বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মাইকেল জ্যাকসন ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন

পপের বাদশা মাইকেল জ্যাকসন আবার শিরোনামে এসেছেন আর মধ্য প্রাচ্যের ব্লগগুলো তার কথিত ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার গুজব নিয়ে রসালো মন্তব্য সরব হয়ে আছে। জ্যাকসনের ধর্মান্তর কি আমেরিকা কর্তৃক ‘ইসলামকে ভিতর থেকে ধংস করার’ চক্রান্তের অংশ, এটা কি মিডিয়ার স্ট্যান্ট নাকি শেষ পযন্ত তার ভবোদয় হয়েছে এ নিয়ে বিতর্কের অন্ত নেই।

মিশর থেকে দ্যা স্কেপ্টিক মন্তব্য করেছেন:

লন্ডনের সান আর আর একটু নামকরা টেলিগ্রাফ পত্রিকা জানিয়েছে যে মাইকেল জ্যাকসন ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। দুটি পত্রিকাতেই জ্যাকসনের ছবি ছাপা হয়েছে বাহরাইনে জোব্বা গায়ে ঘোরা অবস্থায়।

আমার মনে হয় রান সিএমডি সব থেকে ভালো কথা ইমেইলে বলেছেন: “এটা অবশ্যই আমেরিকার একটা শয়তানী পরিকল্পনা ইসলামকে ভিতর থেকে ধংস করার। মাইকেল জ্যাকসন ডিক চেনীর হয়ে কাজ করছে। এটা এখন পুরোটাই বোঝা যাচ্ছে।”

কুয়েত থেকে লফট৯৬৫ জানিয়েছে:

এই প্রতিবেদন অনুসারে মাইকেল জ্যাকসন ধর্মান্তরিত হয়েছেন। এইসব গুজব অনেক দিন ধরে চলছে, কিন্তু মনে হচ্ছে এটা সত্যি কারন সব কটা সংবাদসংস্থা এটা নিয়ে কথা বলছে। এটা শুরু হয়েছে জারমেইন জ্যাকসনকে দিয়ে আর তারপর তার অনেকদিন বাহরাইনে থাকা আর এখন তার নাম নাকি হয়েছে মিখাইল। আমি বুঝতে পারিনা যে নাম কেন পাল্টাতে হবে ধর্মান্তরিত হলে। এটা তো বাধ্যতামূলক না। আর তার তো পৃথিবীর সব থেকে পরিচিত নাম। আমি জানিনা এটা নিয়ে কি ভাবতে হবে তবে তাকে বোরখাতে ভালোই লাগে।

আর একজন কুয়েতি ব্লগার সাম কন্ট্রাস্ট এই ব্যাপারে আরও কথা বলেছেন।

আর ফিলিস্তিনি-আমেরিকান ব্লগ কাবোবফেস্ট লিখেছে জ্যাকসনের কথিত ধর্মান্তর নিয়ে আর একজন বাহরাইনি প্রিন্স শেখ আব্দুল্লাহ বিন হামাদ আল খালিফা এর সাথে তার আদালতের মামলা নিয়ে। খালিফা এক বাহরাইনি রাজার ছেলে যিনি পপের বাদশার বিরুদ্ধে ৭ মিলিয়ন ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা করেছে। খবর বেরিয়েছে যে এই ব্যাপারটা আদালতের বাইরে সমঝোতার মাধ্যমে সমাধান হয়েছে।

কালাশ তার পোস্টে বলেছেন:

আপনারা হয়তো মাইকেল জ্যাকসনের সাম্প্রতিক মামলার কথা শুনেছেন একজন বাহরাইনি প্রিন্স তাকে মিলিয়ন মিলয়ন ডলার দিয়েছিল একটা এলবাম আর বইয়ের জন্য যা কখনো নির্মিত হয়নি। আপনারা যা হয়তো জানেননা তা হলো জ্যাকোর কাছে একটা বড় চাল ছিল…

পপের বাদশা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। আমি এই ব্যাপারে গুজব শুনেছি যবে থেকে সে মধ্য প্রাচ্যে এতো সময় কাটানো শুরু করেছিলেন, কিন্তু সাম্প্রতিক প্রতিবেদনের ব্যাখ্যা ভাবনার খুব কম অবকাশ রাখেনি। তিনি তার নাম পাল্টিয়ে মিখাইল পর্যন্ত রেখেছেন। আামার মনে হয় তিনি জিহোবার স্বাক্ষীগুলো থেকে পরিত্রাণ পেতে চেয়েছিলেন।

জর্ডানের ব্লগার কিঞ্জি এই পোস্টের ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন:

আমি এটা নিয়ে ব্লগ করতে প্রায় যাচ্ছিলাম, যদিও এটা আমার কাছ থেকে না আসা ভালো। মাব্রুক( অভিনন্দন), ইসলামের উম্মাহ। কি পুরষ্কার। সৌভগ্য তাকে যে তাকে চালাবে। কাজের মতো কাজ, অবশ্যই।

কিন্তু আমেরিকান মুসলিম গার্ল যোগ করেছেন:

আপনারা জানেন… তার জন্য আমার খারাপ লাগছে আর নিশ্চয় তার কিছু আছে, কোন ব্যাপার বা অন্যান্য কিছু, কিন্তু…

আমি জানি না…আমি কাউকে ফিরিয়ে দিতাম না, বিশেষ করে একজন যার অনেক ‘অনুগামী’ আছে।

এস্রা হচ্ছে বাহরাইনের এক ব্লগার, তার দেশে জ্যাকসন এক বছর ধরে থেকেছেন আর যেখানে রাজ পরিবারের একজন আদালতে মামলার ঝামেলায় আছেন যা ৫০ বছরের এই পপ তারকাকে সংবাদপত্রের শিরোনামে আবার জায়গা করে দিয়েছে। মিডইস্ট ইউথ ব্লগে এস্রা জানিয়েছেন: ইসলাম জিতেছে: মাইকেল জ্যাকসন ধর্মান্তরিত হয়েছেন

তিনি বলেছেন:

“এই একটা হাত মোজা পরা রোমাঞ্চকর তারকা স্থানীয় একজন প্রিন্স কর্তৃক মামলার সম্মুখীন হয়েছেন গান রেকর্ড না করে কোন একটা “চুক্তি” খেলাপের জন্য। এটা না যে কেউ গ্রাহ্য করে যে সে কি করলো। কিন্তু মাঝে মাঝে আমি করি, কারন তার ব্যাপারে আবিষ্ট হয়ে আমি বড় হয়েছি। তখন আমি ঠিক জানতাম না যে সে স্বেতাঙ্গ না কৃষ্ণাঙ্গ নাকি এটা ‘নিষিদ্ধ’ ছিল তাকে কার্যত পুজা করা যেহেতু সে প্লাস্টিকে পরিণত হয়েছিল। বা একজন নারীতে।

সে এখন কার্যত ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হচ্ছে। আমি এখনো তাকে ‘অগ্রাহ্য’ করার শ্রেণীতে আছি।

এস্রা দুই বছর পুরানো একটা শ্লেষপূর্ণ চিঠি খুঁজে পেয়েছেন, যেখানে কাল্পনিক একজন জ্যাকসন পৃথিবীর উদ্দেশ্যে লিখেছেন। চিঠিতে, এস্রা লিখেছেন:

আমি ভীত যে আমাকে আইনতভাবে যে কোন খেলার মাঠের কাছে যেতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে আমার প্যান্ট নিয়ে দূর্ভাগ্যজনক ভুল বোঝাবুঝির জন্য। মিডিয়া থেকে এই কাহিনী অনেক মনোযোগ পেয়েছে। বেশী উৎসাহী মিডিয়ার ব্যাপারে বলতে গিয়ে, আমি জানি না কেন সারাক্ষণ ক্যামেরা আমাকে ঘিরে থাকে। আমি নিশ্চিত যে বাহরাইনের ছেলে মেয়েরা সেই ধরনের ঘোলাটে ছবি দেখতে চায় না যেখানে আমাকে আমার শোবার ঘরে তাদের রাজার বাঁধানো একটা ছবি নিয়ে আছাড় খেতে দেখা যাবে।

আমি আবায়া (বাহরাইনের মহিলারা যে কালো বোরখা পরে) পরা শুরু করেছি।

ইজরায়েল থেকে ইজরায়েলি কুল আমাদের শেষ ব্যক্তি, যে লিখেছেন:

ইসলাম ধর্মে একজন নতুন, তারকা নিয়োগ হয়েছে..মিখাইল? শুনলে মনে হচ্ছে তিনি রাশিয়ান গুন্ডাদের নেতা হিসাবে নিজেকে পরিণত করেছেন।

কিন্তু যদি আসলেই জ্যাকসন ইসলামে ধর্মান্তরিত হয়ে থাকেন, আমি ভাবছি যে তিনি তাহলে কি তার পুরানো কিছু গানকে তার নতুন বিশ্বাসের সাথে খাপ খাওয়ানোর চেষ্টা করবেন। আমি ভাবছি বিট ইট প্রধান একটা প্রতিদ্বন্দ্বী হবে।

এই পোস্টের উপর মন্তব্য করতে গিয়ে টেকিনিউজ জানিয়েছে:

আহারে বেচারা ইসলাম, আমি নিশ্চিত তারা নাটুকে জ্যাকোকে তাদের সাথে যুক্ত করতে চায়নি। আর হাস্পাতালের মাস্কের বদলে বোরখা পরে মুখ ঢাকার এটা কি তার নতুন বাহানা? বোকা জ্যাকো, মেয়েরা বোরখা পরে, ছেলেরা নয়।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .