বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

পশ্চিম সাহারা: কবিতা এবং স্প্যানিশ ভাষা – চিরস্থায়ী সম্পর্ক

কোন কোন সংস্কৃতির জন্যে খাবার গুরুত্বপূর্ণ, আবার অন্যদের কাছে হয়ত সঙ্গীত বা স্থাপত্য ইত্যাদি গুরুত্ব পায়। পশ্চিম সাহারার জন্যে তাদের সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট হচ্ছে তাদের কথ্য ঐতিহ্য এবং সাহরাউইদের জন্য কবিতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সাহিত্য তাদের জীবনের একটি বড় অংশ।

আত্রাপাদরদেসুয়েনো ব্লগের মতে:

আপনি যদি কোন সাহরাউয়ানকে কবিতা নিয়ে প্রশ্ন করেন, সে হয়ত কোন কবিতার বইয়ের নাম বা কবিতার নাম বলতে পারবে না। কিন্তু সে হয়ত আপনাকে বেশ কয়েকজন নামকরা কবির নাম বলতে পারবে, এমন কি তাদের নামকরা কিছূ কবিতাও আপনাকে মুখস্ত শুনিয়ে দেবে। কারন পশ্চিম সাহারার স্থানীয় ভাষা হাসানিয়াতে ঐতিহ্যগত কাব্যগুলো সব মুখের ভাষাতেই টিকে থাকে, যদিও ইদানিং কিছূ প্রচেষ্টা হচ্ছে এগুলোকে লিখে রেখে সংরক্ষণ করতে যাতে কবি মরে যাবার পর এগুলো বিস্মৃতির অতলে না হারিয়ে যায়। স্প্যানিশ ঔপনিবেসিক শাষনের সময় এ অঞ্চল খুব অবহেলায় ছিল। মানুষ সাহরাউই জনগোষ্ঠীর কবিতা বা সংস্কৃতি বিবেচনায় আনত না। তবে কবিতা কোন বাইরের প্রভাব ছাড়াই কবি, গায়ক এবং কাব্যপ্রেমিকদের স্মৃতি ও মুখের ভাষায় লোক লোকান্তরে যুগের পর যুগ টিকে থেকেছে।

অনেক সময় পারিবারিক ঐতিহ্য অনুযায়ী কবিতার সাথে সঙ্গীতও যোগ করা হয়, ব্যাখ্যা করছে সাহরাউই ব্লগার আজিজা ব্রাহিম, যিনি একজন নাম করা সঙ্গীত শিল্পী। তিনি রিফিউজি ক্যাম্পে থাকা তার জননন্দিত পিতামহী সাহরাউই কবি লিয়াদ্রা মিন্ট মাবরুকের সাথে তার সম্পর্কের কথা লিখেছেন:

আমার জন্যে যে মুহূর্তগুলো কখনই ভোলার নয় সেটি হচ্ছে পিতামহীর বাসায় চা খাওয়ার স্মৃতি। ছোটকাল থেকেই আমি তার সাথে অনেক সময় কাটিয়েছি। আমরা কথা বলেছি, তার মাথায় বিলি কেটেছি, আমরা আমাদের গোপন কথা এক অপরকে বলতাম কারন তার সাথে আমার বিশ্বস্ততার সম্পর্ক ছিল। আমার সঙ্গীত পিতামহীর কবিতা দিয়ে পূর্ণ। এটি স্বাভাবিক। অনেক সময়ই আমি গান শুরু করলে সে তার কবিতা আবৃত্তি শুরু করে এবং এর উল্টোটাও হয়।

আদ্রিয়ানা সাতজন সাহরাউই কবির লিন্ক দিয়েছেন যারা দুটি ভাষাকে সংযোগ করে; স্প্যানিশ ভাষা এ অঞ্চলের দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ ভাষা। তবে ব্লগার হাজ লো কুই দেবাস বলছে যে স্প্যানিশ ভাষা প্রশিক্ষন দেবার সার্ভান্তেস ইনস্টিটিউট তাদের সাহায্য করতে বার বার অস্বীকৃতি জানাচ্ছে

এটি কি তাদের দায়িত্ব ছিল না যে বেইজিং, সেন্ট পিটার্সবুর্গ কিংবা নিউইয়র্কের ফিফথ এভেনিউতে সারভান্তেস ইনস্টিউটের শাখা খোলার আগে সাহরাউই শিশুরা যারা সমস্যার মধ্যে আছে তাদের স্প্যানিশ ভাষা শেখানো?

এই ব্লগার লিখছেন যে সেটি বেশ দরকারী কারন স্প্যানিশ ভাষায়ও সাহরাউই সাহিত্য রয়েছে:

স্প্যানিশ ভাষায় সাহরাউই সাহিত্য যদিও খুব শিশুকালে রয়েছে, এটি উত্তোরত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে (যদিও এটি) প্রচার মাধ্যম দ্বারা উপেক্ষিত এবং বৃহত্তর বাজারের কাছে অপরিচিত।  একে স্প্যানিশ ভাষার ইনস্টিটিউট যেমন সার্ভান্তেস ইনস্টিউট বা কাসা আরাব দ্বারাও বিস্মৃত কারন তারা আপাত:দৃষ্টিতে আফ্রিকান আরব সংস্কৃতিতে উৎসাহী নয় যারা স্প্যানিশ ভাষা ধারণ করে এবং একদা স্পেনের অংশ ছিল। লেখক, বিশ্ববিদ্যালয় এবং সংহতি পরিষদের সাহায্য নিয়ে সাহরাউইরা নিরন্তর লড়ে চলেছে তাদের শান্তিময় স্বাধীনতার জন্যে। তাদের লক্ষ্য বিশ্বে শান্তি আর তাদের জন্মভুমি উদ্ধার করা যা তাদের কাছ থেকে জোর করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তিন বছর আগে একদল সাহরাউই কবিএবং লেখকরা একসাথে হয়ে জেনারাৎসিওন দো লা আমিস্তাদ সাহরাউই (সাহরাউইদের বন্ধু প্রজন্ম) নামক দল গঠন করে:

মাদ্রিদের কেন্দ্রে সেদিন জুলাই ৯এর একটি উষ্ন দিন ছিল। একদল সাহরাউই কবি যারা বিভিন্ন যায়গা থেকে এসেছিলেন অনেক স্প্যানিশ বুদ্ধিজীবি এবং লেখকদের সমর্থনে এক যাত্রা শুরু করেছিলেন যা প্রথম সফল হয়, এবং তাদের এখন ডজনেরও বেশী বই প্রকাশিত হয়েছে। তাদের অন্যান্য সমর্থকরা সাহরাউই শরণার্ধী ক্যাম্পে একই সময় একত্র হয়ে এই ‘বিনম্র স্বপ্নের’ জন্ম দেয় যা এখন একটি উঠতিমান প্রকল্প তবে অবশ্যই একটি বাস্তবতা।

কবিতা একটি ভাষাও বটে এবং সাহরাউইরা এখন তাদের বক্তব্য প্রকাশ করছে, তাদের ইতিহাস এবং কবিতা সংরক্ষণ করছে  স্প্যানিশ ভাষার সাথে সেতুবন্ধন রচনা করে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .