বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

সৌদি আরব: সীট বেল্ট লাগানোর একটা শিক্ষা গড়ে উঠছে

সৌদি ব্লগার আহমেদ ওমার বাহবুদ তার কৃতকর্ম নিয়ে গর্বিত। তিনি তার মেয়ে জুরিকে সাবধানতা আর সীট বেল্ট বেঁধে গাড়ীতে বসার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে ধারণা দিয়েছেন আর এখন তার ভালো ফল গ্রহন করছেন।

তার ব্লগ লিভিং ইন কেএসএ তে বাবুদ নীচের গল্পটা বলেছেন:

دائماً نحرص على أن تجلس جوري في الكرسي الخاص بها في السيارة و أن تربط حزام الأمان. بما إنا متعودة على الموضوع من الصغر فهي لا تعترض على هذا الأمر إلا في حالات نادرة جداً و يتم التعامل الحازم مع مثل هذا الرفض. بالأمس رأيت فائدة تعويد الأطفال على أمر كهذا، فقد كنا في مدينة الملاهي الموجودة داخل مركز المارينا مال في الدمام. جوري لعبت في لعبتين و في كلتا الحالتين بادرت هى بنفسها بربط حزام الأمان الموجود في اللعبتين مع إن عمرها تجاوز الثالثة ببضعة أشهر فقط. كنت سعيد، بل أستطيع ان أقول فخور بصغيرتي التي تعودت على أمر لازال بعض الكبار يرفضونه و بشراسه!.

আমরা সব সময়ে লক্ষ্য রাখতাম যেন জুরি গাড়ীতে তার আসনে বসে নিরাপত্তা বেল্টটা লাগায়। আর যেহেতু শিশুকাল থেকে সে এটা করে অভ্যস্ত, সে খুব কম সময়েই এটার বিরুদ্ধে অভিযোগ করে। আর যখন করে তখন তার না বলাকে আমরা শক্ত হাতে দমন করি। গতকাল আমি দেখেছি বাচ্চাদের এই অভ্যাস শিক্ষা দেয়ার সুফল। দাম্মামের মারিনা মলের বাচ্চাদের খেলাধুলার জায়গায় আমরা গিয়েছিলাম যেখানে জুরি দুইটা রাইড উপভোগ করলো। উভয় ক্ষেত্রেই সে তার নিরাপত্তা বেল্ট নিজে থেকে লাগিয়েছে- যদিও সে তিন বছর থেকে কয়েক মাস বড় মাত্র। আমি খুশী হয়েছি। আমি বলতে পারি যে আমি আমার ছোটটার জন্য গর্বিত, যে এখন একটা কাজ করতে অভ্যস্ত যা অনেক বড়রাও পালন করতে অস্বীকৃতি জানায়।

যদিও সব আরব দেশেই আইন আছে গাড়িতে নিরাপত্তা বেল্ট লাগানোর ব্যাপারে, অনেকেই এই আইনের পাত্তা দেয়না আর শুধুমাত্র কোন পুলিশকে দেখলে বেল্ট লাগায়।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .