বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

উগান্ডা: পাহাড়ী গরিলার সংখ্যা হয়তো কমে আসছে

পাহাড়ী গরিলাআমরা সব সময় জেনে এসেছি যে এখনও পৃথিবীর বিভিন্ন জঙ্গলে ৭০০ পাহাড়ী গরিলা (আকারে সবচেয়ে বড় এবং শক্তিশালি গরিলা) জীবিত আছে, যার মধ্যে ৩৩৬ টি বর্তমানে বাস করছে উগান্ডায়। কিন্তু নিউ সায়েন্টিষ্ট পত্রিকায় প্রকাশিত এক নিবন্ধ নির্দেশ করছে সংখ্যাটি যতটা আশা করা হয়েছিল তার চেয়ে কমই।

ধারণা করা হয় ৩৩৬ টি গরিলার বাস উগান্ডার বুইন্ডি সংরক্ষিত জাতীয় পার্কে। সেখানে গরিলার সংখ্যা পরিমাপের জন্য এক বিশেষ পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে। এই পদ্ধতিতে দেখা হয় এই রাজকীয় বানর প্রজাতিরা প্রতিরাতে কতটি বাসা বানায়। এখন নতুন এক গবেষণা ধারণা দিচ্ছে যে বাসা দিয়ে গরিলা গোনার পদ্ধতিতে গরিলার সংখ্যা বেশী ধারণা করা হতে পারে, বিশেষ করে যখন একটি গরিলা এক রাতে একের বেশী বাসা বানাতে পারে।

পাওলা কাহুমবু গরিলা রক্ষা ব্লগে লিখছেন এই রিপোর্ট সমন্ধে:

সম্প্রতি জার্মানির লাইপজিগে অবস্থিত ম্যাক্স প্লাঙ্ক ইনিস্টিউিট ফর এভালিউশনারি এনথ্রোপোলজির ক্যাটেরিনা গুসচেনস্কি গরিলার মল থেকে পাওয়া ডিএনএ পরীক্ষা করে আবিস্কার করেছেন আসলে অনেক কম মাউন্টেন গরিলা অবিশিষ্ট রয়েছে। তিনি ৩০২ টি আলাদা জেনেটিক কোড বা জীনের ধারক বিশিষ্ট গরিলা পেয়েছেন। তিনি ধারনা দেন বাসা হিসেব করে গরিলার সংখ্যা বের করার মধ্যে দিয়ে পরিমানের চেয়ে বেশী গরিলা জীবিত আছে বলে ধরে নেওয়া হয়েছে, কারণ কিছু গরিলা এক রাতে একের বেশী বাসা বানায়।

এর আগে ২০০৭ সালে এক ডিএনএ গবেষণায় দেখা গেছে এই এলাকায় ৩৪০ টি গরিলা রয়েছে। এই ঘটনা একটা ধারণা দিচ্ছে যে বুইন্ডি বাসীর গরিলার সংখ্যা শতকরা ১০ ভাগ কমে গেছে। তবে বিজ্ঞানীরা সর্তক এবং এখনই গরিলার জনসংখ্যা কমে যাওয়া বা স্থির থাকার ঘোষণা দিতে রাজী নয়।

পাওলা বলেন:

বুইন্ডির এই গরিলা জনগোষ্ঠী কমে যাওয়া কোন ভালো সংবাদ নয়। তবে এটি সত্যি যে বুইন্ডির গরিলা জনগোষ্ঠী ক্রমশ: কমে আসছে। এটি আসলে পাহাড়ী গরিলাদের জন্য দু:সংবাদ। ধারণা করা হচ্ছে সারা পৃথিবীতে এখন কেবল ৭০০ টি পাহাড়ী গরিলা টিকে আছে। বিষয়টি জানায় যে গোটা পৃথিবীর গরিলার সংখ্যা শতকরা ৫ ভাগ কমে এসেছে।

পাহাড়ী গরিলা২০০৯ এর ২রা জানুয়ারীতে লর্ডস রেজিস্ট্যান্স আর্মি (এলআরএ) গারাম্বা ন্যাশনাল পার্কে আক্রমণ করার পর মৃত্যু সংখ্যা এখন পর্যন্ত বেড়ে ১০-এ এসেছে। পূর্বে এ সম্বন্ধে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে ১৪ জানুয়ারী এবং ১১ জানুয়ারীতেবারাজা ব্লগে প্রকাশিত সংবাদ অনুয়ায়ী তিনজন এখনও নিখোঁজ। পরিস্থিতির শিকারদের চিহ্নিত করা হয়েছে এবং যারা মারা গেছে, আহত হয়েছে এবং হারিয়ে গেছে বারাজা তাদের জন্য এক বিশেষ ব্লগ পোস্ট করে তাদের তালিকা তৈরী করেছে।

গেরিলা রক্ষা ব্লগ লরা এনকুনডার আটক হওয়া নিয়ে মন্তব্য করেছে। কঙ্গোর দলত্যাগী এই জেনারেল এবং বিদ্রোহী নেতাকে রুয়ান্ডার সামরিক বাহিনী গ্রেফতার করে। এই ঘটনাটিও আসলে গেরিলা সংরক্ষণের জন্য ভালো।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .