং জাতীয় টেলিভিশন কেন্দ্র যথারীতি রাজোলিনার নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। মাদাগাস্কারের টুইটার ব্যবহারকারীরা ঘটনার তাজা বিবরণ দিয়ে এই জটিল রহস্য উন্মোচন করছে।

শনিবারে ঘটনার শুরু তখন, যখন রাজোলিনা মনোনীত প্রধানমন্ত্রী মোনজা রইনডেফো বর্তমান প্রধানমন্ত্রী চার্লস রাবে মানানজারার অফিসে হেঁটে যান এবং পুরো ভবনটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেন। ঘটনাটি ফরাসী ভাষায় বর্ণনা করছে ভারজিনিয়ে। নতুন প্রধানমন্ত্রী মোনজা ঘোষান দেন দেশের নিয়ন্ত্রণ এখন তার বাহিনীর দখলে। পরে সেদিন সকালে রি-হিটা জানান কয়েক সপ্তাহ ধরে লুকিয়ে থাকা রাজোলিনা প্যালেস দু ১৩ মাইতে আসেন এবং দাবী করেন রাভালোমানানাকে রাস্ট্রপতি পদ থেকে পদত্যাগ করতে হবে।

এর কয়েক ঘন্টা পরে মাদাগাস্কারের ওয়েব সাইট টপমাদা সরকারের একটি বিবৃতি পোস্ট করে (ফরাসী ভাষায়), যেখানে সরকার অস্বীকার করে যে বিরোধীরা দেশটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছে। সরকার সেখানে উল্লেখ করে, তারা এখনও বিরোধী পক্ষের সাথে আলোচনার পরিকল্পনা করছে ।

সংসদের নেতা জাক সীলা প্যালেস দু ১৩ মাই তে রাজোলিনার সাথে আলাপে বসেন এবং তাকে জাতির নতুন নেতা হিসেবে বর্ণনা করেন (মালাগাসী ভাষায়)।

বারিজোয়ানা লিখেছেন যে রাজোলিনা তার বক্তৃতায় অস্বীকার করেছেন যে তিনি রাভালোমানানার জীবন হরন করতে চেয়েছিলেন। এবং আবার উল্লেখ করেন তিনি রাষ্ট্রপতি ভবনে সৈন্য পাঠাননি কারন রক্তপাত চাননি তিনি। সিরিল ভানিয়ে এক তথ্যে জানাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি ভবন রক্ষা করার জন্য কয়েকশত লোক তার সামনে অবস্থান কর্মসূচী নিয়ে বসে আছে।

Armed Forces

থিয়েরি জানাচ্ছেন যে রাজোলিনা রাষ্ট্রপতিকে পদত্যাগ করার জন্য নির্দিষ্ট চার ঘন্টার সময় বেঁধে দেন। ভার্জিনিয়ে লেখেন ইতিমধ্যে লুটেরাদের দল রাষ্ট্রপতি ভবনে প্রবেশ করে। বর্তমানে প্রাসাদটি খালি পড়ে আছে কারন রাভালোমানানা এখন আইয়াভোলোহায় তার বাসভবনে অবস্থান করছেন।

রাভালোমানানার পদত্যাগ ছাড়াই চার ঘন্টা পার হয়ে যায়। থিয়েরি জানান সামরিক বাহিনী রাষ্ট্রপতির ভবন আক্রমন করবে না।

রোবাবার মালাগাসী ব্লগোস্ফিয়ার দারুন দুশ্চিন্তার মধ্যে দিয়ে অপেক্ষা করছিল পরিস্থিতির কতটা উন্নতি হলো তা দেখার জন্য। তারা তখনও নিশ্চিত ছিল না কে আসলে দেশটিকে নিয়ন্ত্রণ করছে।

এই সঙ্কট থেকে উত্তরনের জন্য রাভালোমানানা একটি গণভোটের প্রস্তাব দেন (ফরাসী ভাষায়)। তিনি তার অনুসারীদের সর্তক করে দেন এই সঙ্কট কেবল মালগাসীর জনগণের মধ্যে সীমিত নয় ।

আরিনিয়াইনা সন্দেহ করছিল যে জাতীয় বেতার তরঙ্গ আবার হয়ত চুরি হয়ে গেছে।

বারিজোয়ানা এবং রি_হিটা রাজোলিনা নিয়ন্ত্রিত জাতীয় টেলিভিশন থেকে প্রচারিত প্রথম সংবাদটি দেখছিলেনবারিজোয়ানা জানান যদিও টেলিভিশনে রাভালোমানানার ভাষণ দেখাচ্ছিল এবং জানাচ্ছিল যে তিনি পদত্যাগ করতে অস্বীকার করেছেন, তবে তার ভাষণে তিনি যে সংস্কারের কথা উল্লেখ করা করেন সেটি ভাষণ থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয় (ফরাসী ভাষায়)।

ওই সংবাদে আরও দেখানো হয়েছিল পদত্যাগ করা রাষ্ট্রপতির প্রহরীদের (একদিন আগে পদত্যাগ করেছিল) যারা সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছে। ডটএমজি জানাচ্ছে যে এই প্রাক্তন গার্ডেরা নাকি বলেছে যে প্রাসাদের সামনে অবস্থানরত রাভালোমানানার সমর্থকদের দরকার হলে জোরপূর্বক সেখান থেকে সরানো দরকার। তারা বলেছে যে সশস্ত্র লোকেরা এবং ভাড়াটে যোদ্ধারা সক্রিয় রয়েছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .