বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

পাকিস্তান: লং মার্চের লাইভ কাভারেজ

পাকিস্তানী আইনজীবিদের একটা অংশ আর রাজনৈতিক কর্মীরা বরখাস্ত করা বিচারকদের পুনর্বহালের দাবীতে তাদের অবস্থান ধর্মঘট এবং লং মার্চের কর্মসূচীর সব প্রস্তুতি শেষ করে ফেলেছে (১১ই মার্চ রাতে)। ১২ই মার্চ বিভিন্ন শহর থেকে একই সাথে লং মার্চ শুরু হবে আর রাজধানী ইসলামাবাদে এসে পৌঁছাবে ১৬ই মার্চে। পাকিস্তানে জনগণ বেশ উদ্বিগ্ন কারন বিরোধী দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ (নওয়াজ) এর প্রধান এবং ভূতপূর্ব প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ একে সমর্থন করেছে আর তার দল এই প্রতিবাদে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করবে। সম্প্রতি সুপ্রীম কোর্টের একটা রায়ে নওয়াজ শরিফ আর তার ভাইদের সাধারণ নির্বাচনে অংশগ্রহণে অযোগ্য ঘোষণা করে যেখানে তারা এরই মধ্যে নির্বাচিত হয়েছেন। এই রায়কে বলা হচ্ছে প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারীর ক্ষমতার লড়াইয়ের একটা অংশ হিসেবে জনাব শরীফকে চাপে রাখার কৌশল।

চুপ! চেন্জিং আপ পাকিস্তান জানিয়েছে যে লং মার্চের আগে, বিরোধী দলের কর্মী আর আইনজীবিদের উপর ধর পাকড় শুরু হয়েছে:

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে যে পাকিস্তানী পুলিশ বুধবার ধর পাকড় শুরু করেছে, ডজন ডজন বিরোধী দলের কর্মী আর আইনজীবিদের গ্রেপ্তার করছে আর লং মার্চের প্রাক্কালে বিক্ষোভ নিষিদ্ধ করছে।

পাঞ্জাব আর সিন্ধ এ তিন দিন আর পনের দিনের জন্য বিক্ষোভ আর মিছিল নিষিদ্ধ করে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

গত সোমবার, জারদারী মোবাইল কোর্ট প্রতিষ্ঠার একটি ডিক্রি জারি করেন যারা ঘটনাস্থলেই স্বল্প অপরাধের শাস্তি দিতে পারে। অবাক হওয়ার ব্যাপার না, বিরোধী দল সাথে সাথে ডিক্রির নিন্দা করে এই বলে যে মোবাইল কোর্ট আসলে ব্যবহার করা হবে লং মার্চের সময়ে কর্মী আর আইনজীবিদের দমন করার জন্যে।

আজকের অগ্রগতির কথা বিবেচনা করে, আশা করছি বিরোধী দল আর লং মার্চের জন্য আরো বেশী সমর্থন আসবে, কেবলমাত্র আইনজীবি আর বিরোধী দলের কর্মীদের কাছ থেকেই না, বরং সেই সব মানুষের কাছ থেকেও যারা জারদারীর অধীনে দেশের গন্তব্যে অসন্তুস্ট আর ক্রমে খারাপ হওয়া অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক আর নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়েও চিন্তিত।

আলি ইয়ার খান দ্যা পাকিস্তান স্পেক্টেটরে লিখেছেন:

যত মিথ্যাই বলা হোক না কেন, পিপলস পার্টির পাকিস্তানী প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারী দ্বারা আইনজীবি, রাজনৈতিক কর্মী আর সুধী সমাজের উপরে যতই নির্যাতন করা হোক না কেন, লং মার্চ হতে যাচ্ছে আর এটা হবে। ইসলামাবাদ থেকে মিছিল তৈরি বের হওয়ার জন্য। সব স্তরের মানুষ এই লং মার্চে আছে আর তারা সবাই প্রস্তুত সংসদ এভিনিউতে প্রতিবাদমূলক অবস্থান কর্মসূচীতে অংশ নিতে।

পাঞ্জাবের স্বরাষ্ট্র সচিব রাও ইফতেখার আহমেদ জানিয়েছেন যে পাঞ্জাবের বিভিন্ন শহর থেকে রেঞ্জারদের ঢাকা হয়েছে। তবে দরকার পড়লে সেনাকেও ঢাকা যাবে। রেহমান মালিক মানুষকে লং মার্চের সময়ে সন্ত্রাসী হামলার ব্যাপারেও ভয় দেখাচ্ছেন, কিন্তু বর্তমানে সন্ত্রাসী আর এইসব রাজনৈতিক গুন্ডারা যারা দেশটাকে জিম্মি রেখেছে তাদের থেকে নিরাপদ আছে কে?

টিথ মায়েস্ট্রোর সৌজন্যে লং মার্চ ২০০৯ অনুসরণ করা যাবে এখানে।

লাইভ কাভারেজ- http://cli.gs/LongMarch

আপনার ইন্টারনেট প্রযুক্তি সম্বলিত সেলফোনে দেখতে পারেন এখানে – http://cli.gs/LongMarchCell

ব্লগ- মার্চ ফর জাস্টিস!

ছবি/এসএমএস/এমএমএস/ইমেইল উপস্থাপিত আছে- http://longmarch.seenreport.com

মোবাইলের মাধ্যমে ছবি পাঠানোর জন্য longmarch@seenreport.com বা longmarch.cityname@seenreport.com এ মেইল করুন

এসএমএস এর মাধ্যমে আপডেট করুন ০৩৩২-৪৭৯৭৫৪৬ ‘লংমার্চ আপনার বক্তব্য’ ফরম্যাটে।

টুইটারে আপডেট – http://twitter.com/LongMarch অথবা টুইটার হ্যাশট্যাগের মাধ্যমে সার্চ করুন http://search.twitter.com/search?q=LongMarch এই ঠিকানায়।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .