বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

প্যালেস্টাইন: যেসব বাচ্চারা মজা করতে ভুলে গিয়েছে

গাজার বিদ্যমান (সংঘাতময়) পরিস্থিতি জীবনের সব ক্ষেত্রে আর সব বয়সের লোকের উপর প্রভাব ফেলেছে। ব্লগার সামাহের আল খাজান্দার একটি কিন্ডারগার্টেনের কথা বর্ণনা করেছেন যাদের স্কুলের বছর শেষের পার্টি করতে সমস্যা হয়েছিল।

সামাহের বলেছেন:

في الأوضاع العادية تقوم رياض الأطفال بتنظيم حفل ختامي لسنة طويلة من اللعب وتلقي الأساسيات التمهيدية للدخول في عام دارسي مدرسي قادم. لكن هذا العام لم تكن الأوضاع عادية ولم تستطع الكثير من الروضات تنظيم الحفل لأن الكثير من الأهالي لم يتمكنوا من دفع عدد من الدفعات الشهرية المستحقة لرياض الأطفال. ولأن الروضة كمشروع ربحي في معظم الأحيان تكون قد خرجت بخسارة كبيرة، تحجم عن خسارة جديدة بتحمل نفقات الحفل ولو كانت بسيطة.

সাধারণ পরিস্থিতিতে, বছর জুড়ে কিন্ডারগার্টেনরা বিভিন্ন খেলাধুলার মাধ্যমে বাচ্চাদের তাদের স্কুলের প্রথম বছরে সাহায্য করার মতো সাধারণ জিনিষ শেখানোর পর একটি সমাপনী পার্টির আয়োজন করার চল আছে। কিন্তু এই বছরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক ছিলনা, আর কিছু কিন্ডারগার্টেন পার্টি করতে পারেনি কারন অনেক অভিভাবক কিন্ডারগার্টেনের মাসিক বেতন শোধ করতে পারেনি। আর যেহেতু কিন্ডারগার্টেন মূলত: ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান, তাদের বিশাল ক্ষতি হয়েছে। তাই তারা পার্টির জন্য আর কিছু খরচ করতে চায়না, তা যত স্বল্প পরিমানেই হোক।

তিনি ব্যাখ্যা করেছেন কি করে একজন মালিককে বোঝানো হয়েছে যে বাচ্চাদের আসলেই এই পার্টি উদযাপন দরকার:

ومن بين هذه الروضات على سبيل المثال روضة خالد بن الوليد الإسلامية، التي حتى يومين قبل الحفل لم تكن لديها نية في تنظيمه، تقول السيدة / مريم أبو الخير، مالكة الروضة … تقول أن عدداً كبيراً من الأهالي لم يتمكنوا من دفع الرسوم المستحقة على أبنائهم للروضة، وأنها لم تكن تنوي أن تقيم الحفل بسبب الضائقة الاقتصادية وصعوبات المواصلات وحالة الإحباط العام الذي يعاني منه الجميع، لكن وبعد أن تلقت مكالمات هاتفية من بعض الأمهات، تعاطفت مع مطلبهن بإسعاد الأطفال بوقت من المرح الذي حرموا منه طويلاً. وأجرت اتصالات مع بعض معارفها، الذين تكرموا بالمساهمة في شراء لوازم لحفل ترفيهي متواضع لأطفال الروضة.

এই ধরণের একটা কিন্ডারগার্টেনের উদাহরণ হলো খালেদ বিন আল ওয়ালিদ ইসলামিক কিন্ডারগার্টেন, যাদের পার্টি যেদিন হওয়ার কথা তার দুইদিন আগে পর্যন্ত কর্তৃপক্ষের কোন পরিকল্পনা ছিলনা এটা করার, জানিয়েছেন এর মালিক মারিয়াম আবু আলখায়ের… তিনি জানিয়েছেন যে অনেক অভিভাবক কিন্ডারগার্টেনে পাওনা বেতন দিতে পারেনি। অর্থনৈতিক কষ্ট, যাতায়াতের অসুবিধা আর সাধারণ আবসাদ যা সবাইকে ঘিরে ধরেছে এসবের কারনে তিনি পার্টিটি করতে চাননি। তবে কয়েকজন মার কাছ থেকে টেলিফোন পাওয়ার পর তিনি তাদের অনুরোধ রেখেছেন যে বাচ্চাদের কিছুটা মজা করার সুযোগ দেয়া উচিত যা থেকে তারা সর্বদা বঞ্চিত। তিনি বিভিন্ন পরিচিত জনের সাথে যোগাযোগ করেছেন যারা তাকে কিন্ডারগার্টেনের বাচ্চাদের একটা সাধারণ পার্টির জন্য প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে সহায়তা করেছে।

حين وصلت في يوم الحفل فوجئت بالحضور الكبير للأمهات، ووجدت السيدة مريم ومساعدتها سوزان (وهي مدرسة في الروضة والمساعدة الأساسية للسيدة مريم) تقومان بالاستقبال الشخصي للأهالي وكانت الأولى في حالة توتر كبير، سألت مساعدتها ما بها فأجابت ضاحكة: “الفرقة تأخرت .. السكر ارتفع وكمان شوي بيجيها ضغط” ابتسمت للدعابة ودهشت لسماع موضوع الفرقة. المهم وبعد انتظار تبادلت فيه الأمهات كل أنواع الشكاوى من مصاعب الحياة ومصائبها، وصلت فرقة باص الألعاب التابعة لمركز الإرشاد التربوي في جباليا، وبدأ العاملين فيها بتحضير المسرح وتحضير الأطفال للتفاعل معهم. تابعت الأمهات الإعدادات السريعة بفضول، في حين قام أحد أفراد الفرقة بتشغيل أنشودة من تلك الأناشيد المشهورة من قناة طيور الجنة، ذات الشعبية الكبيرة في فلسطين. بدأ الأطفال يتابعون بحذر ذلك الشاب الذي بدأ يتقافز على لحن الأغنية ويمثل حركاتها بطريقة طفولية مضحكة. كان من الواضح أن الشاب مدرب وكان يقوم بعمله بتلقائية ومرح ومع ذلك كانت استجابة الأطفال بطيئة.

পার্টির দিন আমি এত মাদের উপস্থিতি দেখে অবাক হয়েছি, আর দেখলাম মারিয়াম আর সুজান (কিন্ডারগার্টেনের শিক্ষক আর তার প্রধান সহকারী) সবাইকে অভ্যর্থনা জানাচ্ছে। মারিয়াম আসলেই চাপের মধ্যে ছিল। আমি যখন তার সহকারীকে জিজ্ঞেস করলাম যে কি অসুবিধা সে হেসে বলল, ‘সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানের শিল্পীরা দেরী করছে… তাই ওর ব্লাড সুগার বেড়ে গেছে, আর শীঘ্রই ওর ব্লাড প্রেশারও বেড়ে যাবে।’ আমি ঠাট্টা শুনে হেসেছি, কিন্তু ঐ দলের কথা শুনে অবাকও হয়েছি। যাই হোক কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে হল যখন মায়েরা তাদের জীবনের বিভিন্ন কষ্ট আর তাদের দুর্ভাগ্য নিয়ে আলোচনা করেছেন। তার পরপরই ‘দ্য প্লে বাস’ নামক সাংস্কৃতিক দলটা আসলো- জাবালিয়া (গাজার উত্তরের রেফিউজি ক্যাম্পে) এর শিক্ষা পথনির্দেশনা সেন্টার থেকে। দলের সদস্যরা অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি আর বাচ্চাদের তাদের সাথে যোগ দেয়ার প্রস্তুতি নিতে শুরু করল। মায়েরা কৌতুহলের কারনে এই প্রস্তুতি মনযোগ সহকারে দেখছিলেন। এরই মাঝে ‘দ্যা প্লে বাস’ দলের একজন প্যালেস্টাইনে বেশ জনপ্রিয় বাচ্চাদের চ্যানেল ‘বার্ডস অফ প্যারাডাইস’ এর একটা গান চালিয়ে দিল। বাচ্চারা সাবধানতা সহকারে এই লোককে অনুসরণ করা শুরু করল যে গানের সুরে সুরে লাফানো আর বাচ্চাদের মতো মজার ভঙ্গী করছিল। এটা পরিষ্কার ছিল যে এই যুবক এতে অভ্যস্ত, আর এটা স্বত:স্ফূর্তভাবে আর আনন্দের সাথে করছিল, কিন্তু বাচ্চারা ধীরে ধীরে সাড়া দিচ্ছিল।

شعرت باستياء كبير لفتور الأطفال، وحذرهم الشديد، ونظرتهم المتخوفة؛ كأنهم لا يصدقوا أن هناك من يريد أن يشاركهم أوقات من المرح؛ أو أنهم خائفين منه (أي المرح) لأنه أصبح غريباً عليهم. بدأت فقرات الحفل برقصة للدمى وأيضاً لم يتجاوب الأطفال معها بل إن بعضهم بدأ بالبكاء بمجرد دخولها. وهنا بدأت الأمهات تتعامل بعاطفية وانفعال وهن يحاولن أن يقنعن أطفالهن بأن هؤلاء مجرد دمى جميلة مثل تلك التي يروها ويحبوها في الرسوم المتحركة، حتى أن بعض الأمهات جذبت أبنائهن لحلبة الرقص لتشجعهم وتقنعهم بأن هؤلاء دمى وليسوا وحوش. وبعد جهد جهيد بدأ عدد كبير من الأطفال بالاندماج خاصة عندما جاءت فقرة لعبة الكراسي الموسيقية.

আমার কাছে বাচ্চাদের এই অমনোযোগী আর সাবধাণী ভাব নৈরাশ্যজনক মনে হচ্ছিল, আর তাদের ভয়ের ভাব, যেন তারা বিশ্বাস করতে পারছিল না যে কেউ তাদের সাথে মজা করতে চায়, বা তারা যেন মজা করতে ভয় পাচ্ছিল কারন এই অনুভব তাদের কাছে অচেনা ছিল। অনুষ্ঠান শুরু হলো, কিন্তু বাচ্চারা তখনো সাড়া দিতে ব্যর্থ হচ্ছিল, আর কেউ কেউ কাঁদতে শুরু করলো যখন ঐ দলের সদস্যরা (রকমারী) পোশাক পরে আসল। এই পর্যায়ে কয়েকজন মা আবেগী আর উত্তেজিত হয়ে পড়েন আর তাদের বাচ্চাদের বোঁঝাতে চেষ্টা করেন যে এগুলো তারা যে কার্টুন পছন্দ করে তারই মত সুন্দর কিছু চরিত্র। কয়েকজন মা তাদের বাচ্চাদের টেনে তুলেছিলেন নাচ করার জন্য, তাদের উৎসাহ দিয়ে আর তাদের বুঝিয়ে যে এরা ভাল চরিত্র আর কোন দানব না। অনেক চেষ্টার পর, অনেক বাচ্চা অংশগ্রহণ করলো, বিশেষ করে মিউজিকাল চেয়ারের খেলার সময়।

بدت لي محاولات الأمهات دمج أبنائهن في جو المرح واللعب مؤثرة جداً، شعرت بالمأساة التي نعيشها ونقبل عليها كأمهات لكن الأطفال، بعد جهد ملحوظ من أعضاء الفرقة، اندمجوا بالجو وبدأوا بالتفاعل والمشاركة في الرقص والغناء والتقافز والضحك.

আমার কাছে মায়েদের তাদের বাচ্চাদের খেলা আর মজায় অংশগ্রহনের জন্য এই প্রয়াস হ্রদয়গ্রাহী ছিল। এক সময় আমার কাছে মনে হয়েছিল মা হিসাবে এসব ট্রাজেডি আমাদের দেখতে আর মানতে হয়। কিন্তু বাচ্চারা ঐ সাংস্কৃতিক দলের সদস্যদের উল্লেখ করার মতো চেষ্টার পর তাদের কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ করলো নাচ, গান, লাফানো আর হাসিতে ফেটে পরে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .