বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

বলিভিয়া: টুইটারে গনভোট কাভারেজ

বলিভিয়ায় ভোটকেন্দ্র যখন বন্ধ হচ্ছে সংবিধান সংশোধনের গনভোটের পরে, দেশের অনেক টুইটার ব্যবহারকারী কঠোর পরিশ্রম করছেন তাদের শহরের অভিজ্ঞতা জানাতে বার্তা পাঠানো নিয়ে। তথ্যগুলো কেন্দ্রীভুত করার জন্য, তারা #গণভোট ট্যাগ ব্যবহার করছেন।

সারা দিনব্যাপী অনেকেই তাদের ভোটকেন্দ্র থেকে ফিরে টুইট করেছেন আর কাজের ব্যাপারে রিপোর্ট করেছেন। রোলান্ডো এস্পিনোজা (@ডার্ক্রো) কোচাবাম্বার বিরোধী তরুণ দলের কথা লিখেছেন, তিনি যে স্কুলে ভোট দিয়েছেন তারা সেখানে ছিল:

vote1

# গনভোট সিবিবিএ (কোচাবাম্বা) জেভেন্তুদ কোচালা (তরুণ দল) প্রতিনিধীদের তালিকা লোইয়োলা স্কুল থেকে সংগ্রহ করছে।

লা পাজে, ইলায়না কুইরোজ (@ ই_লিয়ানা) লিখেছেন নাগরিক দায়িত্ব পালনের পরে অনেকে কিভাবে তাদের দিন কাটাচ্ছেন

Vote2

কেউ কেউ সাজতা দে পোলো ( মুরগীর খাবার) খাচ্ছেন আর অন্যরা কোকা কোলা খাচ্ছেন লা পাজের হাই স্কুলে ভোট দেবার পরে।

তিনি টুইটপিকে একটা ছবিও দিয়েছেন তার কালি মাখানো আগুলের দেখাতে যে তিনি ভোট দিয়েছেন।

কিছু ভোটার ভোটের দিনে নিজেদের বাড়ী থেকে অনেক দূরে ছিলেন। মারিও সেজার সেনোরানিস (@ মারিওসেজার_বো) সান্তা ক্রুজের এখন দেশের অন্য দিকে লা পাজে আছেন আর ঠিক জানেন না যে তিনি ভোট দিতে পারবেন কিনাঃ

vote3

আমি জেগে উঠছি উ উ.. আমি এখনো জানি না গনভোটের জন্য ভোট দেয়ার সার্টিফিকেট কোথা থেকে আনতে হবে, আমার উচিত ছিল সান্তা ক্রুজে ভোট দেয়া, কিন্তু আমি লা পাজে আছি।

আল মিনুটো সাইট একটা বিশেষ টুইটার আকাউন্ট খুলেছে @রেফারেন্ডাম বো সংবাদ, ঘটনার লিঙ্ক শেয়ার করার জন্য আর একটা কভার ইট লাইভ প্রযুক্তি দিয়েছেন লাইভ চ্যাট আর কিছু টুইটের পুন:প্রকাশের জন্য।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .