বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

কাজাখস্তানঃ লাইভ জার্নাল অবমুক্ত এবং রুদ্ধ পুনরায়

জানুয়ারীর ২৮ তারিখে কাজাখস্তানের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের লাইভ জার্নালে হঠাৎ করে আবার প্রবেশাধিকার দেয়া হয়। ভূতপূর্ব সোভিয়েত রাশিয়ার কথা বলার জন্য তৈরী ব্লগগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় হচ্ছে এই লাইভ জার্নাল প্লাটফর্ম। এটি জাতীয় আইএসপি কর্তৃক গত বছরের অক্টোবর মাসের ৭ তারিখে অজানা কারনে বন্ধ করে দেয়া হয়–ফিল্টারিংয়ের এই ঘটনাকে “কাজাখটেলিকম” কখনই স্বীকার করে নাই।

আমরা লাইভ জার্নালের ফিল্টারিং এড়িয়ে ঢোকার জন্য বিভিন্ন প্রযুক্তিগত কৌশল প্রয়োগ করেছি। জানুয়ারীর ২৮ তারিখে এটা অবমুক্ত করে দেয়া হয়। আমরা জানি না – ঠিক কে এটাকে ফিল্টার করা এবং পুনরায় খুলে দেয়ার সিদ্ধান্তটা দিয়েছিল। আমরা এও জানিনা যে কতক্ষণ এটাতে আমাদের মুক্ত প্রবেশাধিকার থাকবে। হয়তো আমি চিৎকার করে বলতাম ‘ কি মজা!’, কিন্তু কিছু কারনে আমি কটুক্তি করতে চাচ্ছি।

জানিয়েছেনছেন ইভ।

অনেক ব্লগার এমন অপ্রত্যাশিত খুশীতে মেতে উঠায় বিশ্বাসী নয় যে তাদের লাইভ জার্নাল উত্তেজনা পূর্ণ পোষ্টে ভরে উঠবে। অবিশ্বাসীরা এখনও সন্দেহপ্রবণ এবং লর্ড-ফেম তাদেরই একজন।

আমি ১ এর উপর ১০ বাজী ধরতে রাজী আছি যে তারা ব্লগটিতে ‘বাগ’ পাবে এবং পুনরায় বন্ধ করে দেবে।

গ্রাভেরিক যুক্ত করেছেনঃ

কাজাখটেলিকমের কোথাও সামান্য কোন ক্রুটি ঘটেছে বলে সন্দেহ আছে। যা খুব শীঘ্রই দূরীভূত হবে।

এটাই সেটা যা প্রকৃতপক্ষে পরবর্তী দিনের সন্ধ্যার মধ্যে ঘটেছিল। সাইবার গরিনিচ বলে যে কাজাখটেলিকমে যন্ত্রপাতি আপগ্রেডের কাজ চলেছিল, যখন লর্ড অফ সাইলেন্স এটাকে ব্যাখা করে লাইভ জার্নালের নিজের আইপি এড্রেস পরিবর্তন সম্পর্কিত ধারণা দিয়ে, যে কারনে ব্যবহারকারীদের জন্য এটি সাময়িক সময়ের জন্য অবমুক্ত হয় কিন্তু পরে সেটাকে আবার ফিল্টার করে দেয়া হয়।

আমাদের মনে রাখতে হবে যে এই হৈচৈ ইন্টারনেট রীতিনীতির খসড়া আইনের বিরুদ্ধাচারণ করছে যে আইন বর্তমানে সংসদের বিবেচনাধীন আছে।

পালমেটচিজ্জা মন্তব্য করেনঃ

এই আইন যদি গ্রহণ করা হয় তবে কোন কোন ওয়েবসাইট কাজাখাস্তানী নাগরিকদের খোলা উচিৎ এবং কোন কোন ওয়েবসাইট নিষিদ্ধ হবে তা নির্ধারিত হবে। কাজাখটেলিকম যেটা বেআইনীভাবে করেছে এবং করেছে লাইভজার্নালের সাথে চতুরতার সাথে সেটা অন্য যেকোন ওয়েবসাইটের সাথেও হতে পারে এবং সেটা আইনগত ভাবেই। জাতীয় নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে ওয়েবসাইট এর মালিককে কোন নোটিশ প্রেরণ ব্যতিরকে এইরূপ সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রসিকিউটর।

কাজাখস্তান এ লাইভ জার্নাল বন্ধ রাখার প্রাথমিক প্রতিবেদন পাবেন এখানে এবং এখানে

লেখাটি এছাড়াও নিউইউরেশিয়াতে প্রকাশিত হয়েছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .