বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মাদাগাস্কার, কেনিয়া প্রশ্ন করছে বিদেশের সাথে ভূমি চুক্তির বিচক্ষণতা নিয়ে

জাতীয় আর আন্তর্জাতিক ক্ষোভের মুখে পরিশেষে বাতিল হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার ডেইউ লজিস্টিক্সের মাদাগাস্কারের বিশাল একটা চাষভূমি লিজ নেয়া সংক্রান্ত ভূমি চুক্তি। খাদ্য ঘাটতি মোকাবেলার জন্য ধনী দেশ আর উন্নয়নশীল দেশের মধ্যে কথিত ভূমিচুক্তির পরিমাণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। শোনা যাচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাত আর সুদানের মধ্যে একই ধরনের চুক্তি হচ্ছে।

Madagascar
তানানারিভো-তামাতাভে সড়ক নির্মানের একটি সাইট। ছবি ফোকো মাদাগাস্কারের সৌজন্যে।

দ্যা গার্ডিয়ান আর দৈনিক নেশনে প্রকাশিত হয়েছে সাম্প্রতিক কালের সব থেকে অনুমিত চুক্তিটি সম্পর্কে – কেনিয়া ৪০,০০০ হেক্টর (প্রায় ১লাখ একর) জমি কাতারের কাছে লিজ দিচ্ছে। এই জমির বদলে কাতার কেনিয়াকে লামু দ্বীপে একটি নতুন বন্দর নির্মানে টাকা দেবে (২.৪ বিলিয়ন স্থানীয় মুদ্রা)।

এই চুক্তি ওপালোর ক্রোধকে জাগিয়ে তুলেছে। এই কেনিয়ান ব্লগার ভয় পাচ্ছেন যে নতুন ধরনের এক উপনিবেশবাদ তৈরি হচ্ছে:

এরপর কি হবে যখন আমরা বেশীরভাগ কেনিয়ার ভুমিকে বেঁচে দেব কাতার, চীন, ভারত, ইউএই, সৌদিদের কাছে বা অন্য কারো কাছে যারা সম্মত আছে টাকা দিতে এইসব গুন্ডাকে, যাদেরকে আমরা বিশ্বাস করেছি আমাদের রাজনৈতিক নেতৃত্ব দিয়ে? আমরা কি আবার ভূমিহীন হব? আমাদেরকে কি আবার ‘নি:স্ব বালক’ বলে ডাকা হবে?

তিনি যোগ করেছেন:

“আর কেনিয়ার কোটিপতিরা এখন কোথায়? তাদের কি সামর্থ নেই এই ধরনের কাজে অর্থ লগ্নী করার? কিসের জন্য তারা অপেক্ষা করছে?”

মালাগাসী ব্লগাররা এখনো প্রায় হয়ে যাওয়া কোরিয়ার চুক্তির আবেশে ঘুরছে। ফ্রান্সে মালাগাসী প্রবাসী সংঘ সেফাফি কিছু চিন্তাবিদদের কাজে লাগিয়েছিল আলোচনা করতে যে সব থেকে ভালো কোন নীতিতে কাজ করা যায় মাদাগাস্কারে ভূমি নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে। মাদাগাস্কার নিয়ে ইয়াহুর একটা ফোরামে, সেফাফি একটা লেখা পোস্ট করেছে যেখানে ব্যর্থ চুক্তি আর তা থেকে কি শেখা যায় তা বলা হয়েছে (ফরাসী ভাষায়):

Les démentis officiels n’ont cependant pas levé toutes les appréhensions. Vraies ou fausses informations, des leçons doivent être tirées de l’affaire Daewoo. La première leçon à en tirer est, une fois de plus, le manque de transparence pour des opérations qui engagent les ressources naturelles du pays. La prétendue gratuité du bail de 99 ans ou même une éventuelle contrepartie sous forme d’infrastructures ne fait qu’aviver les soupçons d’existence de contreparties secrètes au profit
d’intérêts particuliers et au détriment de la collectivité nationale.

সরকারীভাবে চুক্তিটিকে অগ্রাহ্য করলেও তা সকল ভীতি নস্যাৎ করতে সমর্থ হয়নি। এই তথ্য সত্যি হোক বা না হোক, ডেইউ চুক্তি থেকে গ্রহণ করার মতো কিছু শিক্ষা আছে। প্রথম শিক্ষা হলো, আর এক বার দেশের প্রাকৃতিক সম্পদ দেখাশোনায় স্বচ্ছতার অভাব দেখা গেছে। কথিত মুক্ত ৯৯ বছরের ভূমি লিজ বা কোন নির্মাণের বদলে কোন চুক্তি শুধুমাত্র ওই সন্দেহ জাগিয়ে তুলেছে যে এর ভেতর আরও কিছু গোপন চুক্তি আছে যা বিশেষ স্বার্থ উদ্ধারের জন্য এবং দেশের জনগনের স্বার্থের পরিপন্থী।

সেফাফি একটা সমস্যা দেখছে যা অর্থনীতি বা উৎপাদনের হিসাবের বাইরে। সেফাফি জানিয়েছে যে মাদাগাস্কারের ৭০% জনগণ গ্রামে থাকে। যেহেতু কৃষকরা তাদের নিজস্ব ধারার জীবনের ধরনের সাথে ভয়ঙ্করভাবে যুক্ত, তাই তারা বিশাল আকারে উৎপাদনের সাথে যুক্ত হতে কম আগ্রহী আর এই ধরনের বিশাল চুক্তি কৃষকদের সত্যিকারের চাহিদা বুঝতে ব্যর্থ হয়। এই লেখা অগ্রগামী সংস্কারের পক্ষে কথা বলেছে (ফরাসী ভাষায়):

Si l’objectif est bien de donner à l’ensemble du monde rural les moyens de gérer son propre avenir, les opérations ponctuelles de fermes pilotes ou d’élevages modèles, gérées par des groupes étrangers soucieux des paysans malgaches et donc respectueux d’une véritable démarche sociétale, seront les bienvenues. Sans empiéter sur les terres des paysans ni aliéner le patrimoine national, elles pourraient devenir un facteur d’entraînement et préfigurer ainsi l’agriculture malgache de demain.

লক্ষ্য যদি হয় গ্রামের মানুষকে সত্যিকার অর্থে তাদের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করতে দেয়া, তাহলে উচিৎ সময় মতো মডেল খামারের কাজ চালানো যা বিদেশী বিনিয়োগকারী নিয়ন্ত্রণ করবে। আর যারা মালাগাসী কৃষকদের কথা চিন্তা করবে আর তাদের অগ্রগতির সামাজিক সংস্কারের পক্ষে থাকবে তেমন বিদেশী বিনিয়োগকারী স্বাগত। কৃষকের জমি বা জাতীয় পৈতৃক সম্পত্তি দখল না করে এইসব বিনিয়োগকারীরা মাদাগাস্কারের কৃষির ভবিষ্যৎের জন্য একটা বিশাল শক্তি হতে পারে।

একই ইয়াহু ফোরামে, গাজেটি নোসিন্টসিকা উদ্ধৃতি দিয়েছেন ফ্রান্সের লো মন্ড পত্রিকা থেকে একটা প্রতিবেদনের যেখানে বিশ্বায়ন ও বাণিজ্য এবং খাদ্য সংকটের উপর তাদের প্রভাব নিয়ে আলোচনা করে এমন একটি রিপোর্টের কথা বলা হয়েছে। এটি লিখেছেন অলিভার দে স্কুটার, যিনি জাতিসংঘের খাদ্য অধিকার সংক্রান্ত সংস্থার বিশেষ তদন্তকারী। এই রিপোর্টে বলা হয়েছে যে উন্নয়নশীল দেশের কৃষির জন্য বর্তমান অবস্থা বেশ বিপদজনক কারন আমদানীর উপর নির্ভরতা ক্রমে বৃদ্ধি পাচ্ছে:

On leur a promis qu'avec les devises ainsi engrangées, ils pourraient importer de quoi nourrir leur population pour un prix inférieur à ce qu'ils auraient pu produire eux-mêmes. Problème : on a engendré leur dépendance par rapport à des indices boursiers de plus en plus volatils. Après une baisse des cours de leurs produits, ils ne peuvent plus payer leurs importations, dont la valeur a, elle, été parfois multipliée par cinq ou six.

আমরা তাদেরকে কথা দিয়েছিলাম যে, যে বৈদেশিক মুদ্রা পাব তা দিয়ে তারা তাদের জনগণের চাহিদা অনুযায়ী তারা যে দামে উৎপাদন করবে তার থেকে কম মুল্যে আমদানী করতে পারবে। একটা সমস্যা অবশ্য এখানে আছে: আমরা নিয়ত পরিবর্তনশীল একটা বাজারের প্রতি নির্ভরতা তৈরী করেছি। যখন তাদের পণ্যের মূল্য কমে যায়, তখন তারা আর তাদের আমদানীর মূল্য দিতে পারেনা যার মুল্য পাঁচ ছয়গুন বৃদ্ধি পেয়েছে।

পরিশেষে তারু টেইলর দক্ষিণ কোরিয়া থেকে ডেইউ চুক্তি নিয়ে তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন যে এটা ভূমি চুক্তিতে একটা অনন্য সাধারণ পদক্ষেপ:

যদিও জেফারসন আর হ্যামিল্টনের সমকক্ষ না, চোয়ে চিউ আর পার্ক চুওং হি কোরিয়ার নিয়তির মধ্যস্ততাকারক। টঙ্ঘাক হচ্ছে একটা দ্বার, সাম্রাজজ্যবাদ আর একটা। ভূমি নায়ক আর পুঁজিবাদী একনায়কের মধ্যে ‘প্রজাতন্ত্রী কোরিয়া’ আর ‘সাম্রাজ্যবাদী কোরিয়া’ হচ্ছে বিতর্কের বিষয়। গোমাংস নিয়ে বিক্ষোভ চোয়ে চিউকে নিয়ে তর্ক করে; টঙ্ঘাকের ক্ষেত্রে; কোরিয়ার জন্য লুক স্কাইওয়াকার, জেডি নাইটের মতো। কিন্তু মাদাগাস্কারের চুক্তি পার্ক চুইং হির জন্য যুক্তি দেখায়; সাম্রাজজ্যবাদী কোরিয়ার ক্ষেত্রে; সেই কোরিয়ার জন্য যেমন আনাকিন স্কাইওয়াকার নে সিথ লর্ড দার্থ ভাদের।

আয়েশা সালদানহা আর এলিয়া ভারেলা সেরা এই প্রতিবেদনে লিঙ্ক দিয়ে সাহায্য করেছেন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .